সোমবার, ২০ মার্চ ২০২৩, ০৬ চৈত্র ১৪২৯, ২৭ শাবান ১৪৪৪ হিজিরী

সারা বাংলার খবর

সুন্দরগঞ্জে মাধ্যমিকের বই চুরির মুলহোতাদের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ জানুয়ারি, ২০২৩, ৫:০২ পিএম

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে মাধ্যমিক পর্যায়ের ২০২৩ শিক্ষাবর্ষের সাড়ে এগারো হাজার বই পাচারের ঘটনায় প্রকৃত দোষীদের বিচারের আওতায় আনার দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।
রোববার (২২ জানুয়ারি) সকাল ১১ টায় সুন্দরগঞ্জ পৌর শহরের বঙ্গবন্ধু চত্বরে উপজেলার সচেতন নাগরিক সমাজের আয়োজনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলার বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ স্বতঃস্ফূর্তভাবে মানববন্ধনে অংশ গ্রহণ করেন।
দুই ঘন্টাব্যাপী চলা মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন সচেতন নাগরিক সমাজের আহ্বায়ক প্রভাষক মাসুদুর রহমান প্রামানিক, যুগ্ম-আহ্বায়ক ও উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি সাজেদুল ইসলাম, যুগ্ম-আহ্বায়ক ও উপজেলা আ’লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন, গোলাম কবির মুকুল, পৌর আ’লীগের সভাপতি আহসানুল করিম চাঁদ, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা কৃষক লীগের সভাপতি আতাউর রহমান মাস্টার, উপজেলা সিপিবির সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম পিপুল, সুন্দরগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মোশাররফ হোসেন বুলু, সুন্দরগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি শাহজাহান মিঞা, তিস্তা বাঁচাও নদী বাঁচাও সংগ্রাম পরিষদের সভাপতি মুন্সী আমিনুল ইসলাম সাজু, উপজেলা ইউপি সদস্য এসোসিয়েশনের সভাপতি আনোয়ারুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান গোলাম আহসান হাবিব মাসুদ, উপজেলা জাসদের সাবেক সভাপতি মুসলিম আলী মাস্টার, উদীচী উপজেলা সভাপতি এটিএম মাসুদ-উল ইসলাম চঞ্চল, ছাত্রলীগ নেতা রুহুল আমিন, রতন মিয়া, সুমন মিয়া, ফুয়াদ হাসান প্রমূখ।
বক্তারা বলেন, সুন্দরগঞ্জ উপজেলার সরকারি বই চুরির ঘটনা সারাদেশে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। এবার সারাদেশে বই নিয়ে সংকট চলছে। এরই মাঝে বইয়ের গোডাউন থেকে সাড়ে ১১ হাজার বই চুরি করে মোটা অঙ্কের টাকার লোভে পাঁচার করা হয়। বই চুরির ঘটনা সরকারের ভাবমূর্তি ব্যাপকভাবে ক্ষুন্ন করেছে। সরকারকে বেকায়দায় ফেলানোর জন্য এটি ঘটানো হয়েছে। এতোগুলো বই চুরি করা মাধ্যমিক অফিসের অফিস সহায়ক মাজেদের একার পক্ষে সম্ভব নয়। আমরা মনে করি এ ঘটনার সাথে দুর্নীতিবাজ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন মন্ডল জড়িত রয়েছে। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন মন্ডল প্রায় ১০ বছর থেকে সুন্দরগঞ্জে চাকুরী করছেন। তিনি নির্বিঘেœ বই চুরিসহ বিভিন্ন অনিয়ম করে অর্থ উপার্জন করছেন। মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা কোনভাবেই দায় এড়াতে পারেন না।
তাই তাকে আইনের আওতায় আনা দরকার।
উল্লেখ্য, এরআগে গত ১৫ জানুয়ারি সুন্দরগঞ্জ থেকে সাড়ে ১১ হাজার সরকারি পাঠ্য বই ট্রাকে করে পাঁচারকালে ড্রাইভার ও হেলপারকে আটক করে বইগুলো উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ বঙ্গবন্ধু যমুনা সেতু পশ্চিম থানা পুলিশ। এঘটনায় পরদিন ১৬ জানুয়ারি সুন্দরগঞ্জ থানায় মামলা করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মাহমুদ হোসেন মন্ডল। মামলায় তার অফিসের অফিস সহায়ক মাজেদ, ট্রাক ড্রাইভার শ্যামল ও হেলপার রাসেলকে আসামি করা হয়। মামলাটি সুন্দরগঞ্জ থানার এসআই আরিফুল ইসলামকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হলে তিনি আসামিদের ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে আবেদন করেন। এরপর তদন্তকারি কর্মকর্তা পরিবর্তন করে ডিবি পুলিশের উপর তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়। ১৯ জানুয়ারি রিমান্ড আবেদন শুনানী শেষে বিজ্ঞ আদালত প্রত্যেক আসামির ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন