রোববার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০, ১৪ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

মহানগর

কারা পালায় আর কারা পালায় না, তা সবাই জানে : মির্জা ফখরুল

যাত্রাবাড়ীতে বিএনপির পদযাত্রা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৩০ জানুয়ারি, ২০২৩, ৫:৩১ পিএম

আওয়ামী লীগ নাকি পালায় না- রাজশাহীর জনসভায় দেওয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ১/১১ তে গ্রেপ্তার হওয়ার পর কারা, কারা পালিয়েছিল তা সবাই জানে। তিনি বলেন, তখন দেশে ছিলেন একজন, তিনি হলেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া।

সোমবার (৩০ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর যাত্রাবাড়ীতে পদযাত্রা-পূর্ব সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে এ কথা বলেন বিএনপি মহাসচিব। গণতন্ত্র পুনঃরুদ্ধারসহ ১০ দফা দাবিতে এ পদযাত্রার আয়োজন করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপি। কেন্দ্র ঘোষিত রাজধানীতে টানা ৪ দিনের পদযাত্রার আজ দ্বিতীয় দিনের কর্মসূচি পালিত হচ্ছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, গতকাল রাজশাহীতে প্রধানমন্ত্রী বলেছেন আওয়ামী লীগ নাকি পালায় না। ১/১১ সরকারের সময় গ্রেপ্তার হওয়ার পর কারা কারা দেশ ছেড়ে পালিয়েছে, আর কারা পালায় না তা সবাই জানে। তখন দেশে ছিলেন একজন, তিনি হলেন দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া। তিনি পরিষ্কার করে বলেছিলেন- বিদেশে আমার কোনো জায়গা নেই। এই দেশ আমার, এই মাটি আমার। আমার জন্ম এখানে, মরলেও এখানে মরব। এজন্য আমরা এই কথাটা বলছি, এখনও সময় আছে, আপনারা যে ১৪-১৫ বছর ধরে দেশের মানুষের ওপর অত্যাচার করেছেন, সেই অত্যাচারে এখন মানুষের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। আপনারা পালানোর রাস্তা খুঁজে পাবেন না।

আজকে আমাদের পদযাত্রা, গণতন্ত্রের জয়যাত্রা মন্তব্য করে বিএনপির মহাসচিব বলেন, আমাদের এই পদযাত্রা মানুষের অধিকার আদায়ের পদযাত্রা। খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার জয়যাত্রা। তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগ এখন প্রহর গুনছে, তাদের পায়ের নিচের মাটি সরে গেছে। প্রতিদিন জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছে তারা। আজকে চালের দাম কোথায় গেছে? ১০ টাকা কেজি দরে চাল খাওয়াবে বলেছিল তারা, এখন কত টাকায় চাল খাচ্ছেন আপনারা? ডালের দাম কত? লবণের দাম কত? বহুগুণ বেড়ে গেছে। এই পুরান ঢাকায় গ্যাস নেই। শুধু পুরান ঢাকা নয়, গোটা বাংলাদেশে এখন গ্যাস নেই। ওরা গ্যাসও খেয়ে ফেলেছে। আবার গ্যাসের দাম বাড়িয়েছে, বিদ্যুতের দাম বাড়িয়েছে। প্রত্যেকটি পণ্যের মূল্য বাড়িয়ে দিয়েছে। জনগণের পকেট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হচ্ছে। আর সেই টাকা তারা বিদেশে পাচার করছে।

সরকারকে উদ্দেশ্য করে ফখরুল বলেন, আমাদের যে ১০ দফা দাবি তা মেনে নিয়ে পদত্যাগ করুন। সংসদ বাতিল করুন এবং তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা আবার চালু করে নতুন নির্বাচন কমিশনের মাধ্যমে নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। যে নির্বাচনে জনগণ অংশগ্রহণ করবে, মানুষ ভোট দিতে পারবে। পদযাত্রায় উপস্থিত নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মির্জা ফখরুল বলেন, আপনারা কি গত দুটি নির্বাচনে ভোট দিতে পেরেছেন? তখন নেতাকর্মীরা উচ্চস্বরে বলেন, না। মির্জা ফখরুল বলেন, ভোট কেউ দেয় নাই।

বক্তব্য শেষে যাত্রাবাড়ী থেকে বিএনপির নেতাকর্মীরা জুরাইন রেলগেটের উদ্দেশে পদযাত্রা শুরু করেন। পদযাত্রার সামনের সারিতে অংশ নেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, সদস্য সচিব রকিফুল আলম মঞ্জু প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন