ঢাকা, শনিবার, ১১ জুলাই ২০২০, ২৭ আষাঢ় ১৪২৭, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪১ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

অবশেষে রাজকীয়ভাবেই ফিরলেন মুভি লার্ড ডিপজল

| প্রকাশের সময় : ৩ জানুয়ারি, ২০১৭, ১২:০০ এএম

স্টাফ রিপোর্টার : অবশেষে দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর চলচ্চিত্রে ফিরলেন ‘মুভি লর্ড’ খ্যাত ডিপজল। গত ৩১ ডিসেম্বর একসঙ্গে দুই সিনেমার মহরত এবং ১ জানুয়ারি শুটিংয়ের মাধ্যমে বেশ রাজকীয়ভাবেই তিনি চলচ্চিত্রে ফিরলেন। চলচ্চিত্রের দুঃসময়ে তার এই ফেরার জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষায় ছিল চলচ্চিত্রাঙ্গণ। প্রত্যেকেই আশা করেছিলেন, ডিপজল ফিরলে চলচ্চিত্র আবার চাঙ্গা হয়ে উঠবে। একের পর এক ভালো সিনেমা নির্মাণের মাধ্যমে তিনি চলচ্চিত্রের বর্তমান পরিস্থিতি বদলে দিতে সক্ষম হবেন, যেমনটি করেছিলেন ২০০৬ সালে। চরম অশ্লীলতার মাঝে ডিপজলই কোটি টাকার কাবিন, চাচ্চু, মায়ের হাতে বেহশতের চাবিসহ একের পর এক অসাধারণ সিনেমা উপহার দিয়ে গোটা চলচ্চিত্রের পরিবেশ বদলে দিয়েছিলেন। চলচ্চিত্র থেকে অশ্লীল সিনেমা এক প্রকার উধাও হয়ে যায়। নির্মাতারা সুস্থ ও উপভোগ্য সিনেমা নির্মাণ করতে উৎসাহী হয়ে উঠেন। তারপর নিজের একান্ত ব্যক্তিগত কারণে মুভি লর্ড চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যান। চলচ্চিত্রও আবার অনেকটা দিকভ্রান্ত হয়ে পড়ে। প্রায় তিন বছর দূরে সরে থাকায় চলচ্চিত্রের অবস্থা বেহাল হয়ে পড়ে। এই বেহাল দশায় সবাই প্রত্যাশা করছিলেন, একমাত্র ডিপজলই পারেন চলচ্চিত্রে সুদিন ফিরিয়ে আনতে। তাদের এই অপেক্ষার অবসান হলো গত ৩১ ডিসেম্বর। মুভি লর্ড তার রাজকীয় আয়োজনের মাধ্যমেই চলচ্চিত্রে ফিরে এলেন। তার শুটিং স্টুডিও সাভারস্থ ফুলবাড়িয়া স্টুডিওতে আয়োজন করেন জমকালো মহরত অনুষ্ঠান। অনুষ্ঠানে উপস্থিতি ছিলেন সংসদ সদস্য আসলামুল হক, ইলিয়াস মোল্লা, চলচ্চিত্র পরিচালক সমিতির নবনির্বাচিত সভাপতি মুশফিকুর রহমান গুলজার, সাধারণ সম্পাদক বদিউল আলম খোকন, শাহীন সুমন, চিত্রনায়িকা অঞ্জনা, মিজু আহমেদ, চিত্রনায়ক বাপ্পী সাহা, চিত্রনায়িকা অমৃতা খানসহ চলচ্চিত্রাঙ্গণের বিভিন্ন শাখার কলাকুশলীরা। বিশিষ্ট চলচ্চিত্র পরিচালক মনতাজুর রহমান আকবরের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় পুরো মহরত অনুষ্ঠান উৎসবস্থলে পরিণত হয়। উপস্থিত বিশিষ্ট অতিথিবৃন্দদের প্রত্যেকেই আশাবাদ ব্যক্ত করেন, একমাত্র ডিপজলই পারবেন বর্তমান চলচ্চিত্রের দুঃসময়কে দূরে ঠেলে দিয়ে আলোকিত করে তুলতে। ডিপজলের মেয়ে ওলিজা মনোয়ার বলেন, আমি ইংল্যান্ডে পড়াশোনা করেছি। সেখানে থাকতে বিশ্বের যেখানেই গিয়েছি, সেখানের প্রত্যেক বাংলাদেশিই আমার বাবাকে চিনে। এটা আমার জন্য অনেক গর্বের একটি বিষয়। তার মেয়ে হতে পেরে আমি গর্বিত। আমি আশা করি, বাবা চলচ্চিত্রকে নতুন একটি দিক নির্দেশনা দিতে পারবেন। সবার বক্তব্য শেষে ডিপজল তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে চলচ্চিত্রে তার করণীয় সম্পর্কে কিছু কর্মসূচি তুলে ধরেন। তিনি বলেন, এখন ডিজিটাল যুগ। এর বিকল্প নেই। আমি প্রায় ২০০ সিনেমা হলে ডিজিটাল প্রজেক্টর ও সাউন্ড সিস্টেম প্রতিষ্ঠা করে দেব। যাতে নির্মাতাদের সিনেমা চালাতে কোনো সমস্যা না হয়। হলের পরিবেশ উন্নত করণে যা করা প্রয়োজন তা করব। তিনি প্রতিশ্রæতি দেন প্রতি মাসে দুটি করে সিনেমা দর্শকদের উপহার দেব। কোনো মাসে একটি সিনেমা মুক্তি পেলে, তার ডেমারেজ হিসেবে হলগুলোকে আর্থিক সহযোগিতা করব। তিনি বলেন, ফিল্ম আমার রক্তের সাথে মিশে আছে। এটা কোনো দিনই ছাড়তে পারব না। ব্যক্তিগত কারণে হয়তো কিছুদিন দূরে ছিলাম। তবে এক সময় না এক সময় আমি ফিরতামই। সেই সময়টা এখন। তিনি বলেন, সুন্দর গল্প ও দর্শকের মনের মতো সিনেমা দিতে পারলে দর্শক তা দেখবেই। আমার আগের সিনেমাগুলো যখন বিভিন্ন টেলিভিশনে প্রচার হয়, তখন দর্শকের ব্যাপক আগ্রহ থেকেই বুঝতে পারি, গল্প ও নির্মাণ ভালো হলে তা দর্শক সবসময়ই দেখে। আমি মনে করি, দর্শক কী চায়, তা আমি বুঝতে পারি। তিনি তার বক্তব্যে চলচ্চিত্রের সকলকে এক হয়ে আবার চাঙ্গা করে তোলার আহŸান জানান। তিনি বলেন, সকলে একসাথে কাজ করলে চলচ্চিত্র ভালো হবেই। আমি শুরু করেছি, অন্যদেরও এগিয়ে আসতে হবে। এ ব্যাপারে আমার সহযোগিতা থাকবে। তিনি পরিচালক সমিতির দুঃস্থ পরিচালকদের সহায়তা করার জন্য প্রতি মাসে ৫০ হাজার টাকার অনুদান ঘোষণা দেন। এদিকে ডিপজল কন্যা ওলিজা পরিচালনার মাধ্যমে তার চলচ্চিত্র ক্যারিয়ার শুরু করতে যাচ্ছেন। ‘মেঘলা’ নামে একটি ভৌতিক সিনেমা দিয়ে তার যাত্রা শুরু হচ্ছে। সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, শুধু ভিএফএক্স নয়, স্পেশাল ইফেক্ট মেকআপের মাধ্যমে কিভাবে আমাদের দেশে ভৌতিক সিনেমা নির্মাণ সম্ভব, তা আমি উপস্থাপন করব। আমার দেশে এই স্পেশাল মেকআপ উপস্থাপন করতে যাচ্ছি, যা দেখে দর্শকের কাছে রিয়েল ইফেক্ট মনে হবে। তারা শিহরিত হবেন, আন্দোলিত হবেন। তিনি বলেন, আমাদের চলচ্চিত্রকে বিশ্বমানে নিয়ে যাওয়ার লক্ষ্য নিয়েই আমি কাজ শুরু করছি। দেশের বাইরে স্পেশাল মেকআপ ইফেক্ট নিয়ে কাজ করার অভিজ্ঞতা আমার আছে। লন্ডন থেকে এর উপর আমি পরিপূর্ণ একটি কোর্স সম্পন্ন করেছি। আমি জানি, কিভাবে এই মেকআপ দিয়ে দর্শককে শিহরিত করা যাবে। মহরত অনুষ্ঠানে বাবা-মেয়ের এই নবযাত্রাকে আমাদের চলচ্চিত্রের জন্য অত্যন্ত ইতিবাচক হিসেবে অভিহিত করেন। এদিকে ছটকু আহমেদের পরিচালনাধীন ‘এক কোটি টাকা’ সিনেমাটির শুটিংয়ের মাধ্যমেই ডিপজল চলচ্চিত্রে ফিরছেন। সিনেমাটির শুটিং এখন চলছে। এর পরপরই ওলিজা পরিচালিত মেঘলা’র শুটিং শুরু হবে। ডিপজল জানান, আরও সাতটি সিনেমার গল্প প্রস্তুত করা রয়েছে। এগুলো একটির পর একটি নির্মাণ করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Waliullah ৩ জানুয়ারি, ২০১৭, ১:৫৮ এএম says : 0
Welcome back
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন