মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংসদ নির্বাচন

সিলেট আ.লীগে ওল্ড ইজ গোল্ড

ফয়সাল আমিন, সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৯ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৩০ আসনে প্রার্থী তালিকা চূড়ান্ত করে মনোনয়ন প্রাপ্তদের চিঠি দিয়েছে আওয়ামী লীগ। বাকি ৭০ আসন জোট শরিকদের জন্য ছেড়ে দেয়া হয়েছে। সিলেট বিভাগের ১৯ টি সংসদীয় আসনের ১৪ টিতেই ঘোষণা করা হয়েছে মনোনয়নপ্রাপ্ত প্রার্থীদের নাম। বাকি ৫ টি আসন গতবারের মতোই মহাজোট শরিক এরশাদের জাতীয় পার্টির জন্য রাখা হয়েছে।
বিগত ২০১৪ সালের নির্বাচনেও এ আসনগুলো জাতীয় পার্টির জন্য রাখা হয়েছিলো। অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে এবারও পুরনোদের ওপরই আস্থা রেখেছে টানা দুই মেয়াদে ক্ষমতাসীন দলটি। দলীয় প্রার্থীদের মধ্যে নতুন মুখ সিলেট-১ ও মৌলভীবাজার-৩ আসনে। ঐতিহ্যবাহী মর্যাদাপূর্ণ সিলেট-১ আসনে অর্থমন্ত্রী অনুজ ড. একে আবদুল মোমেনকে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। এ আসনে চলতি সংসদে প্রতিনিধিত্ব করছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এ ছাড়া মৌলভীবাজার-৩ আসনে মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নেছার আহমদ। বাকি আসনগুলোতে তেমন একটা হেরফের হয়নি।
সিলেট-১ আসনে ড. এ কে আবদুল মোমেনকে দিয়ে সিলেট-২ আসন গতবারের মতোই ছেড়ে দেয়া হয়েছে মহাজোট প্রার্থী ইয়াহ্ইয়া চৌধুরী এহিয়ার জন্য। সিলেট-৩ আসনে মাহমুদ-উস সামাদ চৌধুরী কয়েসেই আস্থা রেখেছে আওয়ামী লীগ। এ ছাড়া সিলেট-৪ ও সিলেট-৬ আসনে আগের মতোই ইমরান আহমদ ও শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের মনোনয়ন চূড়ান্ত করা হয়েছে। সিলেট-৬ আসনে বি. চৌধুরীর যুক্তফ্রন্টের শমসের মুবিন চৌধুরীর নাম শোনা গেলেও এখন পর্যন্ত আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে নুরুল ইসরাম নাহিদের নাম ঘোষণা করেছে আওয়ামী লীগ। আর সিলেট-৫ আসনে ফিরিয়ে আনা হয়েছে সাবেক সংসদ সদস্য হাফিজ মজুমদারকে। এ আসনটি গতবার ছেড়ে দেয়া হয়েছিল মহাজোটের শরিক জাতীয় পার্টিকে। এ আসনে বর্তমান এমপি জাতীয় পার্টির সেলিম উদ্দিন, তবে হাফিজ মজুমদার অবসর ভেঙে ফের রাজনীতিতে নামায় এবার আর এ আসনে ছাড় দেয়নি আওয়ামী লীগ।
এদিকে সুনামগঞ্জের চারটি আসন গতবারের মতোই আওয়ামী লীগ নিজেদের জন্য রেখে দিয়েছে। সুনামগঞ্জ-১ ইঞ্জিনিয়ার মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, সুনামগঞ্জ-২ জয়া সেনগুপ্তা ও সুনামগঞ্জ-৩ আসনে বর্তমান অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নানকে চূড়ান্ত করা হয়েছে। আর সুনামগঞ্জ-৪ ছেড়ে দেয়া হয়েছে মহাজোট প্রার্থীর জন্য। এ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। সুনামগঞ্জ-৫ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিককেই বহাল রেখেছে আওয়ামী লীগ। হবিগঞ্জ-১ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য মহাজোট প্রার্থী জাতীয় পার্টির আব্দুল মুনিম চৌধুরী। এ আসনটিতে এবারও আওয়ামী লীগ এখন পর্যন্ত কাউকে মনোনয়ন দেয় নি। হবিগঞ্জ-২ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য আওয়ামী লীগের আব্দুল মজিদ খান। এ আসনটিতে এখনো মনোনয়ন চূড়ান্ত ঘোষণা না দিলেও আসনটি আওয়ামী লীগ ধরে রাখবে বলেই এখনো পর্যন্ত সিদ্ধান্ত আছে। হবিগঞ্জ-৩ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য আবু জাহিরেই আস্থা রেখেছে দলটি। হবিগঞ্জ-৪ আসনে নতুন মুখ হিসেবে সাবেক গভর্ণর ড. মোহাম্মদ ফরাসউদ্দিনের নাম শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত বর্তমান সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মাহবুব আলীকে মনোনয়ন দিয়েছে আওয়ামী লীগ। মৌলভীবাজার-১ আসনে আওয়ামী লীগের বর্তমান সংসদ সদস্য শাহাব উদ্দিন। এবারো তাকেই মনোনয়ন দিয়েছে দলটি। মৌলভীবাজার-৩-এ সাবেক সমাজকল্যাণ মন্ত্রী মহসিন আলীর স্ত্রী সায়রা মহসিন সংসদ সদস্য থাকলেও এবার মনোনয়নবঞ্চিত হয়েছেন তিনি। তাঁর স্থলে মনোনয়ন পেয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নেছার আহমদ। মৌলভীবাজার-৪ আসনে আব্দুস শহীদকে বহাল রেখেছে আওয়ামী লীগ। এ জেলায় শুধু মৌলভীবাজার-২ আসনটি ছেড়ে দেয়া হয়েছে মহাজোট প্রার্থীর জন্য। এ আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য জাতীয় পার্টির নবাব আলী আব্বাস খান।
তবে এখন পর্যন্ত ঘোষিত সিলেটের ১৯ টি আসনে জাতীয় পার্টির আসন সংখ্যা গতবারের তুলনায় একটি কম হলেও শেষ মুহূর্তের সমঝোতার বিষয়টি উড়িয়ে দেয়া যায় না। আর আওয়ামী লীগ পুরনোতেই আস্থা রাখায় দলের ভেতর বিদ্রোহের শঙ্কা নেই বললেই চলে। দলের অবস্থান আগের মতোই সুসংগঠিত রবে বলেই মনে করেন রাজনীতি সংশ্লিষ্টরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন