ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

আন্তর্জাতিক সংবাদ

মোদির কটাক্ষের জবাব

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

নরেন্দ্র মোদী এবং শাসক বিজেপির বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়াতে বরাবরই সরব লেখিকা এবং অভিনেত্রী টুইঙ্কল খান্না। তার
সমালোচনা যে খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নজরেও এসেছে, তা টের পাওয়া গিয়েছিল কয়েকদিন আগেই, যখন অক্ষয়কুমারের মুখোমুখি হয়েছিলেন দেশের প্রধানমন্ত্রী। ‘অরাজনৈতিক’ সেই সাক্ষাৎকারে সেই প্রসঙ্গ তুলে টুইঙ্কলের রিয়েল লাইফ পার্টনার অক্ষয়কে মোদী বলেছিলেন, ‘আপনার নিশ্চয় বাড়ির পরিবেশ নিশ্চয়ই শান্তিপূর্ণ, কারণ টুইঙ্কল তো ওঁর সব রাগ টুইটারে আমার উপরেই ঝাড়েন।’
সাক্ষাৎকার সামনে আসার পর অবশ্য চুপ করে থাকেননি টুইঙ্কলও, টুইটারে যিনি পরিচিত ‘মিসেস ফানিবোনস’ নামে। তার প্রতিক্রিয়া ছিল, ‘আমি পুরো বিষয়টি সদর্থক দৃষ্টিতেই দেখছি। প্রধানমন্ত্রী শুধু যে আমার অস্তিত্ব নিয়েই সজাগ তা নয়, উনি আমার লেখাও পড়েন।’
এর পরই সোশ্যাল মিডিয়াতে তার বিরুদ্ধে সরব হন নেটিজেনদের একাংশ। তিনি এবং অক্ষয়কুমার, দু’জনেই নরেন্দ্র মোদীকে সমর্থন করছেন বলে অভিযোগ করেন তারা। কেউ কেউ তারা বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কিনা, তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন। তাদের প্রশ্নের সরাসরি কোনও উত্তর না দিলেও টুইঙ্কল জানিয়ে দিলেন কোন পার্টি তার পছন্দ। টুইটারে তিনি লিখলেন, ‘প্রতিক্রিয়া জানানো মানেই কাউকে সমর্থন করা নয়। এই মুহ‚র্তে একটি পার্টিতেই আমি অংশ নিতে পারি, যেখানে থাকবে প্রচুর ভডকা আর পরের দিনের হ্যাং ওভার।’
স্যানিটারি ন্যাপকিনের উপর চড়া কর বসানোর জন্য মোদী সরকারকে একসময় কড়া সমালোচনায় বিঁধেছিলেন টুইঙ্কল। কয়েক দিন আগে মথুরা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী হেমা মালিনীর সমালোচনা করেছিলেন তিনি। সোশ্যাল মিডিয়াতেই একটি ছবিতে চড়া রোদে ট্রাক্টর চালাতে দেখা গিয়েছিল হেমাকে। সেই ট্রাক্টরেই আবার তার পিছনে ফ্যান চলতে দেখা গিয়েছিল। এই গিমিকের জন্য বিজেপির কড়া সমালোচনা করেছিলেন তিনি। অভিনয় ছাড়ার পর এখন পুরোদস্তুর লেখালেখি নিয়েই থাকেন টুইঙ্কল। ‘মিসেস ফানিবোনস’ লিখে বিখ্যাত হয়েছিলেন ২০১৫ সালে। মহিলা লেখিকা হিসেবে ওই বছর সব থেকে বেশি বিক্রি হয়েছিল তার বই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Nazam Uddin ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১৮ এএম says : 0
অনেকে ইতিহাস না জানার কারণে ভারত দেশটিকে হিন্দুদের বলে মনে করে থাকে। কিন্তু ইতিহাস সাক্ষ্য দেয়- ভারতে সর্বপ্রথম মুসলমানগণই সভ্যতা গড়ে তোলো এবং তার পূর্বে যে বা যারা ছিল তারা অসভ্য, বর্বর, মানবাকৃতির বস্ত্রহীন জংলী পশুর মতো ছিল। তাদের না ছিল কোনো দেশত্ববোধ, না ছিল কোনো সভ্যতা, না কোনো স্বাধীনতার প্রতীক, না জাতিগত কোনো বৈশিষ্ট্য। তারা এতোটা হিংস্র ও অসভ্য প্রকৃতির ছিল যে, সেখানে পৃথিবীর কোনো পর্যটক বা ধর্মের বার্তা নিয়ে কোনো মানুষ যেতে সাহস করতো না।
Total Reply(0)
Nazam Uddin ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
ভারতে মানুষের পোষাকধারী কিছু অসভ্য জন্তু-জানোয়ার বসবাস করেন তারা হচ্ছেন নিকৃষ্ট প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্রমোদী সহ বিজেপির যত্ত সমর্থক আছেন তারা
Total Reply(0)
ধামইরহাট সীমান্ত বার্তা ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
যখন নিজের স্বার্থে আঘাত আসে তখন মোদি সাহেব একজন চিত্র নায়কের সমালোচনায় সময় দেন। আর ১৮ কোটি জনগনের ভালোর জন্য কিছু করতে পারেন না!
Total Reply(0)
Rafiqul Islam ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
একজন মূর্খ চা বিক্রেতা, দাঙ্গাবাজ,গো মুত্র খুর যদি দেশের প্রধানমন্ত্রি হয় তাহলে তার কাছ থেকে এর থেকে ভাল কি আশা করা যায়!!!!
Total Reply(0)
Abdul Alim ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
মোদির মতন দুষটু লোক এদুনিয়ায় হুব কম আছে। ওর মতন আর কয়েকটা নেতা তাকলে ৩ বিষস যুদধ হতে বেশি সময় লাগত না।
Total Reply(0)
Sakhayet Suman ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
মোদির নির্দেশে আইন শৃঙ্খলা বাহিনি কাশ্মিরে নিরিহ মানুষদের গ্রেফতার এবং নির্যাতন করে হত্যা করছে। মোদির এই হিন হত্যাকান্ডের নিন্দা জানাই এবং তদন্ত পূর্বক বিচার দাবি করছি
Total Reply(0)
বিএম সবুজ ২৭ এপ্রিল, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
বিশ্বের সব প্রধানমন্ত্রীর মধ্যে একমাত্র মোদি গরুর মুত খায়,তাই এমন জন্গলের কাছ থেকে ভালো কিছু আশা করা যায়না,সে গুজরাটের মুসলিম হত্যাকারি কসাই ,
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন