ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২ ফাল্গুন ১৪২৬, ৩০ জামাদিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

আশুলিয়ায় একই পরিবারের ৩ নারী ভক্তকে ধর্ষনের অভিযোগে ভন্ড পীর গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার, সাভার | প্রকাশের সময় : ৬ মে, ২০১৯, ৬:০০ পিএম

ঢাকার সাভারের আশুলিয়ায় ৩জন নারী মুরীদকে পালাক্রমে ধর্ষনের অভিযোগে এক ভন্ড পীরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

গ্রেপ্তারকৃত মনির হোসেন (৪০) আশুলিয়ার কুড়গাঁও আমতলা এলাকার সূর্য্য ভিলার মালিক এবং মৃত: (অবঃ) সার্জেন্ট আঃ রহিমের ছেলে। সে নিজেকে পীর পরিচয় দিয়ে কতিপয় দালালের মাধ্যমে বিভিন্ন বয়সের নারী ও পুরুষকে মুরীদ বানিয়ে তাদের মাধ্যমে মাদক ও অসামাজিক কাজে লিপ্ত রেখে অবৈধ অর্থ আদায় করতো বলে পুলিশ জানিয়েছে।
তার সহযোগী মকবুল ও হাসনাত পলাতক রয়েছে তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।
এক নারীর দেয়া অভিযোগের ভিত্ত্বিতে রোববার দিবাগত গভীর রাতে আশুলিয়ার কুরগাঁও আমতলা এলাকার সূর্য্য ভিলা’র ৫ম তলার আস্তানা থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। তখন আস্তানা থেকে বিভিন্ন বয়সের তিন নারীকে উদ্ধার করে পুলিশ।
সোমবার দুপুরে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের সময় চেয়ে গ্রেফতারকৃতকে আদালতে প্রেরণ করেছে।
আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (অপারেশন) মোহাম্মদ জিয়াউল ইসলাম জিয়া বলেন, গ্রেফতারকৃতের বিরুদ্ধে ৯(১)/৩০ ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন সংশোধনী ২০০৩ নারীকে ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও সহায়তার করার অপরাধসহ ৪২০/৪০৬/২৯৫ পেনালকোড ১৮৬০ সালের প্রতারণা এবং ধর্মীয় অনুভুতিতে আঘাত হানার অপরাধে মামলা করা হয়েছে।
এজাহারের বরাত দিয়ে ওই পুলিশ কর্মকর্তা জানান, প্রায় ১০ বছর আগে ভন্ড পীর মনির তার প্রতিবেশি এক প্রবাসীর স্ত্রীকে মুরীদ বানান। এ সুবাধে ভন্ড পীরের দরবারে নিয়মিত যাতায়াত ছিল তার এক বড় বোনের। এভাবে ধর্মের নানা অপব্যাখ্যা নিয়ে প্রতিনিয়ত ধর্ষণ করে আসছিলো এ নারীকে। তারপর ভন্ড পীরের নজর পরে ওই নারীর ছোট বোনের উপর। বড় বোনকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে একই কায়দায় ছোট বোনকে মুরীদ করে নেয় ভন্ড পীর। এরপর তাকেও নিয়মিত ধর্ষন করে আসছিলো। এখানেই শেষ নয় সর্বশেষ বড় বোনের ১৩ বছরের কিশোরী মেয়েও রেহাই পায়নি ভন্ড পীরের কবল থেকে। তার মাকে নানা কৌশল করে বুঝিয়ে মেয়েকেও একই কায়দায় ধর্ষণ করতে শুরু করে। এ অপকর্মের ভন্ড পীরের আস্তানায় আশুলিয়ার কুরগাঁও এলাকার ৫ তলা বাড়ির ৫ তলাতে। দীর্ঘদিন ধরে আস্তানা তৈরি করে নিজ বাড়িতেই এমন ভয়ংকর অপকর্ম চালিয়ে আসছিলো ভন্ড পীর।
সর্বশেষ শনিবার রাতেও ওই কিশোরি ধর্ষনের শিকার হয়। পরে ধর্ষনের বিষয়টি বিলকিস নামে তার এক খালাকে জানালে সে আশুলিয়া থানায় উপস্থিত হয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। এর ভিত্তিতে পুলিশ ভন্ড পীর মনির হোসেন কে গ্রেফতার করেন। ঘটনায় ভুক্তভোগি নারীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন