ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

রাষ্ট্রদ্রোহী প্রিয়া সাহার বিচার দাবি

বিভিন্ন ইসলামি দলের নেতৃবৃন্দ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ জুলাই, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের নিকট বাংলাদেশে ভিন্ন ধর্মানুসারীদের ওপর অন্যায় অত্যাচার চলছে, ৩৭ মিলিয়ন ভিন্ন ধর্মাবলম্বী এই দেশ থেকে গুম হয়ে গেছে এই মর্মে জনৈক মহিলা প্রিয়া সাহার মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগে গভীর উদ্বেগ ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছেন বিভিন্ন ইসলামি দলের নেতৃবৃন্দ। মার্কিন প্রেসিডেন্টের নিকট প্রিয়া সাহার বানোয়াট অভিযোগ জাতির বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র।

চক্রান্তকারিরা সোনার বাংলাকে ধর্মীয় দাঙ্গা-সংঘাতের মাধ্যমে অস্থিতিশীল করে ফায়দা লুটতে চায়। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের হীন চক্রান্তে লিপ্ত প্রিয়া সাহা। অবিলম্বে বিতর্কিত প্রিয়া সাহাকে গ্রেফতার পূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে।

বাংলাদেশ খেলাফত মজলিস
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে বাংলদেশের বিরুদ্ধে সংখ্যালঘু নির্যাতনের ভিত্তিহীন অভিযোগ তোলা প্রিয়া সাহা বাংলাদেশে আসলেই গ্রেফতারের দাবী জানিয়েছেন বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের আমীর শায়খুল হাদীস আল্লামা ইসমাঈল নূরপুরী ও মহাসচিব মাওলানা মাহফুজুল হক। এক বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় বলেন, প্রিয়া সাহা দেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করে রাষ্ট্রদ্রোহীতার অপরাধ করেছে। সে দেশে প্রবেশ করার অধিকার হারিয়েছে। সুতরাং দেশে প্রবেশ করলেই তাকে গ্রেফতার করতে হবে। তাকে যারা সহযোগিতা করেছে তাদেরকেও চিহ্নিত করতে হবে। নেতৃদ্বয় বলেন, দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার হীন চক্রান্তে লিপ্ত প্রিয়া সাহা । এই চক্রান্তকারিদের কঠোরভাবে দমন করতে হবে। অন্যথায় দেশের জন্য বিপর্যয় ডেকে আনবে।

বাংলাদেশ মুসলিম লীগ
মুসলিম লীগের সভাপতি সাবেক এমপি এডভোকেট বদরুদ্দোজা সুজা, মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের , নির্বাহী সভাপতি আব্দুল আজিজ হাওলাদার ও স্থায়ী কমিটির সদস্য আতিকুল ইসলাম এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্টের কাছে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে প্রিয়া সাহা দেশের বিরুদ্ধে এক গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে। এই ষড়যন্ত্রকারিদের উদ্দেশ্য স্পষ্ট তারা সোনার বাংলাকে ধর্মীয় দাঙ্গা-সংঘাতের মাধ্যমে অস্থিতিশীল করে ফায়দা লুটতে চায়। বাংলাদেশ ইতিমধ্যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মডেল রাষ্ট্র হিসেবে বিশ্বে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। বিভিন্ন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের এদেশে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান, এই সম্প্রীতি আন্তর্জাতিক আধিপত্যবাদী ও চক্রান্তকারীদের কাছে যে মাথাব্যথার কারণ তা আজ প্রমাণিত।

নেতৃবৃন্দ বলেন, স্বাধীন রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে একজন নাগরিকের এই ধরণের অভিযোগ রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল বিধায় অবিলম্বে এই মহিলা এবং তার সহযোগিদের প্রকৃত পরিচয় উদঘাটন করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

খেলাফত মজলিস
খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের কাছে দেয়া প্রিয়া সাহার অভিযোগ বাংলাদেশের বিরুদ্ধে চলমান রাষ্ট্রবিরোধী গভীর ষড়যন্ত্রের অংশ। প্রিয়া সাহার এই ভিত্তিহীন বক্তব্যের মাধ্যমে শুধু এদেশের মুসলমানদের ভাব-মর্যাদা নষ্টেরই চেষ্টা করেননি, বাংলাদেশের সুনাম ক্ষুন্ন ও রাষ্ট্রীয় নিরাপত্ত বিঘ্নিত করার অপচেষ্টা চালিয়েছেন। বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় সরকারকে রাষ্ট্র বিরোধী এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রিয়া সাহা ও তার সাথে জড়িত সকল নেপথ্য নায়কদের বিরুদ্ধে আইনী পদক্ষেপ গ্রহনের দাবী জানান।

ইসলামিক মুভমেন্ট
ইসলামিক মুভমেন্ট বাংলাদেশ-এর চেয়ারম্যান এডভোকেট খায়রুল আহসান এক বিবৃতিতে প্রিয়া সাহার রাষ্ট্রবিরোধী ভিত্তিহীন বক্তব্যের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে তার বিরুদ্ধে আইনী ব্যবস্থা গ্রহণের জোর দাবি জানিয়েছেন। তিনি বলেন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার চক্রান্তের লক্ষ্যেই এ ধরনের রাষ্ট্রবিরোধী মিথ্যা অভিযোগ উত্থাপন করে প্রিয়া সাহা ব্যক্তিগত ফায়দা হাসিলের অপচেষ্টা চালিয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন