ঢাকা, সোমবার, ২১ অক্টোবর ২০১৯, ০৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ভারত ৩৭০ ধারা বাতিলের বিষয় জানায়নি -আমেরিকা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০১৯, ৪:১৭ পিএম

ভারতীয় সংবিধানের ৩৭০ ধারা মোতাবেক দেশটির জম্মু-কাশ্মীর রাজ্য যে বিশেষ মর্যাদা পেত তা বাতিল করা হয়েছে গত মঙ্গলবার। এর পর বিষয়টি নিয়ে তীব্র প্রতিক্রিয়া জানায় পাকিস্তান। বিষয়টি জাতিসংঘসহ বিভিন্ন ফোরামে তোলার হুঁশিয়ারি দেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

এর পর ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমে বলা হয়, পাকিস্তান যে বিরোধিতা করবে সেটা আগে থেকেই জানত ভারত এবং সে জন্য বিষয়টি আগে থেকেই যুক্তরাষ্ট্রসহ জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের অন্য সদস্যদের জানিয়েছে তারা।

কিন্তু ভারতীয় গণমাধ্যমের এই খবর নাকচ করে দিয়েছে আমেরিকা। ওয়াশিংটন বলছে, এ রকম কোনো খবর তাদের আগে জানানো হয়নি। ভারতের মিডিয়ায় বলা হয়, দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর গত ১ আগস্ট যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেওকে কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা বাতিল করার পরিকল্পনা অবহিত করেছেন।

কিন্তু যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যালিস ওয়েলসকে উদ্ধৃত করে পাকিস্তানি গণমাধ্যম ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ঘটনা ভারতীয় মিডিয়ার রিপোর্টের পুরো উল্টো। ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিশেষ সাংবিধানিক মর্যাদা বাতিল করার বিষয়ে আগেভাগে যুক্তরাষ্ট্র সরকারকে অবহিত করেনি ভারত সরকার। এমনকি এ ব্যাপারে কোনো পরামর্শও করেনি।

উল্লেখ্য, গত সোমবার ভারতের রাজ্যসভায় জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যকে দেওয়া বিশেষ মর্যাদা সংক্রান্ত সংবিধানের ৩৭০ ধারা বাতিল করে ভারত। পর দিন মঙ্গলবার তা দেশটির লোকসভায় পাস হয়।

ওই ধারা বাতিলের ফলে জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যের মর্যাদা হারায়। ফলে জম্মু-কাশ্মীর ভাগ হয়ে জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখ নামে দুটি আলাদা অঞ্চলে পরিণত হয়েছে, যা নিয়ন্ত্রিত হবে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারের মাধ্যমে। তবে সরকারের পক্ষ থেকে দুটি অঞ্চলের জন্য দুইজন প্রতিনিধি থাকবেন।

এর প্রতিক্রিয়ায় বুধবার পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক সীমিতকরণের সিদ্ধান্ত নেয়। এ ছাড়া ইসলামাবাদে নিযুক্ত ভারতীয় দূত বহিষ্কার এবং নয়াদিল্লিতে নতুন দূত না পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেয় দেশটি। সেইসঙ্গে কাশ্মীর ইস্যুকে জাতিসংঘসহ অন্যান্য আন্তর্জাতিক ফোরামে তোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Tafadar AbdurRaouf ৮ আগস্ট, ২০১৯, ৮:৫৭ পিএম says : 0
Bucher Prime Minister Mudi and his 400 bucher mps didn't think at all the jommu kasmirian people.they all are bustard Hindi (sonathoni dhormer men).We should everybody thrmuelim people stand with the jommu kashmorian Muslim brothers and sisters stand with the writings,picketing against the Indian government, also the bustard Indian policy maker for the country like India.
Total Reply(0)
Tafadar AbdurRaouf ৮ আগস্ট, ২০১৯, ৮:৫৮ পিএম says : 0
Bucher Prime Minister Mudi and his 400 bucher mps didn't think at all the jommu kasmirian people.they all are bustard Hindi (sonathoni dhormer men).We should everybody thrmuelim people stand with the jommu kashmorian Muslim brothers and sisters stand with the writings,picketing against the Indian government, also the bustard Indian policy maker for the country like India.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন