ঢাকা, সোমবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৮ আশ্বিন ১৪২৬, ২৩ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ডিএনসিসির চিরুনি অভিযান

প্রথম দিনে এক লাখ টাকা জরিমানা

| প্রকাশের সময় : ২১ আগস্ট, ২০১৯, ১২:০১ এএম

সারা দেশে ডেঙ্গু জ্বরের প্রকোপের মধ্যে মশাবাহিত রোগের জীবানুবাহক এডিস মশা নিধনে ২০ দিনের চিরুনি অভিযানে নেমেছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি)। গতকাল মঙ্গলবার সকালে রাজধানীর গুলশান-১ এর শহীদ ফজলে রাব্বী পার্কে অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ অভিযানের উদ্বোধন করেন। আগের অভিযানে মচকানো পা নিয়ে ক্রাচে ভর দিয়ে অনুষ্ঠানে আসেন ডিএনসিসি মেয়র আতিকুল ইসলাম।

মেয়র বলেন, ঢাকা উত্তরের পুরনো ৩৬টি ওয়ার্ডকে ১০টি সেক্টরে ভাগ করা হয়েছে, প্রতিটি সেক্টরে রয়েছে ১০টি সাব সেক্টর। আগামী ২০ দিন এডিসের লার্ভা নিধনে প্রতিদিন আড়াই ঘণ্টা অভিযান পরিচালনা করা হবে। ২০০টি ফগার মেশিন ও এক হাজার ৬০০ প্রশিক্ষিত কর্মী অভিযানে থাকবে। কোনো বাড়িতে লার্ভা পাওয়া গেলে আমরা সেখানে স্টিকার লাগিয়ে দিয়ে আসব। তারপর ৭ থেকে ১০ দিন পরে আবার যাব। তারপরও সেখানে লার্ভা পাওয়া গেলে জরিমানা করা হবে। তবে সরকারি, বেসরকারি প্রতিষ্ঠান ও বাণিজ্যিক ভবনগুলোতে লার্ভা পেলে তাৎক্ষণিক জরিমানা করা হবে বলে সতর্ক করে দেন মেয়র।

ডিএনসিসি মেয়র বলেন, সিটি কর্পোরেশনে যদি কোনো সমস্যা থাকে, তাহলে আপনারা আমাকে দোষারোপ করতে পারেন। ম্যাজিস্ট্রেটকে বলেছি, দরকার পড়লে মেয়রের নামেও কেস করবা। আইন সবার জন্য সমান। প্রতিষ্ঠানে লার্ভা পেলে ছাড়ব না কিন্তু।
কাউন্সিলরদের উদ্দেশে তিনি বলেন, কেউ ঘরে বসে থাকবেন না। মাঠে নেমে চিরুনি অভিযান সফল করুন। বাড়ি বাড়ি গিয়ে এডিস মশা মারা একটা হিউজ টাস্ক, দুরুহ ব্যাপার।

অভিযানে নগরবাসীর সহযোগিতা চেয়ে তিনি বলেন, বাসার সামনে, বাড়ির পেছনে, অফিসের ছাদে বা দুই বাড়ির মাঝে যে নো ম্যানস ল্যান্ড আছে, সেটা কিন্তু সিটি কর্পোরেশনের মধ্যে পড়ে না। দেখা যাচ্ছে, বাড়ির সামনেরটা ছিমছাম। কিন্তু পেছনে অসুন্দর, গর্ত। এমনই এক গর্তে পড়ে আমার পা মচকে গিয়েছে। বসতবাড়ির আশপাশ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে নগরবাসীর প্রতি অনুরোধ জানান অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ।

এদিকে ওয়ার্ড ভিত্তিক এডিস মশার প্রজননস্থল ধ্বংসে চিরুনি অভিযানের প্রথম দিনেই একটি বাসার পরিত্যাক্ত কমোডে এডিস মশার লার্ভা পাওয়ায় এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল দুপুরে গুলশানে ডা. ফজলে রাব্বী পার্কের পাশেই ১/এ নম্বরের ৭ তলা বাড়ির মালিককে এ জরিমানা করা হয়। অনাদায়ে ওই মালিককে এক মাসের কারাদÐ ঘোষণা করেন সিটি কর্পোরেশনের আঞ্চলিক কর্মকর্তা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হেমায়েত হোসেন। পরে মেয়র আতিকুল ইসলামের নির্দেশে ওই বাড়িতে এডিস লার্ভা পাওয়া গেছে এমন স্টিকার লাগিয়ে দেওয়া হয়।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হেমায়েত হোসেন বলেন, আমরা এই বাড়ির ছাদের উপরে পরিত্যাক্ত কমোডে প্রচুর লার্ভা পেয়েছি। চারিদিকে ডেঙ্গুর এত আতঙ্ক ও প্রচার প্রচারণার পরও এই ভবন মালিক সচেতন হননি। এজন্য কর্পোরেশনের আইন অনুযায়ী ভবন মালিককে এক লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক মাসের জেল দিয়েছি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন