ঢাকা, রোববার , ১৭ নভেম্বর ২০১৯, ০২ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

তীব্র স্রোতে ফেরি চলাচল বন্ধ শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুট

শিবচর (মাদারীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ১৫ অক্টোবর, ২০১৯, ১২:০২ এএম

গত ২৪ ঘন্টায় ২৩ সে.মি. পানি হ্রাসসহ পদ্মা নদীতে হু হু করে পানি কমলেও শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি নৌরুটে তীব্র ¯্রােত এখনো বহমান রয়েছে। দ্রুত পানি কমতে থাকায় প্রকট রুপ নিয়েছে এ রুটের নাব্য সংকট। নাব্য সংকটে রোববার রাত থেকে সকল ফেরি বন্ধ থাকলেও সোমবার সকাল থেকে ৩টি ছোট ফেরি কোনমতে জরুরি এ্যাম্বুলেন্স নিয়ে পারাপার হচ্ছে।

এদিকে ফেরি বন্ধ থাকায় পারাপারের অপেক্ষায় উভয় পাড়ে সহ¯্রাধিক যানবাহন আটকে পরায় যাত্রী ও পরিবহন শ্রমিকদের দূর্ভোগ বেড়েছে। এ রুট বন্ধ থাকায় যাত্রী ও যানবাহনগুলোকে বিকল্প রুট ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছে বিআইডব্লিউটিসি। বিআইডব্লিউটিসি, বিআইডব্লিউটিত্রসহ একাধিক সূত্রে জানা যায়, জুলাই-আগষ্ট মাস থেকেই তীব্র ¯্রােত ও নাব্য সংকটে শিমুলিয়া-কাঠালবাড়ি রুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

গত ২৪ ঘন্টায় এ রুটে ২৩ সে.মি.সহ গত ৪৮ ঘন্টায় ৩৮ সে.মি.সহ গত কয়েকদিনে হু হু করে কমছে পানি। এতে এ রুটের লৌহজং টার্ণিং ও বিকল্প রুটের মুখে বড় ধরনের ডুবোচর দেখা দেয়ায় রোববার রাত ৮ টা থেকে সব ফেরি বন্ধ হয়ে যায়। সোমবার সকাল থেকে ৩টি ছোট ফেরি শুধু এ্যাম্বুলেন্স পারাপার করছে। কাঁঠালবাড়ী-শিমুলিয়া রুটে ৪ টি রোরোসহ মোট ১৮ টি ফেরি থাকলেও উদ্ভুত সংকটে মাঝে মাঝেই চলাচল ব্যহত হওয়ার পাশাপাশি দীর্ঘ সময় বন্ধও থাকছে ফেরি চলাচল। উভয় ঘাটে সহ¯্রাধিক যানবাহনের সাঁড়ি পড়েছে। ফলে দূর্ভোগ পিছু ছাড়ছে না এ নৌরুট ব্যবহারকারিদের।

বিআইডব্লিউটিসি কাঁঠালবাড়ি ঘাট ম্যানেজার আ. সালাম বলেন, নাব্য সংকটে ফেরি চলাচল ব্যহত হচ্ছে। ফলে ঘাট এলাকায় কিছু যানবাহন আটকে পড়েছে। আমরা জরুরি এ্যাম্বুলেন্স অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পারাপার করছি। এ রুটে চলাচল যানবাহন অন্য রুট ব্যবহার করলে ভোগান্তি এড়াতে পারবে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন