ঢাকা শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ০৭ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

কেরানীগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে শিক্ষক আটক

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৭:০৭ পিএম

ঢাকার কেরানীগঞ্জে মাদ্রাসা ছাত্রকে বলাৎকারের অভিযোগে ওই মাদ্রাসার এক শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। আটকৃত শিক্ষকের নাম মোঃ মফিজুল ইসলাম(২৮)। সে দক্ষিন কেরানীগঞ্জের ইকুরিয়া টিলা বাড়ি জামিয়া মাহামুদিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক। আজ মঙ্গলবার(০৩ডিসেম্বর) দুপুর ১২টায় তাকে আদালতে প্রেরন করা হলে বিজ্ঞ আদালতের কাছে তিনি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী দিয়েছেন।
দক্ষিন কেরানীগঞ্জ থানার এসআই ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মোঃ মিজানুর রহমান জানান,ইকুরিয়া টিলা বাড়ির জনৈক বাবুল মিয়ার বাড়ির ভাড়াটিয়ে মোঃ কবীর হোসেনের ১১বছরের ছেলে একই এলাকায় অবস্থিত টিলা বাড়ি জামিয়া মাহামুদিয়া মাদ্রাসার হেফজ খানার ছাত্র।গত একবছর যাবত ২/৩দিন পরপর ওই শিক্ষক তার ছেলেকে নিয়মিতভাবে বলাৎকার করে আসছিল। গত সোমবার(০২ডিসেম্বর) রাত ৯টার সময় ছেলেটি তার বাবা কবীর হোসেনকে অন্য মাদ্রাসায় ভর্তি করার জন্য বলে। এতে কবীর হোসেন তার ছেলেকে কি সমস্য হয়েছে বলে জিজ্ঞাসা করলে ছেলেটি বলাৎকারের পুরো ঘটনাটি তার বাবার কাছে অকোপটে খুলে বলে দেয়। এই ঘটনায় সোমবার রাতেই কবীর হোসেন থানায় ওই শিক্ষককে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।এতে তাৎক্ষনিকভাবে টিলা বাড়ি জামিয়া মাহামুদিয়া মাদ্রাসায় অভিযান চালিয়ে শিক্ষক মোঃ মফিজুল ইসলামকে আটক করা হয়।তাকে আজ আদালতে প্রেরন করা হলে তিনি বিজ্ঞ আদালতের কাছে ১৬৪ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী দিয়েছেন। আটককৃত শিক্ষকের বাবার নাম মোঃ মিজানুর রহমান। তার বাড়ি চাঁদপুর জেলার সদর থানার পশ্চিম শকদী শেখ বাড়ি গ্রামে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন