শনিবার, ২৮ মে ২০২২, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

মহানগর

নির্বাচিত মেয়ররা ৫-৭ ভাগ মানুষের রায় পেয়েছে -ড. কামাল

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৬:১৫ পিএম

সরকার, নির্বাচন কমিশন, নির্বাচন প্রক্রিয়ার ওপর বাংলাদেশের জনগণ ও যুব সমাজ অনাস্থা প্রকাশ করেছে বলে মন্তব্য করেছেন গণফোরাম সভাপতি ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নেতা ড. কামাল হোসেন। তিনি বলেন, সদ্য সমাপ্ত ঢাকা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে নির্বাচিত মেয়ররা মাত্র ৫ থেকে ৭ ভাগ মানুষের রায় পেয়েছে। বাকী ফলাফল ইভিএমের জ্বাল ভোট। বর্তমান সরকারের আমলে গণতন্ত্র, আইনের শাসন ও নির্বাচন ব্যবস্থা ধ্বংস হয়ে গেছে। এই সরকার চায় ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে না যাক। তারা ভোটারদেরকে ভয় পায়। জনগণ ভোট কেন্দ্রে না যাওয়ার অর্থ তারা মনে করে তাদের ভোটে এই সরকারের পরিবর্তন হবে না। এটা দেশ ও জাতির জন্য একটা অশনি সংকেত।

মঙ্গলবার দুপুরে মতিঝিলে তার চেম্বারে ঐক্যফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের কাছে তিনি এসব কথা বলেন।

ড. কামাল হোসেন বলেন, সিটি নির্বাচনে নগন্য ভোটার উপস্থিতির হার ছিল। নির্বাচিত মেয়রদের সংখ্যাগরিষ্ট ভোটে মেয়র মোটেই বলা যাবে না, এটা মোটেই বলা যাবে না।

ঐক্যফ্রন্টের এই নেতা বলেন, সরকার দায়িত্বহীনভাবে সংবিধানের পরিপন্থি কাজ করে গোটা নির্বাচনের প্রক্রিয়াকে ধবংস করে ফেলেছে। যার ফলে এই ভয়াবহ অবস্থা তৈরি হয়েছে। এভাবে দেশ চলতে পারে না। জনগণকে নিয়ে আমাদেরকে পরিবর্তন আনতে হবে। এদেশের মানুষ সচেতন, তারা কখনো স্বৈরতন্ত্রকে গ্রহণ করেনি, এখনো করবে না।

তিনি বলেন, জনগণ এদেশে সবসময় ঐক্যবদ্ধ হয়েই কিন্তু তাদের লক্ষ্য অর্জন করেছে, পরিবর্তন এনেছে। সেটার কোনো ব্যতিক্রম এখনো হবে না। জনগণের মধ্যে একটা ঐক্যমত গড়ে উঠেছে। সেটাকে তারা ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রকাশ করলে অবশ্যই তারা এগিয়ে আসবে। আমি মনে করি, যেটা সরকার চাচ্ছে, সেটা পারবে না তারা।

গণফোরাম সভাপতি বলেন, আমরা জনগণের ওপর ভর করেই রাজনীতি করি, শক্তি তো জনগণের। আমরা সেটা উৎসাহিত করার ব্যাপারে আমরা অবশ্যই যা প্রয়োজন সভা-সমিতি, মিছিল-মিটিং করে যাবো। অবশ্যই পরিবর্তন আসবে। বৈঠকের পর ব্রিফিংয়ে ড. কামালের লিখিত বক্তব্য পড়ে শোনান গণফোরামের প্রেসিডিয়াম সদস্য মহসিন রশিদ।

৮ ফেব্রুয়ারি প্রতিবাদ সভা: জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি সকাল ১১টায় সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার কারাগারে দুই বছরপূর্তি এবং তার মুক্তির দাবিতে সেগুন বাগিচায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে প্রতিবাদ সভা করবে। ফ্রন্টের স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে এই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়।

ড. কামাল হোসেনের সভাপতিত্বে স্টিয়ারিং কমিটির বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন- জেএসডির আ স ম আবদুর রব, শহীদউদ্দিন মাহমুদ স্বপন, বিএনপির আবদুল মঈন খান, গণস্বাস্থ্য সংস্থার ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, গণফোরামের সুব্রুত চৌধুরী, মোশতাক হোসেন, মহসিন রশিদ, নাগরিক ঐক্যের শহীদুল্লাহ কায়সার, বিকল্পধারা নুরুল আমিন ব্যাপারী, শাহ আহমেদ বাদল, জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের জাহাঙ্গীর আলম মিন্টু প্রমূখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন