ঢাকা, শনিবার, ০৮ আগস্ট ২০২০, ২৪ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৭ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

জানুয়ারিতে খুলনায় ২ খুন, ধর্ষণ ৪

খুলনা ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৩:৪৬ পিএম

চলতি বছরের জানুয়ারি মাসে খুলনায় দুইটি খুন ও চারটি ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। খুলনা জেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির ফেব্রুয়ারি মাসের সভায় এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রোববার দুপুরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মো. ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে সার্কিট হাউস সম্মেলনকক্ষে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় জানানো হয়, হয়, খুলনা জেলায় গত জানুয়ারি মাসে ডাকাতি একটি, ৮টি চুরি, অস্ত্র আইন ১টি, নারী ও শিশু নির্যাতন ১৫টি, মাদকদ্রব্য ৭৪টি এবং অন্যান্য আইনে ৫৫টিসহ মোট ১৫৬টি মামলা দায়ের হয়েছে। জেলা অধিক্ষেত্রে ডিসেম্বর ২০১৯ মাসে এ সংখ্যা ছিলো ১৯১টি। খুলনা জেলায় গত মাসের তুলনায় জানুয়ারি মাসে ৩৫টি মামলা হ্রাস পেয়েছে।
খুলনা মহানগরীতে গত জানুয়ারি মাসে চুরি ৭টি, অস্ত্র আইন ১টি, নারী ও শিশু নির্যাতন ৫টি, মাদকদ্রব্য ১২৯টি এবং অন্যান্য আইনে ৩৩টি সহ মোট ১৭৯টি মামলা দায়ের হয়েছে। খুলনা মহানগরী অধিক্ষেত্রে গত ডিসেম্বর মাসে এ সংখ্যা ছিলো ১৪৬টি। খুলনা মহানগরীতে গত মাসের তুলনায় ৩৩টি মামলা বেড়েছে।
সভায় নভেল করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে গৃহীত ব্যবস্থা, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ, মাদক প্রতিরোধ, খাদ্যে ভেজালরোধ, নিষিদ্ধ পলিথিনের ব্যবহার বন্ধসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।
সভায় বাড়ির মালিকদের ভবনের চারপাশ পর্যবেক্ষণে সিসি ক্যামেরা স্থাপনের অনুরোধ জানিয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার মো. এহসান শাহ বলেন, সিসি ক্যামেরা স্থাপন করলে নিরাপত্তাবৃদ্ধির পাশাপাশি ছোট আপরাধ হ্রাস পাবে।
সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ সভায় জানান, খুলনায় এ পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত কোনো রোগী শনাক্ত হয়নি। তা সত্ত্বেও জেলার সব সরকারি হাসপাতালে মেডিক্যাল টিম গঠন ও আইসোলেশন ওয়ার্ড স্থাপন করা হয়েছে। দেশে প্রবেশের সব আন্তর্জাতিক বন্দরে মেডিক্যাল টিম কাজ করছে। কাঁচা ফল, সবজি, খেজুরের রস খাওয়ার ব্যাপারে এবং ব্যক্তিগত জীবনে পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত করতে তিনি সবাইকে পরামর্শ দেন।
সভাপতির বক্তৃতায় অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মো. ইকবাল হোসেন জানান, খুলনা জেলায় চলমান উন্নয়ন প্রকল্পে কর্মরত চীনা নাগরিক হতে নভেল করোনা ভাইরাস দেশে প্রবেশ ও বিস্তাররোধে সরকার সচেতন রয়েছে। মাদক সংশ্লিষ্ট মামলার তদন্ত ও বিচার ত্বরান্বিত করতে প্রশাসন সচেষ্ট আছে।
সভায় অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইউসুপ আলী, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো. আনিচুর রহমান, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও), খুলনা পেসক্লাবের সভাপতি এসএম নজরুল ইসলাম, সরকারি কর্মকর্তা, মুক্তিযোদ্ধাসহ কমিটির সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
lol ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ৪:০২ পিএম says : 0
নির্লজ্জ পুলিশ আর কত কাল আমাদের রক্ত খাবি?
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন