ঢাকা বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ আশ্বিন ১৪২৭, ০৫ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ঝুঁকির মধ্যেই রাজধানীতে যানবাহন বাড়ছে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ মে, ২০২০, ১২:০৫ এএম

চলতি মাসে করোনা সংক্রমনের ঝুঁকি বেশি। গত সাতদিনে প্রায় ৫ হাজার সংক্রমন হয়েছে। গণপরিবহন বন্ধ হলেও করোনাভাইরাসের সংক্রমন বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীতে যানবাহন ও মানুষের চলাচল বাড়ছে। ঢাকার সড়ক-মহাসড়কে শুধু গণপরিবহন ছাড়া স্বাভাবিক দিনের মতোই সব ধরনের গাড়ি চলছে।
মূলত মার্কেট খোলার ঘোষণা এবং সরকার চলাচলের বিধিনিষেধ শিথিল করার পর থেকেই রাজধানীর সড়কে যানবাহন ও মানুষের চাপ বেড়েছে। নানা প্রয়োজনে মানুষ রাস্তায় বের হচ্ছে। আগের মতো আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কড়াকড়িও নেই। ফলে ধীরে ধীরে স্বাভাবিক রূপে ফিরছে চিরাচরিত যানজটের নগরী ঢাকা। বৃহস্পতিবার সকালে
যাত্রাবাড়ি ও সায়েদাবাদে দেখা গেল রীতিমতো যানজট। আইনশৃংখলা বাহিনী রাস্তার একদিকে যানবাহন আটকে অন্যদিকের যানবাহনকে পারাপারের সুযোগ করে দিচ্ছেন।

রাজধানীর টিকাটুলি পয়েন্টে গিয়ে দেখা যায়, সময়ের সঙ্গে সঙ্গে যানবাহনের চলাচল বাড়ছে। প্রচুর গাড়ি থাকায় যানজটও তৈরি হয়েছে। সিএনজি অটোরিকশা, ইজিবাইক, রিকশা, প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস, পিকআপ, মিনিট্রাকসহ সব ধরনের যানবাহনই চলছে। শনিরআখরা, কাজলা, যাত্রাবাড়ি, গুলিস্তান পয়েন্টে যাত্রী পরিবহনের জন্য অনেক মোটরসাইকেল অপেক্ষা করছে।

এছাড়া সায়েদাবাদের জনপথ রোডে সিগন্যালেও যানজট বাড়ছে। প্রতিটি গাড়ি ৫-৭ মিনিট সিগন্যালে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। তবে এসব সড়কে চলাচলে পুলিশকে তল্লাশি করতে দেখা যায়নি। অনেকটা স্বাভাবিকভাবে চলছে যানবাহনগুলো।
রাজধানীর সাইনবোর্ড এলাকায় সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, ঢাকামুখী সড়কে পুরো যানজট লেগে আছে। ধীরগতিতে চলছে এসব যানবাহন। দূরপাল্লার বাস ও গণপরিবহন ছাড়া মহাসড়কে ইজিবাইকসহ সবই চলছে। যাত্রী পরিবহনকারী গাড়িগুলোতে শারীরিক দূরত্ব মানার বালাই নেই। ভ্যানে ৫ থেকে ৬ জন চলাচল করছে। রিকশা শেয়ারে যাচ্ছে মানুষ। গাদাগাদি করে মানুষ যাচ্ছে গন্তব্যে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেল, বিমানবন্দর সড়কেও গতকাল গাড়ির চাপ ছিল বেশি। মহাখালিতে থেমে থেমে যানবাহন চলতে দেখা যায়। বনানী সিগন্যালে সকালে যানজট ছিল দৃশ্যমান। আব্দুল্লাপুর দিয়ে ঢাকায় প্রবেশের যানবাহনের চাপ বেড়েছে। গাড়ি সামাল দিতে পুলিশকেও হিমশিম খেতে হচ্ছে।

সায়েদাবাদে গতকাল দুপুরে পরিবহণ শ্রমিকরা বিক্ষোভ করেন। তারা বেশ কিছু কাভার্ডভ্যান আটকে দেন। কিন্তু আশপাশের পুলিশকে এগিয়ে আসতে দেখা যায়নি। বরং দূর থেকে বিক্ষোভের দৃশ্য তারা দেখছেন।
যাত্রাবাড়ি মোড়ে দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, সড়কে গাড়ির চাপ বাড়ছে। দুদিন থেকে মানুষের চলাচল স্বাভাবিক হয়ে আসছে। অনেক কিছু শিথিল হওয়ায় পুলিশও তল্লাশি শিথিল করেছে।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন