ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঠিক আছে, শেষ কইরা দিতাছি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০২০, ১২:০৬ পিএম

মেজর (অব.) সিনহা স্বাভাবিকভাবে দুই হাত উঁচু করে গাড়ি থেকে বের হন। লিয়াকত ক্ষেপে আরও গালি দিতে দিতে বলেন- ‘তোর মতো বহু মেজর আমি দেখছি, এইবার খেলা দেখামু’। একটু পাশে গিয়ে লিয়াকত টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশকে কল করেন, পরামর্শ করেন। কথোপকথনের একপর্যায় লিয়াকত মোবাইলে ওসিকে বলে- ‘ঠিক আছে, শেষ কইরা দিতাছি’। ফোন রাখার পরই নিজের পিস্তল দিয়ে সিনহাকে কয়েক রাউন্ড গুলি করেন। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন তিনি।

পুলিশের গুলিতে নিহত সেনাবাহিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা হত্যা মামলার এজাহারে এমনটাই উল্লেখ করেন নিহতের বড় বোন শারমিন শাহরিয়া। তিনি দাবি করেন, সিনহার মৃত্যুর পরও শরীর-মুখে কয়েকটি লাথি মারেন ওসি প্রদীপ। চেহারা বিকৃত করতে ওসি তার পায়ের বুট দিয়ে মুখে আঘাত করেন।

জীবন বাঁচাতে ঘটনাস্থল থেকে সরে যাওয়ার চেষ্টা করলে কনস্টেবল সাফানুল করিম ও মো. মোস্তফা তাকে মাটির সঙ্গে শক্তভাবে চেপে ধরেন। এরপর মেজর (অব.) সিনহার মৃত্যু নিশ্চিত করতে লিয়াকত আরও এক রাউন্ড গুলি চালান। হত্যার পরপরই ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ঘটনান্থলে এসে মেজর (অব.) সিনহার শরীর ও মুখে কয়েকটি লাথি দিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করেন।

মামলার বাদি ও সিনহার বড় বোন শারমিন গণমাধ্যমকে বলেন, টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপের নির্দেশেই সিনহাকে গুলি করেন পরিদর্শক লিয়াকত। খুব ঠাণ্ডা মাথায় পরিকল্পিতভাবেই এ হত্যাকাণ্ডটি ঘটিয়েছেন আসামিরা। হত্যাকাণ্ড ধামাচাপা দিতে মাদকদ্রব্য ও সরকারি কাজে বাধা বিষয়ে মিথ্যা অভিযোগ তোলেন। ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রত্যক্ষদর্শী, সাক্ষী ও স্থানীয়দের কাছ থেকে হত্যাকাণ্ড সম্পর্কে বিস্তারিত জেনেছি। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ঘটনার সত্যতা বেরিয়ে আসুক এটাই আমাদের প্রত্যাশা। আমার ভাইয়ের হত্যাকারীদের ফাঁসি চাই।

গত ৩১ জুলাই রাত সাড়ে ১০টার দিকে ডকুমেন্টারি ভিডিওচিত্র শুটের পর টেকনাফ থেকে কক্সবাজারে ফেরার পথে বাহারছড়া শামলাপুর পুলিশ চেকপোস্টে তল্লাশির নামে গাড়ি থেকে নামিয়ে মেজর (অব.) সিনহাকে গুলি করে হত্যা করা হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
সালাম ৮ আগস্ট, ২০২০, ১:২০ পিএম says : 0
এতে স্পষ্ট প্রমাণিত হয় লিয়াকত ও ওসি তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে
Total Reply(0)
সিরাজুল ইসলাম ৮ আগস্ট, ২০২০, ১:২২ পিএম says : 0
তাদেরকে দোষী সাব্যস্ত করতে এর বেশি আর কোন প্রমাণের প্রয়োজন হয় বলে আমার কাছে মনে হচ্ছে না
Total Reply(1)
Mahbub khan ৮ আগস্ট, ২০২০, ২:১৯ পিএম says : 1
এরা কি মানুষ না অন্যকিছু এদেরকে সরাসরি ফাঁসির কাষ্ঠে ঝুলানো হোক
ইলমা ৮ আগস্ট, ২০২০, ১:২২ পিএম says : 1
এরা কি আদৌ মানুষ নাকি অন্য কিছু
Total Reply(0)
ইউনূস ৮ আগস্ট, ২০২০, ১:২৪ পিএম says : 0
সবই ঠিক আছে কিন্তু তাকে মারার কারণটা এখনো বুঝতে পারতেছি না
Total Reply(0)
Syfolla ৮ আগস্ট, ২০২০, ১:৫৩ পিএম says : 0
The people of Bangladesh want to see the exemplary punishment for the guilty.
Total Reply(0)
জেসমিন ৮ আগস্ট, ২০২০, ১:২৫ পিএম says : 0
এদেরকে এর চেয়েও ভয়ানক ভাবে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হোক
Total Reply(0)
রবিনা ৮ আগস্ট, ২০২০, ১:২৮ পিএম says : 0
এরা এত সাহস পায় কোথা থেকে সেটাই আমার মাথায় আসে না
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন