ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

চলুন ভারতের বিরুদ্ধে আরেকটি যুদ্ধ ঘোষণা করি: ডা. জাফরুল্লাহ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:০৬ পিএম

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ভারত নজর দিয়েছে কীভাবে বাংলাদেশের অর্থনীতি ধ্বংস করা যায়। আর সেই কারণে আন্তর্জাতিক নিয়মাবলী না মেনে পেঁয়াজ রফতানি বন্ধ করে দিয়েছে। তারা সুকৌশলে আমার দেশের দুই নেত্রীকে বন্দি করে রেখেছে। বেগম খালেদা জিয়াকে গুলশানে এবং শেখ হাসিনাকে আমলার দ্বারা আবদ্ধ করে রেখেছে।

আজ বৃহস্পতিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে রণাঙ্গনের মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযুদ্ধ প্রজন্মের উদ্যোগে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেন, ভারত বাংলাদেশের জনগণকে বিচ্ছিন্ন করতে চায়। কিন্তু আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধভাবে দাঁড়াতে হবে। এভাবে চলতে পারে না। তাদেরকে একটি ফাইনাল ওয়ার্নিং দেয়া উচিৎ। চলুন সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে ভারতের বিরুদ্ধে আরেকটি যুদ্ধ ঘোষণা করি।’

মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না, বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিপি নুরুল হক নুর প্রমুখ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Mohammed Shah Alam Khan ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:৫৫ পিএম says : 3
ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরী পাকিপন্থী একজন বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী হিসাবেই সমাজে বহুল পরিচিত। সেই হিসাবে ওনার কথা ‘চলুন সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে ভারতের বিরুদ্ধে আরেকটি যুদ্ধ ঘোষণা করি।’ তিনি আরো বলেছেন, ‘তারা সুকৌশলে আমার দেশের দুই নেত্রীকে বন্দি করে রেখেছে। বেগম খালেদা জিয়াকে গুলশানে এবং শেখ হাসিনাকে আমলার দ্বারা আবদ্ধ করে রেখেছে।‘ ওনার কথাগুলো পাকিদের সন্তুষ্টির জন্যে হলেও এসব কথা অবশ্যই সত্য কথা। তবে এসব কি বাস্তবায়িত ওনার (ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরী) সমর্থিত দল জামাত-বিএনপি করতে পারবে?? জামাত-বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিল তখন তাদের কর্মকাণ্ড আমরা দেখেছি। সেসময় জামাত-বিএনপি ক্ষমতায় এসেছিল ভারতকে গ্যাস দিয়ে এবং ভারতের বিভিন্ন কাজে সহায়তা করে আর সেইসব ভারত তোষণ কর্মকাণ্ড যাতে সাধারন জনগণের নজর আন্দাজ করে সেজন্যে আওয়ামী লীগের উপর অত্যাচার অবিচার চালিয়ে যাচ্ছিল যাতে করে আওয়ামী লীগ নিজেকে নিয়েই ব্যাস্ত থাকে। আমরা দেখেছি জিয়া মিয়াও ক্ষমতায় থাকার জন্যে ভারতের স্বার্থ রক্ষা করত আর প্রকাশ্যে ভারতের বিপক্ষে বক্তব্য রাখতো। জামাত-বিএনপি এনারাও ক্ষমতায় থাকার জন্যে ভারতেকে সুযোগ সুবিধা দিত আর আওয়ামী লীগকে বিলীন করার জন্যে অত্যাচার অবিচার করে যেত। কাজেই ডাক্তার জাফরুল্লাহ চৌধুরী ভারতের বিপক্ষে কথাই বলতে পারবেন কিন্তু বাস্তবায়িত করাতে পারবেন না।
Total Reply(0)
Imrul Kayes ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৬:৩৫ এএম says : 0
ওনার কথা এবং কাজ যদি দেশের জনগণের পক্ষে হয় তাহলে তাহলে তিনি অবস্যই এদেশের জনগণের নিকট সন্মানিত হবেন। তিনি মুক্তিযোদ্ধ, যৌবন বয়সে ইংল্যান্ডে উচ্চতর ডিগ্রী অসমাপ্ত রেখে মুক্তি যুদ্ধে অংশ নিয়েছেন। এখন পর্যন্ত তার প্রত্যেকটি কাজ এবং চেষ্টা বাংলাদেশের জনগণের পক্ষে। কাজেই তিনি এদেশের অন্যত্তম শ্রেষ্ঠ সন্তাব। সেলুট গাজী ড.জাফরুল্লাহ।
Total Reply(0)
mutahir ahmed ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৯:২৫ এএম says : 0
জাফরুল্লাহ স্যারের ভক্তব্যের সাথে আমি স্বয়ংসম্পুর্ণ ভাবে একমত পোষণ করছি।
Total Reply(0)
D hossen ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১০:১৬ পিএম says : 0
Thanks sir.upnar ai chintar bastobaon na korle sobai poradhin jati thaka jabe
Total Reply(0)
Jack Ali ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১১:৩৫ এএম says : 0
Until and Unless we rule our country by the Law of Creator The Al-Mighty Allah [SWT] we will be oppressed by our Murtard/Taghut/Munafiq/Zalem government and also kafir India and Mayanmer.. O'Muslim wake up and come unerd the banner of Islam then we will be victorious as a way in the past muslim were always victorious.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন