ঢাকা সোমবার, ১৮ জানুয়ারি ২০২১, ০৪ মাঘ ১৪২৭, ০৪ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

নিবন্ধ

চিঠিপত্র : বৃক্ষ রোপণ করুন

প্রকাশের সময় : ৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বাড়িঘর, মার্কেট গড়ার জন্য সরকারি খাল বা নদীপাড় লিজ দেয়া-নেয়া উচিত নয়। বৃক্ষরোপণের জন্য খাল বা নদীপাড় লিজ নেয়ার আইন রয়েছে। লিজ নিয়ে যারা বৃক্ষ রোপণ করবেন, তারা এর অর্ধেক পরিমাণ ফল ভোগ করতে পারবেন আর বাকিটা রাষ্ট্রীয় কোষাগারে জমা দিতে হবে। লোভে পড়ে সরকারি খাল বা নদীপাড় লিজ দিয়ে বা নিয়ে বাড়িঘর, দোকান, মার্কেট না গড়ে, বিভিন্ন ধরনের বৃক্ষ রোপণ করা উচিত। এতে খাল বা নদীপাড়ের সৌন্দর্য বৃদ্ধি পাবে।
মোহাম্মদ আশরাফুল ইসলাম
নবাবগঞ্জ, ঢাকা।

হারিয়ে যাচ্ছে খেজুরগাছ
এখন শীতকাল। এই সময় এলেই মনে পড়ে টাটকা খেজুর রসের কথা। শীতের সকালে গ্রামে দেখা যায়, গাছিদের গাছ থেকে রস সংগ্রহ করতে। খেজুর রস দিয়ে নানা স্বাদের পিঠা ও খাবার তৈরি হয়।
খেজুরপাতাও ভালো জ্বালানি এবং গাছ থেকে তৈরি করা যায় খুঁটি। ফল হিসেবে খেজুর সুস্বাদু, যা খেলে সহজেই ক্ষুধা নিবারণ হয়। আগে গ্রামাঞ্চলে প্রায় প্রতিটি বাড়িতে খেজুরগাছ ছিল। প্রতি বছর সরকারি-বেসরকারি ও ব্যক্তিগতভাবে অনেক গাছ লাগানো হচ্ছে। এর মধ্যে কাঠের গাছ, ওষুধের গাছ এবং ফলের গাছ লাগানো হলেও খেজুরগাছ লাগানো হয় খুবই কম। ঐতিহ্য রক্ষার্থে আসুন, প্রতিবছর গ্রামের প্রতিটি বাড়িতে অন্তত একটি করে খেজুরগাছ লাগাই।
দিলরুবা রিজওয়ান দিনা
আয়েশ, সিংড়া, নাটোর।

মোটরসাইকেলের রেজিস্ট্রেশন ফি
বর্তমানে মোটরসাইকেল আমাদের দেশের একটি জনপ্রিয় বাহন। প্রায় প্রতিটি মধ্যবিত্তের ঘরে এখন মোটরসাইকেল দেখা যায়। বর্তমানে মোটর সাইকেলের রেজিস্ট্রেশন ফি ২০ হাজার টাকার ওপরে। যদি এই ফি ১০,০০০ টাকা করা হয়, তবে বহু মধ্যবিত্ত পরিবার এই মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন করে ব্যবহার করতে পারবে। এতে সার্বিকভাবে সরকারের রাজস্ব আয় বৃদ্ধি পাবে। যে সব মোটরসাইকেল রেজিস্ট্রেশন করা সম্ভব হয়নি তাও সহজে, স্বল্প খরচে রেজিস্ট্রেশন করা সম্ভব হবে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
এম আই করিম
কাঁচিঝুলি, ময়মনসিংহ।

সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ব্যবস্থা নিন
সড়ক দুর্ঘটনা বর্তমানে একটি জাতীয় সমস্যা। দেশের কোথাও না কোথাও প্রায় প্রতিদিন সড়ক দুর্ঘটনায় মুহূর্তের মধ্যে ছিনিয়ে নিচ্ছে মানুষের অমূল্য জীবন। ভেঙে দিচ্ছে তাদের সাজানো সংসার। প্রতিনিয়ত সংঘটিত দুর্ঘটনা মানুষকে শংকিত করে তুলছে। দেখেশুনে মনে হয় মানুষের জীবন যেন জিম্মি হয়ে আছে, কিছুসংখ্যক বেপরোয়া গাড়িচালকের হাতে। মৃত্যু পরম সত্য ও স্বাভাবিক হলেও সড়ক দুর্ঘটনায় অকালমৃত্যু অনভিপ্রেত।
সড়ক দুর্ঘটনা থেকে বাঁচতে হলে এর একটা আশু ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন। দুর্ঘটনায় যারা মৃত্যুবরণ করেন তাদের পরিবার একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে হারিয়ে এখন চোখে অন্ধকার দেখছে। পথে বসার উপক্রম হয়েছে তাদের। আহতদের অনেকেই পঙ্গু হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে শুধু বেপরোয়া চালকদের কারণে। আমাদের দেশে বন্যা, খরা এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগে যত লোক মারা যায় তার চেয়ে বেশি লোক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যাচ্ছে।
তাই আর যাতে অকালে প্রাণ ঝরে না যায় সেজন্য সড়ক দুর্ঘটনা নিয়ন্ত্রণে জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নেয়ার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সদয় দৃষ্টি আকর্ষণ করছি।
জাহেদুর রহমান ইকবাল
তাহেরপুর, বাগমারা, রাজশাহী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন