ঢাকা বুধবার, ০৩ মার্চ ২০২১, ১৮ ফাল্গুন ১৪২৭, ১৮ রজব ১৪৪২ হিজরী

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ব্রিটেনকে নিয়ে কঠোর ইইউ

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২১, ১২:০০ এএম

ইউরোপীয় ইউনিয়নের ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস কমিশনার মাইরেড ম্যাকগুইনেস মঙ্গলবার বলেছেন যে, আর্থিক স্থিতিশীলতা ঝুঁকির মূল্যায়ন না করা অবধি ব্রাসেলস ব্রিটেনের ব্যবসায়ী ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ইইউ ব্লকে অ্যাক্সেস করতে দেবে না। দিলেও তা হবে হবে ‘পরীক্ষামূলক’ ভাবে।

ব্রিটেন প্রায় এক বছর আগে ইউরোপীয় ইউনিয়ন ত্যাগ করলেও একটি উত্তরণ-পরবর্তী বাণিজ্য চুক্তি সম্পন্ন হয় চলতি বছরের ১ জানুয়ারি। তবে সেই চুক্তিতে আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোর বিষয়ে কোন সিদ্ধান্ত না হওয়ায় লন্ডন সিটি তার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ গ্রাহকদের থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। গত বছরের মার্চ মাসের শেষদিকে আর্থিক নিয়ন্ত্রণে সহযোগিতার উদ্দেশ্যে একটি স্মারকলিপির জন্য আলোচনা শুরু হয়ে, তবে ব্রাসেলস সে সময়ে বাজারে প্রকৃত প্রবেশাধিকার বিবেচনা করতে রাজি হয়নি। ম্যাকগুইনেস বলেন যে, ব্লক থেকে প্রাপ্ত বিধি থেকে দূরে যাওয়ার বিষয়ে ব্রিটেনের উদ্দেশ্যসহ আর্থিক স্থিতিশীলতার উপর প্রভাব বিবেচনা করা হবে। ব্রিটেন বলেছে যে, তারা মানকে দুর্বল না করে কিছু বিধি সংশোধন করতে চায়। ব্রাসেলসকে অবশ্যই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। ম্যাকগুইনেস এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেছিলেন, আমরা কোন কিছু অসম্পূর্ণ রাখতে পছন্দ করি না, এবং বিধি-নিষেধ তোলার বিষয়টি আমাদের আলোচ্যসূচিতে নেই। জানুয়ারির ৪ তারিখ আগে ব্রিটেন ও ইইউ’র মধ্যে ৬৫০ কোটি ইউরো লেনদেন হতো। ব্যাংকাররা বলেছেন যে, এমনকি ব্রিটেন অবশেষে শেয়ার বাণিজ্যে ‘সমতা’ মঞ্জুর করলেও বন্ধ হয়ে যাওয়া এই ব্যবসা ও অর্থ ফিরে আসার সম্ভাবনা নেই। তারা জানিয়েছেন, বিধি-নিষেধের কারনে অনেক ব্যবসা লন্ডন থেকে ইইউ, এমনকি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রেও চলে গেছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের নির্বাহী ইউরোপীয় কমিশন মঙ্গলবার একটি কৌশলপত্র প্রকাশ করেছে যাতে ডলারের আধিপত্যাধীন বিশ্বব্যাপী আর্থিক ব্যবস্থায় ইউরোর ভূমিকা কীভাবে আরও বাড়ানো যায় তার রূপরেখা তুলে ধরা হয়েছে। ম্যাকগুইনেস বলেন, ইইউ-র জন্য সম্ভবত আরও আর্থিক প্রতিষ্ঠান লন্ডন ছেড়ে চলে যাবে। তিনি বলেন, ‘এটা ইউরোপের জন্য সব কিছু বাড়িতে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা মোটেও নয়। এটি ইউরোপের একটি প্রশ্ন যাতে ঘরে বসে ইউরোপ মজবুত এবং বিশ্বব্যাপী শক্তিশালী হতে পারে তা নিশ্চিত করে তোলা।’ সূত্র : রয়টার্স।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন