শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

মন্দির অপবিত্র করেছে ইসকন : প্রবর্তক সংঘ

মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার চাই : ইসকন

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৩১ মার্চ, ২০২১, ১২:০০ এএম

প্রবর্তক সংঘের জমি দখলের অপচেষ্টা ও সংঘের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ওপর ‘ইসকন’ নামধারী সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবি জানিয়েছে প্রবর্তক সংঘ। অন্যদিকে প্রবর্তকের ‘মিথ্যা মামলা’ প্রত্যাহারের দাবি করেছে ইসকন। গতকাল এবং গত সোমবার পৃথক দুটি মতবিনিময় সভায় পাল্টাপাল্টি এ দাবি জানান প্রবর্তক সংঘ ও ইসকনের নেতারা।
প্রবর্তক সংঘের মাস্টার দা সূর্যসেন অডিটোরিয়ামে অ্যাডভোকেট সুভাষ চন্দ্র লালার সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক তিনকড়ি চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় গতকাল অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় যোগ দেন চট্টগ্রামের বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। সভায় পাঁচ দফা সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে রাতে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়। এগুলো হল- কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপর সশস্ত্র হামলাকারীদের চিহ্নিত করে শাস্তির ব্যবস্থা করা। প্রবর্তক মন্দিরে ইসকন নামধারী সন্ত্রাসীরা সনাতন ধর্মকে কলঙ্কিত করেছে, প্রবর্তক মন্দিরকে অপবিত্র করে নৈতিকতার দিক থেকে মন্দিরে পৌরহিত্য করার অধিকার হারিয়েছে মর্মে সিদ্ধান্ত গ্রহণে এসব ইসকন নামধারী সন্ত্রাসী পুরোহিতদের মন্দির থেকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্তও গৃহীত হয়। যারা হামলা করেছেন এবং ইসকনকে সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রবর্তক এলাকা থেকে চিরতরে বহিষ্কারেরও সিদ্ধান্ত হয়েছে। এতে প্রফেসর ড. তাপসী ঘোষ রায়, প্রফেসর বেণু কুমার দে, প্রফেসর ড. সজীব কুমার ঘোষ, অধ্যাপক স্বদেশ চক্রবর্তী, ডা. সুভাষ সূত্রধর, এপিপি অ্যাডভোকেট প্রবীর ভট্টাচার্য্য বক্তব্য রাখেন।
অন্যদিকে ইসকনের উদ্যোগে ইসকন প্রবর্তক মন্দির ও সাধুদের ওপর আক্রমণকারী সন্ত্রাসীদের দ্রæত গ্রেফতার এবং সাধু-সন্ন্যাসীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হয়েছে। গত সোমবার নগরীর জেএম সেন হলে ধর্মীয় সংগঠনের নেতাদের সাথে এক মতবিনিময় সভায় এ দাবি জানানো হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন আন্তর্জাতিক কৃষ্ণভাবনামৃত সংঘ (ইসকন) চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিটির সম্পাদক চিন্ময়কৃষ্ণ দাস ব্রহ্মচারী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইসকন প্রবর্তক শ্রীকৃষ্ণ মন্দিরের প্রিন্সিপাল লীলারাজ গৌর দাস ব্রহ্মচারী। এতে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক দেবাশীষ পালিত, বাংলাদেশ গীতা শিক্ষা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট তপন কান্তি দাশ, নগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি অ্যাডভোকেট চন্দন তালুকদার, জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দে প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (11)
Aziz ৩১ মার্চ, ২০২১, ১:০৩ এএম says : 0
.....ra khub ullashito modir jonno. Ei ..........ra Bangladesh thakbe ar varot preeti korbe. Deshe ekhon matra otirokto hindu dekha jai.
Total Reply(0)
Towhid ৩১ মার্চ, ২০২১, ১২:৩৮ এএম says : 1
Iskon, hoilo indiar gupto chor. Ei iskiner protom sarir neta hoilo advocate rana dash gupto je Bangladeshe varoter agenda bastobaion korte chai. Rana dash guptoke deshdrohi mamlai fashi deoa
Total Reply(0)
Ahsan habib ৩১ মার্চ, ২০২১, ১২:৪০ এএম says : 0
ইসকনে একটি জঙ্গী সংগঠন। ইসকন অচিরেই নিষিদ্ধ করা হোক। অন্যথায় বাংলাদেশের স্বাধীনতা হুমকির মুখে পড়বে।
Total Reply(0)
Habibullah ৩১ মার্চ, ২০২১, ১:০০ এএম says : 0
Iskon, hoilo indiar gupto chor. Ei iskiner protom sarir neta hoilo advocate rana dash gupto je Bangladeshe varoter agenda bastobaion korte chai. Rana dash guptoke deshdrohi mamlai fashi deoa
Total Reply(0)
Khokon ৩১ মার্চ, ২০২১, ১২:৪৩ এএম says : 0
ইসকন সংগঠনটি উগ্র ধরনের সংগঠন। বাংলাদেশে যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিরাজ করে, সেটা ভাঙ্গার জন্য বার বার চেষ্টা করে এই সংগঠনটি। যেহেতু পার্শ্ববর্তী ভারতে উগ্র হিন্দুরা সংখ্যালঘু মুসলমানদের উপর নির্যাতন করছে, সেহেতু বাংলাদেশে সেই সাম্প্রদায়িকতার উল্টা রেশ আনার জন্য প্রয়োজন এ অঞ্চলে মুসলিমবিরোধী বিভিন্ন কাজে ইন্ধন দেয়া, যেন মুসলমানরা সংখ্যালঘু হিন্দুদের উপর ক্ষেপে যায়। এ কাজটি বিভিন্ন সময় রুটিনওয়ার্ক হিসেবে দিয়ে থাকে ইসকন।
Total Reply(0)
Jahangir alom ৩১ মার্চ, ২০২১, ১২:৪৪ এএম says : 0
Kukurer lej kokhono shoja hoina ar bandor joto burai hok gache uta vulena. Hindura konodin Hujurder shojjo korte parena. Jotoi hinduder doya korbe ei ......ra mone kore eta Hujurder durbolota.
Total Reply(0)
Abdullah ৩১ মার্চ, ২০২১, ১:১৫ এএম says : 0
Iskon উগ্রবাদী সংঘঠন.আজ যদি কোন ইসলামিক সংগঠন অথবা হুজুরেরা যদি কোন শরিয়াসম্মত বিধান বাস্তবায়ন করতো সরকার সাথে সাথে গ্রেফতার করত এখন বলবে Iskoner সেটা তাদের ব্যক্তিগত ব্যাপার.
Total Reply(0)
Arif ৩১ মার্চ, ২০২১, ১:১৮ এএম says : 0
ইসকনে একটি জঙ্গী সংগঠন। ইসকন অচিরেই নিষিদ্ধ করা হোক। অন্যথায় বাংলাদেশের স্বাধীনতা হুমকির মুখে পড়বে।
Total Reply(0)
Meherab Ali ৩১ মার্চ, ২০২১, ৯:৩১ এএম says : 0
উগ্রবাদী সংগঠন ইসকন নিষিদ্ধ করা হোক।
Total Reply(0)
রফিকুল ইসলাম ৩১ মার্চ, ২০২১, ৯:৩১ এএম says : 0
বাংলাদেশ ইসকন নিষিদ্ধ করা হোক সকল মুসলমানের দাবি
Total Reply(0)
Iqbal Khan ৩১ মার্চ, ২০২১, ৯:৩০ এএম says : 0
ইস্কন নিষিদ্ধ করার দাবিতো সাধারণ হিন্দুরাও বলে
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন