ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৯ জুলাই ২০২১, ১৪ শ্রাবণ ১৪২৮, ১৮ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

পুলিশ পরীমনির অভিযোগের সঙ্গে ঘটনার মিল পাচ্ছে না

ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টা মামলা 0 পরীমনির বিরুদ্ধে অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে : ডিবি

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ জুন, ২০২১, ১২:০৭ এএম

চলচ্চিত্র নায়িকা পরীমণিকে ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার ঘটনায় সাভার থানায় যে মামলা হয়েছে, সেই মামলার এজাহারের বর্ণনার সঙ্গে পরীমণির বক্তব্যের মিল পাচ্ছেন না তদন্ত-সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। এ কারণে পরীমণির অভিযোগ নিয়ে নানা প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। তদন্ত সংশ্লিষ্টরা ইতোমধ্যে ঘটনার আদ্যোপান্ত জানতে ঢাকা বোট ক্লাবের সিসিটিভি ফুটেজও সংগ্রহ করেছেন। সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণের পাশাপাশি তদন্ত-সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনার দিন রাতে ঢাকা বোট ক্লাবের দায়িত্বরত নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গেও কথা বলেছেন। ঘটনার বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জানতে চাইবেন পরীমণির কাছেও। তবে প্রাথমিক তদন্তে বোট ক্লাবের ঘটনার সঙ্গে পরীমণির অভিযোগের অনেক কিছু মিলছে না বলে মনে করছেন তদন্ত সংশ্লিষ্টরা। অন্যদিকে পরীমনির বিরুদ্ধে কর্মীদের সঙ্গে অসদাচরণ ও ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগ তুলেছে গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাব কর্তৃপক্ষ। রাতে ওই ক্লাবে গিয়ে মদ চেয়ে পরীমনির ভাংচুরের ঘটনায় সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)।

ডিএমপির ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, গুলশানের অল-কমিউনিটি ক্লাবের ঘটনায় কোনো অভিযোগ পাওয়া গেলে ডিবি তদন্ত করবে। তবে এখনো পর্যন্ত ক্লাবটির পক্ষ থেকে থানায় জিডি কিংবা লিখিত অভিযোগ করা হয়নি। আমিও শুনেছি ঘটনা। পরীমনি যদি এমন ঘটনা ঘটান তাহলে সংশ্লিষ্টদের অবশ্যই অভিযোগ করতে হবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নে তিনি বলেন, পরীমনির দায়ের করা মামলায় রিমান্ডে নিয়ে আসামিদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তারা গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিচ্ছেন। এগুলো নিয়ে যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। রিমান্ডে অমিও ও নাসির সেদিনের ঘটনার বিস্তারিত বলেছেন। পাশাপাশি আমরা ক্লাবের সিসি ফুটেজ সংগ্রহ করেছি। সেখানে আসলেই কী ঘটনা ঘটেছিল তাই আমরা বের করার চেষ্টা করছি। ইতোমধ্যে ভুক্তভোগী ওই নায়িকার সঙ্গে আমরা কথাও বলেছি। পারিপার্শ্বিক সব বিষয় মাথায় নিয়ে তদন্ত চলছে। আশা করছি এ ঘটনায় একটি তদন্ত প্রতিবেদন দ্রæত দেয়া সম্ভব হবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, পরীমণি সাভার থানায় দায়ের করা মামলায় বলেছেন, সেই রাতে পূর্ব পরিচিত অমিসহ কয়েকজন পরিকল্পিতভাবে দুই মিনিটের কাজ আছে বলে পরীমণিকে ঢাকা বোট ক্লাবের সামনে নিয়ে যান। সেখানে তারা গাড়িতে অপেক্ষা করেন। ছোট বোন বনির প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেয়ায় তারা বারের পাশের একটি টয়লেট ব্যবহার করতে ভেতরে প্রবেশ করেন। কিন্তু ঢাকা বোট ক্লাবের প্রবেশ পথ ও অভ্যর্থনা কক্ষে থাকা সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, বোট ক্লাবের সামনে গাড়ি এসে থামার সঙ্গে সঙ্গেই স্বাভাবিকভাবেই পরীমণি ও তার সঙ্গীরা ক্লাবের ভেতরে প্রবেশ করেন। পরীমণি ক্লাবে প্রবেশ করেন ১২টা ২২ মিনিটে, আর ক্লাব থেকে তাকে ধরাধরি করে বের করা হয় ১টা ৫৯ মিনিটে।

ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলছেন, আলোচিত এই ঘটনার পর তারা দ্রæত অভিযান চালিয়ে সন্দেহভাজন দুই অভিযুক্ত ও মামলার এজাহারভুক্ত দুই আসামি নাসির ইউ মাহমুদ ও তুহিন সিদ্দিকী অমিকে গ্রেফতার করেছেন। রিমান্ডের জিজ্ঞাসাবাদে অমি বলেছেন, তারা ক্লাবের ভেতরে গিয়ে নাসির ইউ মাহমুদসহ একসঙ্গে মদ পান করেন। শেষে একটি বোতল নেয়া নিয়ে প্রথমে একজন কর্মচারীর সঙ্গে পরীমণি বিতন্ডা করেন। সেই বিতন্ডায় যোগ দেন নাসির ইউ মাহমুদসহ আরও কয়েকজন। ঢাকা বোট ক্লাবে যাওয়ার আগে পরীমণির বনানীর বাসায় বসেই এক বোতল মদ পান করেন তারা সবাই। এসময় বাসাতে নাট্যপরিচালক চয়নিকা চৌধুরীও ছিল বলে পুলিশকে জানিয়েছেন অমি। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, বছর দুয়েক আগের পরিচয় সূত্র ধরে অমির সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক হয়েছে পরীমণির। দক্ষিণখানে তার বিশাল একটি বাগান বাড়িও রয়েছে।

গোয়েন্দা পুলিশের কাছে অমি স্বীকার করেছেন, মদ্যপ অবস্থায় নাসির ইউ মাহমুদ পরীমণিকে কয়েকটি চড় দিয়েছিলেন। এসময় মেঝেতে পড়ে যান পরীমণি। মদ্যপ থাকায় পরীমণিকে তারা ধরাধরি করে গাড়িতে এনে তোলেন। তিনি দুই পক্ষকেই ঠান্ডা করার চেষ্টা করেছেন। ঘটনার পর পরীমণিকে একাধিক ক্ষুদেবার্তাও পাঠানো হয়। তবে জিজ্ঞাসাবাদে চড় দেয়ার কথা অস্বীকার করেছেন নাসির ইউ মাহমুদ। নাসির ও অমিকে একটি মাদক মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। তাদের সঙ্গে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তিনজন নারী সঙ্গীকেও। পুলিশ তাদের অমি ও নাসিরের ‘রক্ষিতা’ বলে দাবি করেছে।

মামলার এজাহারে পরীমণি অভিযোগ করেন, বোট ক্লাবে বারের টয়লেট ব্যবহার শেষে নাসির তাকে কফি খাওয়ার অফার করেন। বিষয়টি এড়িয়ে গেলে নাসির মদের বোতল তার মুখে ঠেসে ধরেন। এতে তিনি দাঁত ও ঠোটে ব্যথা পান। তদন্ত সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা জানান, তদন্ত কর্মকর্তা ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত জানতে পরীমণির সঙ্গে কথা বলবেন। এমনকি আলাদা আলাদা করে তার সঙ্গীদের সঙ্গেও কথা বলা হবে। এদিকে এজাহার দায়েরের আগে বাসায় সংবাদ সম্মেলন ও গোয়েন্দা কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে পরীমণি বলেছেন, তাকে পানীয়র সঙ্গে জোর করে কিছু খাওয়ানো হয়েছিল। যাতে তার গলা ও বুক জ্বলছিল। সেটির কারণেই ঘটনার দিন রাতে বনানী থানায় গিয়ে তিনি অসংলগ্ন আচরণ করেছিলেন।

পুলিশের গুলশান বিভাগের ডিসি সুদীপ কুমার চক্রবর্তী দুই দিন আগে বলেন, ৮ জুন রাত সাড়ে তিনটার পর পরীমণি বনানী থানায় গিয়ে অভিযোগ করতে চান। কিন্তু তিনি অপ্রকৃতিস্থ থাকায় ও অসংলগ্ন কথাবার্তা বলায় পুলিশের একটি দল তাকে এভারকেয়ার হাসপাতালে পৌঁছে দেয়। পরদিন তাকে সুস্থ হয়ে থানায় আসতে বলা হয়। কিন্তু তিনি পরদিন আর থানায় আসেননি।

এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে পরীমণি বলেন, আমি কি মদ খেতে বোট ক্লাবে গিয়েছিলাম? এটা কি বিশ্বাসযোগ্য? আমাকে মদের সঙ্গে কিছু একটা খাওয়ানো হয়েছিল। আমি তখন মরে যাচ্ছিলাম। সেটি জানানোর জন্যই আমি থানায় গিয়েছিলাম। আমিই বলেছি আমাকে হসপিটালে নিয়ে যান। মিন্টো রোডের গোয়েন্দা কার্যালয়ে এসব কথা বলেন পরীমণি।

এ দিকে একই রাতে পরীমনি ও তার সঙ্গীরা কী কী করেছেন তা বুধবার রাতে গণমাধ্যমের সামনে তুলে ধরেন অল কমিউনিটি ক্লাবের সভাপতি কে এম আলমগীর ইকবাল। তিনি বলেন, আমাদের ক্লাবে কিছুদিন আগে ৮ জুন ছোট্ট একটি অঘটন ঘটেছিল। আমাদের ক্লাব বন্ধের সময় হয়ে এসেছিল। তখন কয়েকজন লোক ক্লাবে আসেন। গেটে দায়িত্বে থাকা সিকিউরিটি গার্ডরা ফোন করে জানান, তারা কিছুক্ষণ আগে একবার এসেছিলেন। তখন তারা ফোন ও কিছু কাগজ রেখে গেছেন। সেগুলো নেয়ার জন্য আবার এসেছেন। আলমগীর ইকবাল বলেন, আমাদের ক্লাবের নিজস্ব কিছু নিয়মকানুন আছে। কেউ যদি ক্লাবে আসে তাহলে তাকে কিছু ড্রেস কোড মেনে আসতে হয়। সেদিন এখানে যারা এসেছিলেন তাদের মধ্যে একজন ছিলেন হাফপ্যান্ট ও স্যান্ডেল পরা। তখন আমাদের কর্মকর্তারা বলেন, আপনারা তো ক্লাবের নিয়ম ভঙ্গ করেছেন। তাদের ক্লাব থেকে এটা বলায় তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন।

তিনি আরও বলেন, এই সময়ে তারা যে সদস্যদের মাধ্যমে ক্লাবে আসেন তিনিও তাদের চলে যেতে বলেন। কিন্তু তারা যেতে চাননি। পরে বাধ্য হয়ে আমাদের সেই সদস্য চলে যান। এর মধ্যে আমাদের ক্লাবের সব কর্মকর্তা চলে যান। শুধু দুজন ওয়েটার ছিল। একপর্যায়ে উনারা ৯৯৯ -এ ফোন করে পুলিশ কল করেন। তখন পুলিশ আসে, পুলিশ এসে দেখতে পান যে, উনি এগুলা ছুড়ে মারছেন। তখন পুলিশ উনাদের জিজ্ঞেস করেন আপনারা এখানে কেন আসছেন, কেন আমাদের কল করছেন? তখন তারা বলে যে, আমাদের সাথে এই হয়েছে, ওই হয়েছে। উনারা (পুলিশ সদস্যরা) বলেন যে, এরকম তো কিছু দেখছি না। তখন কেউ ছিলও না। দুইজন ওয়েটার ছিল আর এই তিন চারজন মানুষ।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১২ এএম says : 0
আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র পুরুস্কার পাবেন বাংলা সিনেমার নায়িকা জ্বীনপরী। নিখুঁত অভিনয় নিখুঁত কান্নাকাটি নিখুঁত মৃত্যুর কথা শারীরিক ভাষা কোথাও ভুল ধরতে পারেননি সাংবাদিকতার পেশায় নিয়োজিতরা। বাংলাদেশের মানুষের সহানুভূতিদেখালেন সহমর্মিতা দেখালেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবরে আবেগঘন লিখা সোশ্যাল মিডিয়াই প্রচন্ড প্ররোচনা দ্রত মামলা অভিযুক্ত অভিযুক্তদের গ্রেফতার দ্রততম সময়ের মধ্যে হলো ইত্যাদি। আমার প্রশ্ন প্রথমদিন পরিমণি কেন আইজিপি স‍্যারের কথা কেন বলেছিলেন। এটি বিরাট প্রশ্ন স‍্যারের নাম কেন কি কারণে অভিযুক্ত ব‍্যবহার করলেন জানা জরুরী। এখানেই অনেক সত‍্য রহস্য। একজন মানুষ হয় বিপদে পড়লে না হয় কাওকে ভয় দেখাতে প্রশাসনের নাম ব‍্যবহার করেন।আইজিপি স‍্যারের নাম নেওয়াতেকারণে পুলিশের ভাবমূর্তির বিষয় আছে এটি পরিস্কার হওয়া দরকার ঘটনার রাত্রে স‍্যার ঢাকায়ছিলেন না। গুরুত্বপূর্ণ ১৫ সেকেন্ডের ভিডিওতে নাছিরবলেছেনঅমিতুমি এগুলো কে আর ক্লাবে আনবেনা। এটি পরীর পক্ষের ভিডিও রেকর্ড। এখানেই পরিস্কার হলো ঘটনা পকৃত চিত্র বিশ্লেষন করুন? এই কথা অভিযুক্ত নাছির বলার উপযুক্ত কারন কি? মামলা মদের আর্ডায় উভয় পক্ষ মাতাল গভীর রাতের ঘটনা মদ নেশা মাতালের মাতলালী পক্ষ বিপক্ষ হাতাহাতির ঘটনায় পরিস্কার চিত্রনাট্য মানুষ বুঝতে পারছেন। সবকিছু উদ্ধে ছিল পরিমণির জাতীয় পুরুস্কার পাওয়ার মত নিখুঁত অভিনয়।আমি আত্মহত্যা করতে পারিনা।আমি যদি মরে যায় ইত্যাদি ইত্যাদি দেশের আইন শৃংখলা বাহিনী আরো ভাল বুঝবেন। মামলা পরীমণির জ্বীনের আছর আইন শৃংখলা বাহিনী বাহিরকরবেন। এখানে নৈতিকতা আদশ‍্য মদ জুয়া নর্তকীর আস্তানার ঘটনা নিয়ে লিখার মন মানুষিকতা ছিলনা আমার শ্রদ্ধেয় স‍্যার যিনি বাংলাদেশের ইতিহাস সত‍্যকার পুলিশপ্রধান।পুলিশের সমাবেশে বক্তব্যের মাঝেই বলেনআল্লাহ সম্মানীতকরতে চাইলে সম্মানীত হবেন ইত্যাদি। মাতালের আসর মদের আসর জুয়া আর্ডায় মাঝে মধ্যে ভাল মানুষ পড়ে হিতাহিত জ্ঞান হারিয়ে যায় সত্য মিথ্যা বুঝবার সময় থাকেনা। নিখুঁত চিত্রনাট্য সাজানোর জন‍্য ধন্যবাদ নয়। পরী এবার তোমাকে জ্বীনের আছরে পাবে।
Total Reply(0)
Sheikh Shariful ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১২ এএম says : 0
তাহলে কি আমাদের বোকাচন্দ্রর বানাইলো ফরী আফা। এখন তার সুন্দর নাটকীয়তার সমাপ্তির আশায় আছি। আর ভালো লাগতেছে না।
Total Reply(0)
Baadshah Humaun ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৩ এএম says : 0
পরীমনিকে রিমান্ডে নিলে সব বের হয়ে যাবে।
Total Reply(0)
এম.ডি ফাহিম আশরাফ ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৩ এএম says : 0
পরীমণির মিথ্যা প্রেমে সবাই হাবুডুবু খাচ্ছে। তলের বিড়াল বেরিয়ে আসবে।
Total Reply(0)
Habibullah Rahmany ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৪ এএম says : 0
পরিমনি হয়তো টাকার লোভে নাটক সাজিয়েছে,তার অভিযোগ সঠিক কিনা সেটার জন্য তাকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হোক
Total Reply(0)
Kamrul Hassan Miazi ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৪ এএম says : 0
কিয়ামত এর আগে পতিতাদের গুরুত্ব ও সম্মান বেড়ে যাবে এবং আলেমদের উপর জুলুম নির্যাতন বেড়ে যাবে। > আবু ত্বাহা আদনান ফ্যাক্ট
Total Reply(0)
Tanvir Ahmed Hridoy ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৪ এএম says : 0
আমার মনে হয় নাসিরকে এই মহিলা অন্য কোন বিষয় নিয়ে কথাকাটির জন্য ফাঁসিয়ে দিয়েছে নিজের জনপ্রিয়তাকে আর মায়া কান্নাকে কাজে লাগিয়ে বাড়তি আইনের সুবিধা নিতে চাচ্ছে পুলিশ চাইলে সবার কাছে সত্যটা তুলে ধরতে পারে তদন্ত করে
Total Reply(0)
সিকদার মাহমুদুল হাসান ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৫ এএম says : 0
এদেশে একজন মানুষ মাসে পঁচিশ হাজার টাকা উপার্জন করলেই তাকে আয়কর দিয়ে হয়। গাড়ি, বাড়ি, জমি কিনতে গেলে আয়ের উৎস দেখাতে হয়। পাঁচ হাজার টাকার বেশি কোন ব্যাংক অ্যাকাউন্টে পাঠাতে জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি দিতে হয়। কিন্তু দশটা সিনেমা করে নয়টা ফ্লপ হওয়া নায়ক তিন কোটি টাকা দিয়ে গাড়ি কিনে ফেলে নিমিষেই। বছরে চারবার গাড়ির মডেল বদলায়। বছরে একবার ইউরোপ টুর দেয় আর কেনাকাটা করে আমেরিকায়। তাদের আয়ের উৎস কি খোঁজা হয়?
Total Reply(0)
Nihal Ahmed ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৫ এএম says : 0
যদি পুলিশ এই প্রথম ঘটনার সঠিক তদন্ত করে তাহলে পুরো ঘটনা উল্টে যাবে...এটা একটা কমনসেন্স ঘটনাটা যা বলা ও বুঝানো হয়ছে তা নাহ
Total Reply(0)
Raquibur Rahat ১৮ জুন, ২০২১, ৩:১৬ এএম says : 0
পরিমনিকে রিমান্ডে নেওয়া হোক সবই বের হবে আশা করি। আমার মনে মিডিয়ার সামনে নাটক করছে 100%
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন