শনিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

করোনা থেকে রক্ষায় আল্লাহর সাহায্য কামনা স্বাস্থ্যবিধি মানার আহ্বান হেফাজত আমীরের

চট্টগ্রাম ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৯ জুলাই, ২০২১, ৫:৩২ পিএম

হেফাজতে ইসলামের আমীর ও দারুল উলূম হাটহাজারী মাদ্রাসার শিক্ষা পরিচালক শায়খুল হাদীস আল্লামা জুনাইদ বাবুনগরী দেশে ক্রমবর্ধমান করোনা আক্রান্ত ও মৃত্যুর ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছেন, মহামারির এই কঠিন সঙ্কটময় পরিস্থিতি থেকে রক্ষা পেতে যার যার অবস্থান থেকে সকলপ্রকার গুনাহ ও অন্যায় কর্মকান্ড পরিহারপূর্বক তাওবা করে মহান আল্লাহর সাহায্য কামনা করতে হবে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলতে হবে।
বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে আল্লামা বাবুনগরী বলেন, মানুষ যখন ব্যাপকহারে আল্লাহ তাআলার অবাধ্যতা, নাফরমানি, জুলুম-অত্যাচার ও কর্তব্যজ্ঞান ভুলে আত্মকেন্দ্রিক ভোগ-বিলাসিতায় লিপ্ত হয়ে পড়ে, তখন আল্লাহ তাআলা সতর্ক করার জন্য পৃথিবীতে বিভিন্ন বিপদ আপদ ও শাস্তি নাযিল করেন।
হেফাজত আমীর বলেন, বর্তমানে বিশ্বময় জুলুম-অত্যাচার ও পাপকর্ম মহামারির মতো ছড়িয়ে পড়েছে। এমন কোন অন্যায়-অপরাধকর্ম নেই, যেটা সমাজকে আক্রান্ত করেনি। মানুষ অন্ধের মতো ভোগ-বিলাসিতা, যেনা, ব্যাভিচার, নেশায় লিপ্ত হচ্ছে। সর্বস্তরে নগ্নভাবে জুলুম-অত্যাচার, অধিকারহরণ, সুদ-ঘুষ, বিচারহীনতা ও শোষণ বিশ্বময় বিস্তার করেছে। করোনাভাইরাসের যে অপ্রতিরোধ্য প্রাদুর্ভাব দেখা যাচ্ছে, তাতে প্রতিয়মান হয় যে, এই মহামারি আল্লাহ তায়ালা প্রদত্ত এক কঠোর হুঁশিয়ারী ও সতর্কতা।
আল্লামা বাবুনগরী বলেন, করোনা মহামারির দুর্যোগ থেকে রক্ষা পেতে তাই সকলের প্রধান কর্তব্য হচ্ছে, সকল প্রকার অন্যায়, জুলুম, পাপাচার ও বেইনসাফী থেকে বিরত হয়ে ভবিষ্যতে আর কখনো না করার সংকল্প করে খালেস মনে তাওবা করে আল্লাহমুখী হয়ে যাওয়া। ভবিষ্যত জীবনে আল্লাহ ও রাসূলের পরিপূর্ণ আনুগত্য, ইবাদত-বন্দেগী, বিশেষ করে পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ যথা সময়ে আদায়, রাসূল (সা.)এর সুন্নাহর পূর্ণ অনুসরণ-অনুকরণ, সৎকর্ম ও সাধ্যমতো মাখলুকের সেবা করা ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার দৃঢ় সংকল্প করা।
তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে অস্থির ও আতংকগ্রস্ত না হয়ে নিজেকে আল্লাহর নির্ধারিত তাক্বদীরের উপর সোপর্দ করতে হবে। সুস্থিরতার সাথে চিকিৎসকদের পরিপূর্ণ নির্দেশনা অনুসরণ করে চলতে হবে। বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। বাজার-ঘাট ও দোকানপাটে বিনা কারণে ঘুরাঘুরি থেকে বিরত থাকতে হবে।
সবসময় পাক-পবিত্র ও অজুর হালতে থাকার চেষ্টা করতে হবে। হাঁচি-কাশি ও হাই তোলার সময় মুখ ঢেকে রাখতে হবে। খাবার গ্রহণের আগে-পরে ভালভাবে হাত ধৌত করতে হবে। বেশি বেশি তাওবা, ইস্তিগফার, নফল নামায, কুরআন তিলাওয়াত ও যিকিরে থাকতে হবে। আল্লাহর দরবারে রোনাজারি করে তার সাহায্য ও রহমত কামনা করতে হবে। একমাত্র আল্লাহর দয়া, রহমত ও ইচ্ছা ছাড়া মহামারির এই দুর্যোগ কেউ রোধ করতে পারবে না।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Dadhack ২৯ জুলাই, ২০২১, ৫:৩৮ পিএম says : 0
যে দেশের আলেমরা শত শত ভাগে বিভক্ত তারা গণতন্ত্র চায় আল্লাহর আইন চাই না আল্লাহ আমাদের কোন দোয়া কবুল করবে না যতক্ষণ পর্যন্ত আমরা আমাদের দেশটাকে আল্লাহর আইন দিয়ে না চালাব.....
Total Reply(0)
আবুল কালাম আজাদ ২৯ জুলাই, ২০২১, ৭:০৪ পিএম says : 0
দেশের মানুষ হাবুডুবু খাচ্ছে বিদায়েত নাফরমানীতে, সমাজ থেকে উঠে যাচ্ছে উসলামের আদ্রশ, বর্তমানে যাঁহারা সমাজ পরিচালনা করছে তাঁহারা অধিকাংশ ইসলাম বিরোধী যদিও তাহারা মুসলমান নামধারী মুলতঃ কার্যক্লাবে এরা হিন্দুদের দালাল, দেশে ইসলামিক কিছু দল আছে তাহারা কথা বলার সাহস হারিয়ে ফেলেছে, হক কথা বল্লেই নির্জাতনের শিকার হতে হয় তাদের,
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন