মঙ্গলবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২২, ১১ মাঘ ১৪২৮, ২১ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

মৌসুমীকে নিয়েও কটূক্তি করেছিলেন ডা. মুরাদ

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:৩০ পিএম

প্রধানমন্ত্রীর তোপের মুখে পড়ে পদত্যাগপত্র জমা দেওয়া তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান শুধু মাহিয়া মাহিকেই নয় জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত নায়িকা মৌসুমীকে নিয়েও কটূক্তি করেছিলেন। বেশ কিছুদিন আগে এ ঘটনা ঘটলেও প্রতিবাদে মুখ খোলেননি কেউ। কিন্তু সোমবার মুরাদকে পদত্যাগ করার নির্দেশ দেওয়ার পর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেন ওমর সানী।

গত অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে ‘স্বপ্নের রাজকুমার’ ছবির মহরতে ডা. মুরাদ হাসান বলেন, ‘‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’ অসাধারণ একটি ছবি। সুপার-ডুপার হিট। মৌসুমী এখনও অভিনয় করছেন। সবই ভালো, শুধু ওয়েটটা কমাতে হবে। ফিল্মে যারা অভিনয় করবেন, তাদের কাছে হাতজোড় করে অনুরোধ করছি, ওয়েটটার দিকে নজর রাখবেন।’

বিষয়টি নিয়ে সম্প্রতি আরও ব্যঙ্গাত্মকভাবে কথা বলেন এই রাজনীতিক। গত ৩০ নভেম্বর ‘ময়ূরাক্ষী’ ছবির মহরতে তিনি বলেন, ‘‘এর আগে মৌসুমীকে নিয়ে কথা বলেছিলাম। অনেকেই মাইন্ড করেছেন। মৌসুমীকে টার্গেট করে বলেছি, তা তো নয়। আমি সবাইকে বলেছি। একজন নায়িকার ওয়েট কন্ট্রোল করতে হবে। নায়িকার ভূমিকায় কেউ যদি এমন ‘মোটাসোটা’ হয়, এতে বাংলাদেশের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়।’’

একই অনুষ্ঠানে শাকিবের অভিনয়কে ‘বানরের মতো লাফালাফি’ বলে মন্তব্য করেন ডা. মুরাদ হাসান।

এরআগেও বিতর্কিত মন্তব্য করে দেশজুড়ে সমালোচনার মুখে পড়েন ডা. মো. মুরাদ হাসান। সর্বশেষ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে তার সঙ্গে চিত্রনায়ক ইমন ও চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহির ফোনালাপ ফাঁস হয়। সেখানে তিনি মাহিকে উদ্দেশ করে ধর্ষণের হুমকি ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দিয়ে তুলে নিয়ে আসার ধমকি দেন। তার অশালীন ও শিষ্টাচারবহির্ভূত বক্তব্যের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশের পর ‘ব্যক্তিগত কারণ’ দেখিয়ে মন্ত্রিসভা থেকে আজ (৭ ডিসেম্বর) পদত্যাগ করেছেন তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান।

এদিকে তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানকে প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগের নির্দেশ দেওয়ার পর সোমবার দিবাগত রাতে চিত্রনায়িকা মৌসুমীর স্বামী ও চিত্রনায়ক ওমর সানী এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে লেখেন, ‘আলহামদুলিল্লাহ ভালো লাগছে… ইমনের ফোনটাকে ধন্যবাদ, ইমনকে নয়, আর মাহি ওই মুহূর্তে কি বা করার থাকে কি বা বলার থাকে বলুন, আল্লাহ ছাড় দেন ছেড়ে দেন না।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (2)
Abdulllah ৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:৫৮ পিএম says : 0
Murad's stupidity was uncontrolled and he was going to extreme level which he should be punished for, however, to advise one publicly for something good (to control weight) is not bad at all.
Total Reply(0)
Harun Ur Rashid ১৪ ডিসেম্বর, ২০২১, ১০:২৯ এএম says : 0
Mare Allah rakhe ke.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন