শনিবার, ২১ মে ২০২২, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

ফেডারেশন কাপের প্রথম দিন ম্যাচ হয়নি!

বাফুফের ঘোষণা খেলা হবে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৫ ডিসেম্বর, ২০২১, ৮:৫৬ পিএম

নানা বিতর্কের জন্ম দিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) শনিবার শুরু করেছে মৌসুমের দ্বিতীয় টুর্নামেন্ট ফেডারেশন কাপ। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী দিন দু’টি ম্যাচ থাকলেও মাঠে গড়ায়নি একটিও! টুর্নামেন্টের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বসুন্ধরা কিংস আগের দিনই ঘোষণা দিয়েছে যে, কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে খেলা হলে তারা ফেডারেশন কাপে খেলবে না। তাদের না খেলার কারণ অবশ্য একাধিক। প্রথম কারণ হলো- কমলাপুরের কৃত্রিম মাঠে খেলে বসুন্ধরার কয়েকজন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় চোট পেয়েছেন। যে কারণে, স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে তারা সেরা একাদশ নামাতে পারেনি। দ্বিতীয়ত, বসুন্ধরা কিংস মনে করছে কোনো বিশেষ ক্লাবকে সুবিধা দিতেই টুর্নামেন্টের ফরম্যাট হঠাৎ বদলে দিয়েছে বাফুফে। তাই এর প্রতিবাদ স্বরুপ ফেডারেশন কাপের বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা টুর্নামেন্ট থেকে বিরত থাকবে। বসুন্ধরার সুরেই কথা বলেছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র ও উত্তর বারিধারা ক্লাব। তারাও টুর্নামেন্ট থেকে নিজেদের নাম প্রত্যাহার করে নিয়েছে। ফলে ঘটনা যা ঘটার তাই ঘটেছে। শনিবার বিকালে ফেডারেশন কাপের উদ্বোধনী ম্যাচ খেলতে নবাগত স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘ মাঠে আসলেও আসেনি বসুন্ধরা কিংস। একই অবস্থা রাতে অনুষ্ঠেয় ঢাকা আবাহনী লিমিটেড ও উত্তর বারিধারা ক্লাবের মধ্যকার ম্যাচেরও। এ ম্যাচেও ঢাকা আবাহনী মাঠে এসেছে ঠিকই কিন্তু অনুপস্থিত ছিল বারিধারা। এ ম্যাচটিও মাঠে গড়ায়নি।

বাফুফের নিয়মানুযায়ী ম্যাচ শুরুর ঘণ্টা দেড়েক আগে অংশগ্রহণকারী দলকে মাঠে উপস্থিত থাকতে হয়। টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে অংশ নিতে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘ নির্দিষ্ট সময়েই মাঠে আসে। কিন্তু বসুন্ধরা আসেনি। ম্যাচের নিয়মানুযায়ী রেফারিরা মাঠে প্রবেশ করে স্বাধীনতা সংঘকে নিয়ে টস করেন। এরপর ১৫ মিনিট অপেক্ষা করার পর রেফারি শেষ বাঁশি বাজান। পরে ম্যাচ কমিশনার রফিকুল আলম সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা নিয়ম অনুযায়ী ১৫ মিনিট অপেক্ষা করেছি। বসুন্ধরা কিংস মাঠে উপস্থিত না থাকায় ম্যাচ পরিচালনা সম্ভব হয়নি।’ সাধারণ দৃষ্টিতে এটি ওয়াকওভার হলেও এই ম্যাচের ভবিষ্যত বাফুফের হাতেই বলে জানালেন ম্যাচ কমিশনার, ‘রেফারিজ রিপোর্ট, ম্যাচ কমিশনার রিপোর্টে এটি উল্লেখ থাকবে। আর ম্যাচ নিয়ে সিদ্ধান্ত দেবে ডিসিপ্লিনারি কমিটি।’

তিন ক্লাব আসর থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয়ায় অনেকের মনে শঙ্কা জেগেছিল শেষ পর্যন্ত ফেডারেশন কাপ হবে কি না? তবে সব শঙ্কা দূরে বাফুফের ঘোষণা, কোন অবস্থাতেই ফেডারেশন কাপ টুর্নামেন্ট স্থগিত করা হবে না। নিয়ম অনুযায়ীই চলবে টুর্নামেন্টের খেলা। বাফুফের পেশাদার লিগ কমিটির চেয়ারম্যান ও সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী কাল রাতেই এ তথ্য সাংবাদিকদের জানান। তিনি বলেন,‘বাইলজ অনুযায়ী যা হওয়ার তাই হবে। যারা ম্যাচ খেলতে মাঠে এসেছে তারা পূর্ণ পয়েন্ট পাবে। এখানে সমন্বয়হীনতার কিছুই নেই। যেহেতু পেশাদার লিগ মিটির ক্লাবগুলোর সঙ্গে বসেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। পরবর্তীতে কোন ক্লাব সিদ্ধান্ত বদলালে তখন ব্যবস্থা নেয়া যাবে।’ তিন গ্রুপ থেকে তিন দল সরে দাঁড়ানোয় এখানে গ্রুপ পর্বের লড়াই হচ্ছে না। গুঞ্জন আছে ‘সি’ গ্রুপের তিন দল সাইফ স্পোর্টিং, চট্টগ্রাম আবাহনী ও বাংলাদেশ পুলিশ এই পরিস্থিতিতে সরে দাঁড়াতে পারে। তবে সালাম মুর্শেদী বলেন, কোন দল আসুক বা না আসুক, টুর্নামেন্ট চলবে নিয়ম মতো। এর কোন পরিবর্তন হবে না। আগামীকাল ম্যাচ না হলে তখন দেখা যাবে কি করা যায়। যারা আসে নাই, তারাই ভুল করেছে। এখন যা-ই হবে, সব বাইলজ অনুযায়ীই হবে। এখন আর কথা বলার সুযোগ নেই। রেফারি যখন মাঠে নামে, দল চলে আসে, সবকিছু বাইলজ অনুযায়ী হয়, এখন এটা ডিসিপ্লিনারি কমিটির কাছে চলে যাবে। বাইলজে যা আছে সেই মতে ডিসিপ্লিনারি কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন