সোমবার, ২৩ মে ২০২২, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

‘নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ভিসি পদ ফাঁকা আছে’

শাবিপ্রবির আন্দোলনে ব্যতিক্রম আয়োজন

শাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:০০ এএম

সময়ের সাথে সাথে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান আন্দোলনের গভীর হচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে গতকাল ১২তম দিনেও বিশ্ববিদ্যালয়ের গোল চত্বরের চারপাশে রাস্তায় নানান প্রতিবাদি সেøাগান লিখেন তারা। সময়ের সাথে পাল্লা দিয়ে ভিসির পতনের দাবিতে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের ক্ষোভও বাড়ছে। সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের হামলার প্রতিবাদে ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। তাদের অভিযোগ, শিক্ষার্থীদের নিয়ে ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের কোনো চিন্তা নেই। এ কারণেই তিনি ক্যাম্পাসে পুলিশ ডেকে এনেছেন এবং সেই পুলিশ শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা চালিয়েছে। তারা শিক্ষার্থীবান্ধব নতুন ভিসি চান। গতকাল সোমবার দুপুরে এ ঘোষণা দেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা। গতকাল সকাল থেকে ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ চেয়ে টানা আন্দোলনে রয়েছেন তারা। রাতেও তাদের এই কর্মসূচি অব্যাহত রেখেছেন। শিক্ষার্থীদের ওপর পুলিশের হামলা ও ভিসি ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ চেয়ে এই বিক্ষোভ শুধু শাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে আর সীমাবদ্ধ নেই। গতকাল থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ একাধিক বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ দেখিয়েছেন সেখানকার শিক্ষার্থীরা। এসব কর্মসূচিতে ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ চেয়ে কুশপুত্তলিকা স্থাপন, দেয়াল লিখন, কুশপুত্তলিকা দাহ এবং ব্যঙ্গচিত্রও আঁকা হয়।

এদিকে, শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে ব্যতিক্রম একটি আয়োজন চোখে পড়েছে। ভিসি অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগ চেয়ে ক্যাম্পাসের দেয়ালে দেয়ালে এক গ্রাফিতি আঁকা হয়েছে। আর সেখানে লেখা আছে, ‘নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি : ভিসি পদ ফাঁকা আছে’।

শাবিপ্রবির ভিসির অপসারণ দাবি করলেন খুবি শিক্ষার্থীরা : এদিকে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) ভিসির পদত্যাগের দাবিতে প্রতীকী অনশন করেছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) শিক্ষার্থীরা। শাবিপ্রবির অনশনরত শিক্ষার্থীদের সঙ্গে একাত্মতা জানিয়ে এ প্রতীকী অনশন কর্মসূচি পালন করেন তারা।

গতকাল সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের হাদী চত্বরে দুপুর ১২টা থেকে ২টা পর্যন্ত ২ ঘণ্টা অনশন পালন করেছেন শিক্ষার্থীরা। এ সময় শিক্ষার্থীরা বলেন, শাবিপ্রবি ভিসি এখনো শিক্ষার্থীদের এক দফা দাবি মেনে পদত্যাগ না করে বরং শিক্ষার্থীদের মৃত্যুর দিকে ঠেলে দিয়েছেন। এরই মধ্যে শিক্ষার্থীদের অনশনের ১১৫ ঘণ্টা পার হয়ে গেছে। ফলে যেকোনো সময় কোনো অনাকাক্সিক্ষত ঘটনা ঘটে যেতে পারে। এ সময় তারা অনতিবিলম্বে শাবিপ্রবি ভিসি’র পদত্যাগ দাবি করেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (13)
Anamul Islam Amon ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৬ এএম says : 0
একটা চেয়ারে বসে থাকার লোভ কি জঘন্য হতে পারে তা এই উপাচার্য কে দেখেই বুঝা যায়।বাপরে বাপ!গদিতে জোর করে বসার জন্য মানুষ এতটা ছেচঁড়্যা হতে পারে!শুধু সব দোষ আমরা শুধু রাজনীতিক নেতাদের ই দেই!
Total Reply(0)
Laboni Bhuiyan ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৭ এএম says : 0
কত বড় নির্লজ্জ হলে এখনো পদত্যাগ করছে না। একের পর এক শিক্ষার্থী অসুস্থ হচ্ছে। এগুলা কি উপর মহলের আর কারো চোখে পড়ছে না!!
Total Reply(0)
Nahar Hoque ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৭ এএম says : 0
· কোনো রাজ্যের পতন তখন ঘটে যখন রাজ্যে হতে সুবিচার উঠে যায় , কেননা সুবিচারের রাজ্য দীর্ঘস্থায়ী হয় , কারণ সুবিচারক এর কোন বন্ধু দরকার হয় না ।
Total Reply(0)
Zannatul Ferdous Zeenat ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৭ এএম says : 0
অসভ্য ভিসি। এভাবে চেয়ার দখল করে রেখে প্রতিদিন সবার ঘৃণাভরা চোখের সামনে দিয়ে ক্যাম্পাসে আসতে লজ্জা করবেনা তার??
Total Reply(0)
Palash Bhattacharjee ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৮ এএম says : 0
আপনাদের আন্দোলন সফল হবে-ই! শান্তিপূর্ণ উপায়ে ও যে আন্দোলন করা যায় তা শাবির শিক্ষার্থীরা দেখিয়ে দিয়েছেন।
Total Reply(0)
Farzad Wasif ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ১:০৯ এএম says : 0
ভিসির উপস্থিতিতে শিক্ষার্থীদের উপর পুলিশ হামলা করেছে। এখন হামলার হুকুমদাতা ভিসি হোক বা পুলিশ হোক বা জ্বীন-ভুত যে কেউ হোক না কেন এই ভিসি শিক্ষার্থীদের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ হইসেন। এই সহজ ব্যাপারটা সহজভাবে না নিয়ে তৃতীয় পক্ষের খোঁজ করছেন!! মাননীয় মন্ত্রী, ১০৬ঘন্টা ধরে ছেলেমেয়েরা পানিপর্যন্ত না খেয়ে আছে৷ তাদের শরীরের দিকে তাকিয়ে হলেও ভিসিকে পদ থেকে সরাতে বাধ্য করেন। দয়া করে, তৃতীয় চতুর্থ পক্ষ খুঁজাখুজি করে আর সময় নষ্ট করবেন না।
Total Reply(0)
Anamul Islam Amon ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৩ এএম says : 0
একটা চেয়ারে বসে থাকার লোভ কি জঘন্য হতে পারে তা এই উপাচার্য কে দেখেই বুঝা যায়।বাপরে বাপ!গদিতে জোর করে বসার জন্য মানুষ এতটা ছেচঁড়্যা হতে পারে!শুধু সব দোষ আমরা শুধু রাজনীতিক নেতাদের ই দেই!
Total Reply(0)
Laboni Bhuiyan ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৩ এএম says : 0
কত বড় নির্লজ্জ হলে এখনো পদত্যাগ করছে না। একের পর এক শিক্ষার্থী অসুস্থ হচ্ছে। এগুলা কি উপর মহলের আর কারো চোখে পড়ছে না!!
Total Reply(0)
Nahar Hoque ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৩ এএম says : 0
· কোনো রাজ্যের পতন তখন ঘটে যখন রাজ্যে হতে সুবিচার উঠে যায় , কেননা সুবিচারের রাজ্য দীর্ঘস্থায়ী হয় , কারণ সুবিচারক এর কোন বন্ধু দরকার হয় না ।
Total Reply(0)
Shah Jahan Mirza ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৪ এএম says : 0
এদেশে বোধ হয় একমাত্র দেশ, যেখানে অযোগ্যতা প্রমাণ পাওয়ার পর ও বিচারের মুখোমুখি হতে হয় না
Total Reply(0)
Mahabub Alam ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৪ এএম says : 0
প্রতিকী নয় কোনো শিক্ষার্থী অনশনরত অবস্থায় মারা গেলে সেই লাশ নিয়ে মিছিল করলেও ক্ষমতা লোভী ভিসি পদত্যাগ করবে বলে মনে হয় না।
Total Reply(0)
Juwël Rana ২৫ জানুয়ারি, ২০২২, ৬:১৪ এএম says : 0
ক্ষমতার লোভ যে কতটা ভয়ংকর তা ইতিহাস দেখলেই বোঝা যায়...... তবে জোর করে ক্ষমতা দখলে রাখা যায় না,অগ্নুৎ্পাতের মতো তা বেরিয়ে যায়।
Total Reply(0)
আমির হোসেন ২৬ জানুয়ারি, ২০২২, ৯:১৪ পিএম says : 0
এদেশে পদ ত্যাগের কোন উদাহরন নেই । এজন্যে উনি পদ ও ভবন ছাড়তে পারছেন না । উপর থেকে রিলিজ করলে হয় । কিন্তু উপরের লোকদের পদ ছাড়ানোর ইচ্ছা নেই । তাই মত সমস্যা ।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন