বুধবার, ১০ আগস্ট ২০২২, ২৬ শ্রাবণ ১৪২৯, ১১ মুহাররম ১৪৪৪

আন্তর্জাতিক সংবাদ

ইসলামাবাদে ওআইসির পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরিষদের ৪৮তম অধিবেশন ২২ - ২৩ মার্চ

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ মার্চ, ২০২২, ৯:৪০ এএম

অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি) এর পররাষ্ট্রমন্ত্রী পরিষদের ৪৮তম অধিবেশন আগামী ২২ - ২৩ মার্চ ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত হবে।পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী শাহ মখদুম কুরেশি বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ড. এ.কে. আবদুল মোমেনকে অধিবেশনে যোগ দিতে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন। কুরেশি মুসলিম বিশ্বের ৫৭টি রাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীসহ প্রতিনিধিদের উপস্থিতি কামনা করেছেন। এ উপলক্ষে রবিবার বিকালে ঢাকায় পাকিস্তানের হাইকমিশনার ইমরান আহমেদ সিদ্দিকী তার বাসা পাকিস্তান হাউজে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, ৪৮তম অধিবেশনের মূল প্রতিপাদ্য হল— ‘একতা, ন্যায়বিচার এবং উন্নয়নের জন্য অংশীদারিত্ব’— যা উম্মাহর মধ্যে ঐক্যের প্রচার, সকল মুসলিম জনগণের জন্য ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠা এবং ওআইসি সদস্য দেশগুলির জন্য অন্তর্ভুক্তিমূলক এবং টেকসই উন্নয়নের প্রচারে পাকিস্তানের প্রতিশ্রুতির প্রতিনিধিত্ব করে৷ এই দৃষ্টিভঙ্গির আলোকে, পাকিস্তান ওআইসি সদস্য রাষ্ট্র এবং এর বাইরেও সহযোগিতা ও অংশীদারিত্বের সেতু তৈরি করতে চায়। দ্য অর্গানাইজেশন অফ ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি) জাতিসংঘের পরে দ্বিতীয় বৃহত্তম সংস্থা যেটিতে চারটি মহাদেশে বিস্তৃত ৫৭টি রাষ্ট্রের সদস্যপদ রয়েছে। পাকিস্তান ১.৫ বিলিয়ন মুসলমানদের সম্মিলিত কণ্ঠস্বর, অর্গানাইজেশন অফ ইসলামিক কোঅপারেশনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। বাংলাদেশের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে পাকিস্তানের লাহোরে অনুষ্ঠিত ২য় ওআইসি শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিয়েছিলেন। ওআইসি শান্তি ও নিরাপত্তার পাশাপাশি আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সম্পর্কিত বিষয়গুলো আলোকপাত করতে ধারাবাহিকভাবে তার এজেন্ডা প্রসারিত করছে।

তিনি আরও বলেন, পাকিস্তানে এ পর্যন্ত ১৪টি ওআইসি শীর্ষ সম্মেলন, ৭টি বিশেষ ওআইসি শীর্ষ সম্মেলন, ৪৭টি ওআইসি কাউন্সিল অফ ফরেন মিনিস্টারস (সিএফএম) এর সভা এবং ১৭টি বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৪৮তম অধিবেশনের বিশেষ তাৎপর্য রয়েছে। কারণ, পাকিস্তানের স্বাধীনতার ৭৫তম বার্ষিকী একই সময় উদযাপিত হবে । পাকিস্তান এই শুভ অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথিদের স্বাগত জানাতে উন্মুখ। হাইকমিশনার বলেন, সকল প্রতিনিধি দলের প্রধানকে ২৩ মার্চ ঐতিহ্যবাহী 'পাকিস্তান দিবস প্যারেড' দেখার জন্য "সম্মানিত অতিথি" হিসাবে আমন্ত্রণ জানানো হবে৷ বিচিত্রধর্মী এবং ব্যাপক বিষয় বস্তু সামনে নিয়ে ৪৮তম অধিবেশনে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে । শান্তি ও নিরাপত্তা, অর্থনৈতিক উন্নয়ন, সাংস্কৃতিক ও বৈজ্ঞানিক সহযোগিতা এবং ওআইসি-এর ভূমিকা পুনরুজ্জীবিত করা ইত্যাদি বিষয়গুলি নিয়ে আলোচনা হবে। অধিবেশন চলাকালীন গৃহীত ১০০টিরও বেশি রেজুলেশন, সমসাময়িক প্রধান ইস্যুগুলোতে ওআইসির দৃষ্টিভঙ্গি প্রকাশ করবে। অধিবেশনটি আফগানিস্তানে জরুরী মানবিক পরিস্থিতি নিরাময়ে ১৭তম বিশেষ অধিবেশনের সময় গৃহীত সিদ্ধান্তগুলি পর্যালোচনা করার এবং মূল্যায়ন করার সুযোগ প্রদান করবে।

ইভেন্ট চলাকালীন পাকিস্তান রোহিঙ্গা ইস্যুতেও এক বিশেষ বৈঠকের আয়োজন করবে। পাকিস্তান আমাদের 'সম্মিলিত উচ্চাকাঙ্ক্ষা'কে 'ফলপ্রসূ' এবং ইসলামী সংহতি ও সহযোগিতার বন্ধনকে আরও জোরদার করার জন্য বাস্তব পদক্ষেপ নিতে বাংলাদেশ সহ অন্যান্য ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রগুলির সাথে কাজ চালিয়ে যাবে। আমরা আত্মবিশ্বাসী যে ৪৮তম সিএফএম আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এই ইসলামিক বন্ধনকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে এক যুগান্তকারী অধিবেশন হিসেবে প্রমাণিত হবে। আমাদের পক্ষ থেকে, পাকিস্তান মুসলিম বিশ্বের মধ্যে ঐক্য, ভ্রাতৃত্ব ও সমৃদ্ধি বৃদ্ধির লক্ষ্যে সকল প্রচেষ্টাকে সমর্থন করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন