শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০২ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

আজ থেকে ২৪ ঘণ্টা ফ্লাইট চলবে

শাহজালালে ভোগান্তি কমার আশা যাত্রীদের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১ মে, ২০২২, ১২:০০ এএম

পহেলা মে থেকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ২৪ ঘন্টা ফ্লাইট চলাচল করবে। এর আগে হাইস্পিড ট্যাক্সিওয়ে নির্মাণের জন্য গত ১০ ডিসেম্বর থেকে রাতে ফ্লাইট চলাচল বন্ধ রয়েছে। সংশ্লিষ্ট সুত্রে এতথ্য জানা গেছে। ওইসময় এই কাজ শেষ করতে ১০ জুন পর্যন্ত বন্ধ রাখার ঘোষণা করেছিল বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)। তবে নির্ধারিত সময়ের আগেই কাজ শেষ হয়েছে। ফলে ১ মে থেকে ২৪ ঘণ্টা ফ্লাইট চালু করতে নোটাম জারি করা হয়েছে।

জানা যায়, ২০২১ সালের ১০ ডিসেম্বর থেকে ২০২২ সালে ১০ জুন পর্যন্ত প্রতি দিন হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রাত ১২টা থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত ফ্লাইট চলাচল বন্ধ থাকার কথা। বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনালে হাইস্পিড ট্যাক্সিওয়ে নির্মাণের জন্য রাতে বন্ধ রাখা হচ্ছে বিমান চলাচল।

সূত্রমতে, পর্যাপ্ত প্রস্তুতি না নিয়ে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে রাতে ফ্লাইট ওঠানামা বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে ভোগান্তি পড়েন যাত্রীরা। আর বাড়তি যাত্রীর চাপে ভোগান্তির পাশাপাশি বিমানবন্দরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদেরও হিমশিম খেতে হয়। করোনা সনদ পরীক্ষা, বোর্ডিং কার্ড ও ইমিগ্রেশনে লম্বা লাইন নিত্যদিনের চিত্র। এমনকি বিমানবন্দরে প্রবেশ করতেও গেটের মুখে লম্বা লাইনের চক্করে যাত্রীরা চিড়েচ্যাপ্টা। বিমানবন্দরের এই বিশৃঙ্খল চিত্র দূরদুরান্ত থেকে আসা ব্যবসায়ী-বিনিয়োগকারীদের বাংলাদেশ সম্পর্কে নেতিবাচক বার্তা দিচ্ছে বলে মনে করেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।

এদিকে রাতে ফ্লাইট বন্ধের ফলে দিনে বিমানবন্দরে বাড়তি চাপ সৃষ্টি হয়। বিমানবন্দরে যাত্রীসেবা বিঘ্ন হওয়ার পাশাপাশি নানা রকম ভোগান্তি তৈরি হয়। যাত্রীদের চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হয় বিমানবন্দরের নিরাপত্তা সংস্থাগুলোকে।

বেবিচক জানিয়েছে, থার্ড টার্মিনাল নির্মাণকাজের অংশ হিসেবে হাই স্পিড কানেক্টিং ট্যাক্সিওয়ে নির্মাণ ও লাইটিংয়ের কাজের জন্য ১০ ডিসেম্বর থেকে ছয়মাস অর্থাৎ ১০ জুন পর্যন্ত রাতে আট ঘণ্টা উড়োজাহাজ ওঠানামা বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছিল বেবিচক। তবে নির্ধারিত সময়ের আগে কাজ শেষ হওয়ায় আগামী মে মাসের প্রথম সপ্তাহ থেকে বিমানবন্দরে ২৪ ঘণ্টা ফ্লাইট ওঠানামা করতে পারবে।
বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান বলেন, আমাদের ২০২২ সালের জুনের মধ্যে ট্যাক্সিওয়ের কাজ শেষ করে জুনেই ২৪ ঘণ্টা ফ্লাইট চালুর শিডিউল ছিল। তবে আগেই কাজ শেষ হওয়ার সম্ভাবনা থাকায় মে মাস থেকে রানওয়ে ব্যবহৃত হবে।

উল্লেখ্য, দেশের প্রধান এই বিমানবন্দরে প্রতিদিন ২৭টি আন্তর্জাতিক এয়ারলাইনসের ১১০ থেকে ১২৮টি ফ্লাইট ওঠানামা করে। এসব ফ্লাইটে দৈনিক ২০ হাজারের বেশি যাত্রী যাতায়াত করেন। বিপুলসংখ্যক যাত্রী ও এয়ারলাইনসকে সেবা দিতে গ্রাউন্ড হ্যান্ডলিংয়ে নিয়োজিত বিমানের পর্যাপ্ত জনবল ও সরঞ্জাম নেই। এ ছাড়া বিমানবন্দরে স্থান স্বল্পতা, বোর্ডিং ব্রিজ, বাস স্বল্পতা, ইমিগ্রেশন ও হেলথ ডেস্কে লোকবলের অভাবে ধাপে ধাপে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন যাত্রীরা। আসা-যাওয়ায় বিমানবন্দর থেকে সঠিক সময়ে নির্ধারিত গন্তব্যে ছেড়ে যেতে পারছে না অসংখ্য ফ্লাইট। এতে কানেক্টিং ফ্লাইটে অপেক্ষা ও ভোগান্তি পোহাতে হয় যাত্রীদের।

এ বিষয়ে বিমানবন্দরের আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের (এপিবিএন) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) জিয়াউল হক জানান, ফ্লাইট বন্ধ থাকার কারণে ইমিগ্রেশনে চাপ পড়ে। এতে যাত্রীরা সীমাহিন ভোগান্তিতে পড়েন। তবে যাত্রীদের চাপ সামলাতে আমাদেরও হিমশিম খেতে হয়েছে। তবে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ থেকে ১ মে থেকে ফ্লাইট চালু করার অনুমতি দেয়া হয়েছে। ২৪ ঘন্টা ফ্লাইট চালু হলে যাত্রীদের ভোগান্তি কিছুটা কমে যাবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps