শনিবার, ২৫ জুন ২০২২, ১১ আষাঢ় ১৪২৯, ২৪ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

রামগতিতে ইটভাটার মালিক পক্ষের নির্যাতনে শ্রমিকের মৃত্যুর অভিযোগ: আটক-২

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৯ মে, ২০২২, ২:৪৬ পিএম

লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে ইটভাটার মালিক পক্ষের নির্যাতনে এক শ্রমিকের মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় ইটভাটার মালিক সহ দুজনকে আটক করেছে পুলিশ।

বুধবার ১৮ মে দিবাগত রাত ১২ টার দিকে আনোয়ার হোসেন (২২) নামের এই শ্রমিকের মৃত্যু হয়। নিহত আনোয়ার উপজলার চরআলগী ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের চরহাসান হোসাইন এলাকার আব্দুস শহীদের ছেলে।

এ ঘটনায় ওই ইটভাটার মালিক খলিল মাঝি ও তার ভাই খবির মাঝিকে আটক করেন রামগতি থানা পুলিশ। তারা একই এলাকার মোঃ সাদেকের ছেলে। দুজনেই আপন ভাই।

নিহতের মামা ফারুক ও স্থানীয়রা জানান, আনোয়ার হোসেন খলিল মাঝির ভাই খবির মাঝির খাগড়াছড়ির একটি ইটভাটায় শ্রমিক হিসেবে কাজ করতেন। চুক্তি অনুযায়ী ছয় মাস কাজ করার কথা থাকলেও আনোয়ার ৫ মাস কাজ করেন। এর জের ধরে খবির মাঝি তার ভাই খলিল মাঝি,দুই ভাতিজা ইব্রাহিম ও রিয়াজ তাকে কয়েকবার মারধর করেন। চলতি মাসের দুই তারিখে আনোয়ারকে ইটভাটার মালিক খলিল চরআলগী ইউনিয়নের সুফিরহাট এলাকায় তার নিজস্ব মালিকানাধীন মেঘনা ইটভাটায় আঁটকে রেখে হাত পা বেঁধে বেধড়ক মারধর করে রক্তাক্ত করেন।পরে পরিবারের লোকজন আনোয়ার কে উদ্ধার করে স্থানীয় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্মরত ডাক্তার অবস্থার অবনতি দেখে তাকে নোয়াখালী সদর হাসপাতালে হস্তান্তর করেন। সেখানেও অবস্থার অবনতি দেখে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দেন। পরে পারিবারিক অর্থনৈতিক অবস্থা চিন্তা করে আনোয়ারকে বাড়ীতে চিকিৎসা দেন তারা। গতকাল বুধবার দিবাগত রাত ১২ টার দিকে ওই শ্রমিক তার নিজ বাড়ীতে মারা যান।

বিষয়টি সমাধানের জন্য রামগতি থানায় দফায় দফায় বৈঠক চলছে বলে জানান নিহতের মামা ফারুক।

রামগতি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন মৃত্যুর ঘটনা নিশ্চিত করে বলেন,এই ঘটনায় পুলিশ ইটভাটার মালিক ও তার ভাইকে আটক করেছেন।পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছেন। তাদের বিরুদ্ধে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps