বুধবার, ১৭ জুলাই ২০২৪, ২ শ্রাবন ১৪৩১, ১০ মুহাররম ১৪৪৬ হিজরী

সারা বাংলার খবর

জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ নৌপথে ১৪ দিন বন্ধ থাকার পর ফেরি চলাচল শুরু

রাজবাড়ী জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩১ জুলাই, ২০২২, ১১:৫৪ এএম

রাজবাড়ীর সাথে পাবনার নদী পথে সরাসরি যোগাযোগের মাধ্যম জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ নৌপথ। পদ্মা নদীর পানি কমে যাওয়ায় ১৪দিন ফেরি চলাচল বন্ধ থাকার পর শুক্রবার থেকে চলাচল শুরু হয়েছে।
স্থানীয়রা বলেন, মূলত পণ্য পরিবহনের জন্য এ নৌপথ বেশি ব্যবহার করা হয়। দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলার সাথে উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলার যাতায়াতের সহজপথ এ নৌপথ। এ নৌপথ দিয়ে প্রতিদিন রাজবাড়ী ছাড়াও ফরিদপুর, মাদারীপুর, পিরোজপুর, বরিশাল, গোপালগঞ্জসহ আশেপাশের জেলাগুলোর বাস ও মালবাহী ট্রাক পাবনা, সিরাজগঞ্জ, রাজশাহী, রংপুর, নাটোরসহ বিভিন্ন জেলায় যাতায়াত করে। এই নৌপথ ব্যবহার করলে অন্তত ১২০ কিলোমিটার পথ সাশ্রয় হয়। এই পথে বাস ও ট্রাক ছাড়াও মাইক্রোবাস, মোটর সাইকেলসহ ছোট-বড় বিভিন্ন ধরনের যানবাহন যাতায়াত করে।
রাজবাড়ী সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয় সুত্রে জানা যায়, দক্ষিণবঙ্গের সঙ্গে উত্তরবঙ্গের নৌ যোগাযোগের অন্যতম মাধ্যম জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ নৌপথ। রাজবাড়ী সদর উপজেলার চন্দনী ইউনিয়নে জৌকুড়া ঘাট অবস্থিত। বর্ষা মৌসুমে জৌকুড়া ফেরিঘাট থেকে প্রতিদিন সাধারণত তিনবার ফেরি ছেড়ে যায়। একই ভাবে ওইপার থেকেও তিনবার ছেড়ে আসে। এ নৌপথে তিনটি ইউটিলিটি (ছোট) ফেরী রয়েছে। ফেরি ছাড়াও দুটি লঞ্চ ও কয়েকটি ট্রলার এ নদীপথে যাতায়াত করে। সকাল আটটা, দুপুর ১২টা ও ৫টায় ফেরি ছেড়ে যায়। প্রতিদিন সকাল ১১টায়, দুপুর ২টায় ও রাত ৯টায় নাজিরগঞ্জ থেকে জৌকুড়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে।
জৌকুড়া-নাজিরগঞ্জ নৌপথের ঠিকাদার মোস্তাফিজুর রহমান শরীফ বলেন, পদ্মা নদীর পানি কমে যাওয়ায় গত ১৬ জুলাই থেকে ফেরি ঘাটে ভিড়তে অসুবিধা হয়। ফলে ফেরি চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। পানি বাড়ার কারণে শুক্রবার (২৯ জুলাই) থেকে পুনরায় ফেরি চলাচল শুরু হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন