ঢাকা, শনিবার, ২৪ আগস্ট ২০১৯, ০৯ ভাদ্র ১৪২৬, ২২ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

গুম হওয়ার ১১০ দিন পর কলেজ ছাত্র ছাড়া পেল

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩১ জানুয়ারি, ২০১৮, ৫:২২ পিএম

প্রায় চার মাস আগে নিজ বাড়ি থেকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়া কোটচাঁদপুরের কলেজ ছাত্র মাকছুদুর রহমান রানাকে চোখ বাধা অবস্থায় কে বা কারা ফেলে রেখে গেছে। বুধবার ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ শহরের মাহতাব উদ্দীন ডিগ্রী কলেজের পাশে রানা নিজেকে আবিষ্কার করে। এরপর তিনি বাড়িতে ফোন করলে স্বজনরা এসে তাকে নিয়ে যায়। মাকছুদুর রহমান রানা কোটচাঁদপুর উপজেলার হরিণদিয়া গ্রামের আমিনুর রহমানের ছেলে। পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭ সালের ১২ অক্টোবর হরিণদিয়া গ্রাম থেকে রানাকে উঠিয়ে নিয়ে যায়। এ সময় রানা মসজিদ থেকে আসরের নামাজ পড়ে বের হচ্ছিল। একটি দামী গাড়িতে উঠিয়ে মোবাইলের টাওয়ার বানানোর জন্য জায়গা দেখানোর কথা বলে অজ্ঞাত ব্যক্তিরা তাকে নিয়ে যায়। এরপর থেকে রানা নিখোঁজ ছিল। এ ঘটনায় কোটচাঁদপুর থানায় জিডি ও অক্ষত উদ্ধারের দাবীতে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করে রানার পরিবার। অবশেষে ১১০ দিন পর রানা অক্ষত অবস্থায় বাড়ি ফিরে এলো। বাড়ি ফিরে রানা স্বজনদের জানিয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে নিয়ে গিয়েছিলো। এর বাইরে সে কিছু বলেনি। রানার চাচাতো ভাই মাসুম বিল্লাহকেও উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার পর গ্রেফতার দেখায় র‌্যাব। এ বিষয়ে কোটচাঁদপুর থানার ওসি বিপ্লব কুমার সাহা বলেন, মাকছুদুর রহমান রানাকে চোখ বাধা অবস্থায় কালীগঞ্জ শহরে পাওয়া গেছে বলে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। তিনি বলেন প্রায় ২/৩মাস আগে কে বা করা রানাকে তুলে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরিও করা আছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন