মঙ্গলবার, ১৭ মে ২০২২, ০৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৫ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

গণমানুষের ইত্যাদি এবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়: প্রচার ৩০ মার্চ

| প্রকাশের সময় : ২৬ মার্চ, ২০১৮, ১২:০০ এএম

বিনোদন রিপোর্ট: ইতিহাস, ঐতিহ্য, সভ্যতা, সংস্কৃতি, প্রতœতাত্তি¡ক নিদর্শণ এবং পর্যটন সমৃদ্ধ আকর্ষণীয় স্থানগুলোতে গিয়ে ইত্যাদি ধারণের ধারাবাহিকতায় এবারের পর্ব ধারণ করা হয়েছে শিক্ষা, সাহিত্য, সঙ্গীতে সমৃদ্ধ জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়। গত ১৬ মার্চ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার তিতাস নদীর তীরে তিতাসপাড়ার তিতাস গ্যাস ফিল্ডের এক নম্বর কূপের সামনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিভিন্ন ঐতিহ্যবাহী জিনিস দিয়ে সাজানো মঞ্চে ধারণ করা হয় এবারের ইত্যাদি। ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় এই গ্যাস ফিল্ডের ট্রান্সমিটার ব্যবহার করে স্থানীয় জনগণ রেডিও স¤প্রচারের মত দুঃসাহসিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিলেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়া মুক্তিযুদ্ধের বহু বীর গাঁথায় সমৃদ্ধ ঐতিহ্যবাহী জেলা, তাই স্বাধীনতার এই গৌরবোজ্জ্বল মাসে ইত্যাদি ধারণের জন্য ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে বেছে নেয়া হয়েছে। এই উপমহাদেশের সঙ্গীত জগতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাম স্বর্ণাক্ষরে খচিত। বাংলাদেশের যখন যে স্থানে ইত্যাদি ধারণ করা হয় সেই স্থানটির বৈশিষ্ট্যকে কেন্দ্র করেই সেট নির্মাণ করা হয় এবং পুরো মঞ্চ জুড়েই সেইসব বৈশিষ্ট্যকে তুলে ধরা হয়। ফলে দর্শকরা যেমন ঐ স্থানটি সম্পর্কে জানতে পারেন, তেমনি নিত্য-নতুন লোকেশনের কারণে প্রতিবারই সেট নির্মাণেও আসে বৈচিত্র্য। অনুষ্ঠান ধারণের দিন প্রায় লক্ষাধিক দর্শক সমাগম হয়েছিল। অনুষ্ঠানস্থলে তিল ধারণের ঠাঁই ছিল না। স্থানীয় প্রশাসন এবং ইত্যাদির প্রাণ সাধারণ মানুষের স্বতঃস্ফ‚র্ত অংশগ্রহণ ও আন্তরিক সহযোগিতায় অনুষ্ঠানটি সুন্দরভাবে ধারণ করা হয়। আমন্ত্রিত দর্শক ছাড়াও হাজার হাজার মানুষ তিতাস নদীতে নৌকার উপর, বিভিন্ন গাছের উপর, রাস্তায় দাঁড়িয়ে সুশৃঙ্খলভাবে উপভোগ করেছেন ইত্যাদির নান্দনিক সব পর্ব। অবাক বিস্ময়ে দেখেছেন, একটি অনুষ্ঠান তৈরী করতে কতটা শ্রম দিতে হয়। শিকড় সন্ধানী ইত্যাদিতে সবসময়ই দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে প্রচার বিমুখ, জনকল্যাণে নিয়োজিত মানুষদের খুঁজে এনে তাদের বিভিন্ন কর্মকাÐ তুলে ধরা হয়। যাতে তাদের কাজ দেখে অন্যরাও অনুপ্রাণিত হন। এছাড়াও থাকে দেশী-বিদেশি অচেনা-অজানা স্থানকে নিয়ে তথ্য ভিত্তিক শিক্ষামূলক প্রতিবেদন। এবারের পর্বে রয়েছে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ইতিহাস, ঐতিহ্য এবং প্রাকৃতিক গ্যাসের উপর একটি তথ্যসমৃদ্ধ প্রতিবেদন। রয়েছে এক ব্যতিক্রমী পরিশ্রমী অটোরিকশা চালক দুলাল চন্দ্র দাসের উপর একটি মানবিক প্রতিবেদন। বরিশালের বাবুগঞ্জের অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক ইসাহাক শরীফের উপর রয়েছে একটি শিক্ষণীয় প্রতিবেদন। রয়েছে বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত নেদারল্যান্ডসের নাগরিক আনোয়ারা বেগমের নিজের শিকড়ের সন্ধানের উপর একটি অনুসন্ধানী প্রতিবেদন। বিদেশি প্রতিবেদনে রয়েছে পবিত্র মদিনা শরীফের একটি ব্যতিক্রমী রাস্তা। এবারের ইত্যাদিতে মুল গান রয়েছে একটি। যেহেতু ইত্যাদি এখন দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে গিয়ে ধারণ করা হয় এবং সেই অঞ্চলের শিল্পীদের দিয়েই গান করানো হয়, সেই ধারাবাহিকতায় এবারের ইত্যাদিতে একটি দেশাত্মবোধক গান গেয়েছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সন্তান বাংলাদেশের সঙ্গীতাঙ্গণের কিংবদন্তী শিল্পী সৈয়দ আব্দুল হাদী। গানটি লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান এবং সুর ও সঙ্গীতায়োজন করেছেন রাজেশ। গানটির সঙ্গে কোরিওগ্রাফি করেছেন স্থানীয় শিল্পীরা। ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে নিয়ে একটি গানের সঙ্গে নৃত্য পরিবেশন করেছেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ারই কৃতী শিল্পী অভিনয় তারকা জাকিয়া বারী মম, সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় একদল নৃত্য শিল্পী। নাচটির কোরিওগ্রাফি করেছেন মনিরুল ইসলাম মুকুল, সঙ্গীতায়োজন করেছেন মেহেদী। দর্শক পর্বের নিয়ম অনুযায়ী ধারণস্থান ব্রাহ্মণবাড়িয়াকে ঘিরে প্রশ্নোত্তরের মাধ্যমে হাজার হাজার দর্শকের মাঝখান থেকে ৪ জন দর্শক নির্বাচন করা হয়। ২য় পর্বে নির্বাচিত দর্শকদের সঙ্গে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কৃতী শিল্পী অভিনেতা সাজু খাদেম অভিনয় করেন। নিয়মিত পর্বসহ এবারও রয়েছে বিভিন্ন সমসাময়িক ঘটনা নিয়ে বেশ কিছু সরস অথচ তীক্ষè নাট্যাংশ। পার্বণ পর্যেষণা, বিপথে গিয়ে বিপদে ফেলা, হাঁটার কাঁটা, যন্ত্রের যন্ত্রণা, হাসপাতালের হাঁসহ বিভিন্ন বিষয়ের উপর রয়েছে বেশ কয়েকটি নাট্যাংশ। বরাবরের মত এবারও ইত্যাদির শিল্প নির্দেশনা ও মঞ্চ পরিকল্পনায় ছিলেন ইত্যাদির নিয়মিত শিল্প নির্দেশক মুকিমুল আনোয়ার মুকিম। পরিচালকের সহকারী হিসাবে ছিলেন যথারীতি রানা ও মামুন। গণমানুষের প্রিয় অনুষ্ঠান ইত্যাদির আগামী পর্ব একযোগে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে-এ প্রচারিত হবে ৩০ মার্চ, শুক্রবার রাত ৮ টার বাংলা সংবাদের পর। ইত্যাদির রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মান করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। ইত্যাদি স্পন্সর করেছে যথারীতি কেয়া কস্মেটিকস্ লিমিটেড।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন