ঢাকা, সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

স্বপ্ন দেখালেও আশা দিলেন না সাকিব

স্পোর্টস রিপোর্টার, চট্টগ্রাম থেকে | প্রকাশের সময় : ৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৯, ১২:০০ এএম

৬ উইকেটে ১৩৬ রান তোলা এক দল বাকি ৪ উইকেটে ২৬২ রান তুলবে- শোনার পর হাসি পাচ্ছে? প্রতিবেদককে গালি দিতে ইচ্ছা করছে? একটু থামুন, যে সহজ সমীকরণ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান দিয়েছেন, তাতে আফগানদের বিপক্ষে এখনই হার মানতে ইচ্ছা নাও জাগতে পারে।

চট্টগ্রাম টেস্টের যা অবস্থা, তাতে দিন শেষে সংবাদ সম্মেলনে কারও আসা কঠিন। এ জন্যই চার দিনের মধ্যে দ্বিতীয়বারের মতো হাজির হলেন অধিনায়ক। সাংবাদিকদের প্রশ্নবাণ সামলালেন ফ্রন্ট ফুটে। প্রশ্নের বাউন্সারেও ব্যাকফুটে যাননি। ব্যাটিং, বোলিং, উইকেট- সবকিছু নিয়েই দলের পারফরম্যান্স প্রশ্নবিদ্ধ। সব প্রশ্নের উত্তরেই সহজ স্বীকারোক্তি দিয়েছেন সাকিব। এর মাঝেই এ টেস্টের ভবিষ্যতের প্রশ্নেই জয়ের সমীকরণটা জানালেন সাকিব।

এ টেস্টে বাংলাদেশ জয় পেতে পারে কি না এমন প্রশ্নে হাসতে হাসতেই সাকিব জানালেন, ‘টেস্ট জিততে আর কত দরকার? ২৭০ (২৬২)। একজন ১৫০ আর একজন ১২০ করলেই তো হয়ে যাবে।’ এমন কিছু সাকিব ওয়ানডেতে এর আগে করে দেখিয়েছেন। চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ব্যাটিং ধসের পর সাকিব ও মাহমুদউল্লাহর জোড়া সেঞ্চুরিতে দুই শ ছাড়ানো এক জুটি এসেছিল। আর তাতেই দুর্দান্ত এক জয় পেয়েছিল বাংলাদেশ। সাকিবকে সেটা মনে করিয়ে দিতেই আবার হাসলেন অধিনায়ক, ‘ওটাই তো বলছি। আমি যদি দেড় শ করিও, অন্য প্রান্তে আরেকজনকে এক শ তো করতে হবে। সেটা এখন সৌম্যকে করতে হবে।’

তবে ৩৯ রানে থাকা সাকিব ও শূন্য রানে থাকা সৌম্যের জন্য কাজটা অনেক কঠিন হলেও এ টেস্ট বাঁচানোর আরেকটি উপায়ের কথাও কিন্তু মনে করিয়ে দিয়েছেন সাকিব। গতকাল দিনভর খেলায় বাগড়া দেওয়া বৃষ্টিও যে শেষ দিনের নায়ক বনতে পারে সেটাও জানিয়ে দিয়েছেন সাকিব। অধিনায়ক হাঁটলেন না কূটনৈতিক পথে, শোনালেন না অবাস্তব কোন আশা, ‘বাস্তবতা বিচারে তো আমরা এই ম্যাচ হারের খুব কাছাকাছি। একমাত্র বৃষ্টি আছে আর আল্লাহ যদি স্বয়ং আমাদের দুইজন প্লেয়ারের ওপর কোন ঐশী শক্তি না দেন (হাসি), তাহলে হারার সম্ভাবনাটাই খুব বেশি।’

তাহলে এই টেস্ট থেকে আর বাংলাদেশের পাওয়ার কি থাকবে? অধিনায়ক এখানেই দেখছেন বাস্তবের কিছু ছবি। হারলেও যদি কিছু লড়াই করা যায়, আগামী সময়ের জন্য যদি কিছু জ্বালানি অর্জন করা যায় সেই চেষ্টাই করতে চান তারা, ‘এখানেও আসলে একটা চ্যালেঞ্জ থেকে যায়। আমরা যে ৪ জন বাকি আছি, তারা যদি কিছু একটা করে দেখাতে পারি। বা কিছু করতে না পারলেও, লড়াই করার যে মানসিকতা, আমরা যে এতদিন ধরে টেস্ট ক্রিকেট খেলছি, অন্তত ঘরের মাঠে ভালো কিছু করেছি, তার যে একটা প্রমাণ অন্তত আমরা রেখে যেতে পারি। হয়তো হারতে পারি, তবে ঐ যে লড়াই করার যে একটা ছাপ, সেটা যেনো আমরা দেখাতে পারি।’

 

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন