ঢাকা, মঙ্গলবার , ২১ জানুয়ারী ২০২০, ০৭ মাঘ ১৪২৬, ২৪ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

ফুটবলে টিকে রইল বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার, কাঠমান্ডু, নেপাল থেকে | প্রকাশের সময় : ৫ ডিসেম্বর, ২০১৯, ৯:০৩ পিএম

সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমস ফুটবলে ফেভারিট দলের তকমা নিয়েই কাঠমান্ডু এসেছিল বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-২৩ দল। ফাইনাল খেলার লক্ষ্য ছিল তাদের সামনে। কিন্তু নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভুটানের কাছে অপ্রত্যাশীত হারের লজ্জা, আর দ্বিতীয় ম্যাচে মালদ্বীপের সাথে পয়েন্ট ভাগ। দুই ম্যাচ পর অবশেষে তৃতীয় ম্যাচে এসে জয়ের দেখা পেয়েছে লাল-সবুজরা। বৃহস্পতিবার দশরথ স্টেডিয়ামে স্থাণীয় সময় সন্ধ্যা সাড়ে পাঁচটায় শুরু হওয়া ম্যাচে জামাল ভূঁইয়ার দল জয় পায় ১-০ গোলে। আগামি ৮ ডিসেম্বর নিজেদের শেষ ম্যাচে স্বাগিতক নেপালের মুখোমুখি হবে জেমি ডে’র শিষ্যরা। ফাইনালে যাওয়ার সম্ভাবনা কিছুটা হলেও রয়েছে চার পয়েন্ট পাওয়া বাংলাদেশের সামনে। তবে অনেক হিসেব কষতে হবে তাদের। শেষ ম্যাচে শুধু জয় নয়, অন্য ম্যাচের ফলাফলের দিকেও তাকিয়ে থাকতে হবে তাদের। কারন ভুটানিজরা দুই ম্যাচের দু’টিতেই জয় তুলে নিয়ে আছে সবার উপরে।

এদিন ম্যাচ শুরুর ১১ মিনিটেই এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। গোলের নায়ক মাহবুবুর রহমান সুফিল। ডানপ্রান্ত দিয়ে সাদ উদ্দিনের মাইনাসে বক্সের সামনে থাকা সুফিল আলতো টোকা দিলে সামনে থাকা লক্সান ডিফেন্ডারের পায়ে লেগে বল জালে প্রবেশ করে (১-০)। উৎসবে মেতে উঠা লাল-সবুজ জার্সীধারীরা ৩৪ মিনিটে আরো একটি পরিকল্পিত আক্রমণ রচনা করেছিল। কিন্তু তাদেরকে হতাশ করেন লঙ্কান গোলরক্ষক সুজন পেরেরা। ডান দিক থেকে সুফিলের ক্রসে সাদ উদ্দিনের নেয়া জোড়ালো ঝাপিয়ে পড়ে রক্ষা করেন। প্রথমার্ধের অতিরিক্ত সময়ে প্রতিপক্ষ দলের ফরোয়ার্ড নাভীন নিকোলাস ব্যাকভলি করেছিলেন, তবে সতর্ক থাকায় গোলরক্ষক আনিসুরের চোখ ফাকি দিতে পারেননি। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকেই বিশ্রামে যায় জেমির শিষ্যরা।

দ্বিতীয়ার্ধেও গোল ব্যবধান বাড়ানোর অনেক সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ফরোয়ার্ডদের ব্যর্থতায় ব্যবধান আর বাড়েনি। ফলে শেষ পর্যন্ত একমাত্র গোলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে তারা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন