ঢাকা রোববার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ০৯ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

অম্ল-মধুময় ফেরা সাকিবের

ফয়সাল আমীন, সিলেট অফিস : | প্রকাশের সময় : ১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০১ এএম

ভারত বধে অনন্য অবদান রাখা বাংলাদেশ অন‚র্ধ্ব-১৯ দলের ক্রিকেটার, সিলেটের বালাগঞ্জের কৃতিসন্তান সাকিব বিশ্বজয় করে প্রথমবারের মতো পা রাখলো সিলেটে। গতকাল দুপুর দেড়টায় সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে বাংলাদেশ বিমানের একটি ফ্লাইটে এসে পৌঁছেন সাকিব। এসময় তাকে বরণ করতে সেখানে উপস্থিত হন সিলেট-৩ আসনের এমপি মাহমুদুস সামাদ চৌধুরী কয়েস। উপস্থিত ছিলেন সাকিবের বাবা গৌস আলী ও মা সেলিনা পারভিনসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্য, আত্মীয়-স্বজন এবং ভক্তবৃন্দ। এসময় সাকিবকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন উপস্থিত সবাই।

এসময় বিমানবন্দরে সৃষ্টি হয় আনন্দঘন পরিবেশের। অনুভ‚তি প্রকাশ করতে গিয়ে সাকিব বলেন, ‘সত্যি একটি অসাধারণ অনুভ‚তি। আমরা ভারতকে না হারালে বুঝতে পারতাম না যে- দেশের মানুষ ক্রিকেটারদের এতো ভালোবাসেন।’ আগামীর স্বপ্নের কথা বলতে গিয়ে সাকিব বলেন, ‘প্রতিটি ক্রিকেটারই চায় নিজের অসাধারণ নৈপুন্য দিয়ে দেশের পতাকাকে বিশ্বের মানচিত্রে তুলে ধরতে। আমারও স্বপ্ন সেরকম। আমি এবং আমার সহযোদ্ধারা নিজেদেরকে পরিণত করে দেশের ক্রিকেটকে বিশ্বদরবারে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে চাই।’ বিমানবন্দর থেকে সাবিক চলে যান সিলেট নগরীর পীরমহলাস্থা তার চাচার বাসায়। সেখানে সাকিবের আগমন উপলক্ষ্যে কেক কাটা হয় এবং এবং তাকে জানানো হয় ফুলেল শুভেচ্ছা।

সাকিবের কৃতিত্বে সবাই আনন্দিত, আবেগতাড়িত। পরিবারের মানুষ, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু-শুভাকাঙ্খীসহ পুরো সিলেটবাসী। কিন্তু তার এই আনন্দঘন মুহুর্তে তার পাশে থাকলেন না সিলেটে নামের পাশে ‘বিশিষ্ট ক্রীড়ানুরাগী’ বা ‘ক্রীড়াব্যক্তিত্ব’ শব্দ থাকা কেউ! ছিলেন না কোনো ক্রীড়া সংস্থা-সংগঠনের নেতৃবৃন্দও। এতে অনেকেই হতাশা ও আক্ষেপ প্রকাশ করেছেন। মর্মাহত হয়েছেন সাকিবের মা-বাবাও। বিমানবন্দরে তারা সাংবাদিকদের বলেন, ‘সাকিব এখন শুধু আমাদের বা বালাগঞ্জের গর্ব না, পুরো সিলেটবাসীর রত্ন। তাকে বরণ করে নিতে সিলেটের কোনো ক্রীড়া সংস্থা বা ক্রিকেট সংগঠনের কেউ বিমানবন্দরে না আসায় আমরা হতাশ হয়েছি।’ এ বিষয়ে সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট ডিস্ট্রিক্ট ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (ডিএফএ) সভাপতি মাহিউদ্দিন আহমদ সেলিম বলেন, ‘আমারা আসলে বিষয়টা জানি না। জানলে অবশ্যই যেতাম। তবে সাকিব সিলেটে আসার পর তার সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ হয়েছে। তাকে বলা হয়েছে তার সুবিধামতো একটি তারিখ জানাতে। তার দেয়া তারিখ অনুযায়ী-ই সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে সাবিকবে সংবর্ধনা প্রদান করা হবে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন