ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৪ আগস্ট ২০২০, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

সুন্দরগঞ্জে কবিরাজী চিকিৎসার নামে ৩ শিশু ধর্ষণ, ধর্ষক কবিরাজ গ্রেফতার

সুন্দরগঞ্জ (গাইবান্ধা) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ জুন, ২০২০, ৫:১৮ পিএম

গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে কবিরাজী চিকিৎসার নামে পালাক্রমে ৩ শিশুকে ধর্ষণ করেছে এক কবিরাজ। পুলিশ নরপশু ভন্ড কবিরাজকে গ্রেফতার করেছে।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার পশ্চিম দুলাল গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের ছেলে আতোয়ার রহমান দীর্ঘ দিন থেকে প্যারালাইসিস রোগে ভূগছিলেন। গত এক মাস থেকে ধর্মপুর গ্রামের মৃত আঃ কাদেরের ছেলে হাতুরে কবিরাজ ফারুক মিয়া (৩৬) আতোয়ারের বাড়িতে অবস্থান করে ঝাড়-ফুঁক দিয়ে তার চিকিৎসা করছিলেন। ভন্ড কবিরাজের কথামত রাত ও দিনে ঝাড়-ফুঁকের সময় ৩ কন্যা শিশুকে নাঁচা লাগতো রোগী ও কবিরাজের চারপাশে। এভাবে চিকিৎসা করতে করতে কবিরাজী দ্বারা মানুষের অঙ্গহানী ও বোবা বানানো যায় বলে ওই বাড়ির লোকদের মনে ভয়-ভীতির সৃষ্টি করেন কবিরাজ। এই ভয়কে পুঁজি করে কবিরাজ ফারুক পালাক্রমে নাচনী ওই ৩ শিশুকে ধর্ষণ করতে থাকে। কাউকে বললে তাদের জীবনে বিয়ে হবেনা এবং বিয়ে হলেও ৭ জন স্বামী হবে বলে হুমকী দেন কবিরাজ। এরপরও এক শিশু তার পরিবারের কাছে কবিরাজের কূকীর্তির কথা ফাঁস করে দেন। অভিভাবকরা বিষয়টি নিয়ে চিন্তা ভাবনা করে শুক্রবার রাতে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে থানায় মামলা করেন। পুলিশ রাতেই অভিযান চালিয়ে ভন্ড কবিরাজকে গ্রেফতার করেন। থানার ওসি আব্দুল্লাহিল জামান গ্রেফতারের সত্যতা স্বীকার করে জানান, শনিবার ধর্ষক কবিরাজকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে এবং ওই ৩ শিশুকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য গাইবান্ধা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন