ঢাকা, মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট ২০২০, ২৭ শ্রাবণ ১৪২৭, ২০ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

সাউদাম্পটন পথ দেখালো বিসিবিকে

কক্সবাজার, বিকেএসপিতে ক্রিকেট ফেরানোর ভাবনা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ জুলাই, ২০২০, ১২:০১ এএম

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে চার মাস হতে চলল বন্ধ দেশের ক্রিকেট। পরিস্থিতির উন্নতির কোনো আভাস নেই। বেড়েই চলেছে আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা। পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে মাঠে ক্রিকেট ফেরানোর পথ খুঁজছে দেশের ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিসিবি।
বোর্ড পরিচালক ও ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম) প্রধান কাজী ইনাম আহমেদ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, সম্ভাব্য ভেন্যু হিসেবে কক্সবাজার ও বিকেএসপির কথা ভাবছেন তারা, ‘কোয়াব এবং জাতীয় দল ও প্রথম শ্রেণির অনেক ক্রিকেটারের সঙ্গে (অনলাইনে) বসেছিলাম। আমরা ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ মাঠে ফেরানো নিয়ে কথা বলেছি। এই মুহ‚র্তে আমরা কোনো তারিখ নিশ্চিত করতে পারছি না।’
সিসিডিএম প্রধান যেদিন বিবৃতি পাঠালেন, সেদিনই ইংল্যান্ডের সাউদাম্পটনে চার মাসের স্থবিরতা কাটিয়ে ফিরেছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট। দর্শকশূন্য মাঠ ও জৈব সুরক্ষিত পরিবেশে শুরু হয়েছে ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের টেস্ট। সাউদাম্পটনের মাঠ যে কারণে বেছে নিয়েছে ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (ইসিবি), সেই একই কারণে বিসিবি ভাবছে কক্সবাজার ও সাভারের বিকেএসপির কথা। কক্সবাজারে মাঠ সংলগ্ন হোটেল আছে। বিকেএসপির সুরক্ষিত ক্যাম্পাসে আছে আবাসন সুবিধা। ইনাম আহমেদ তাই জানিয়েছেন ঘরোয়া ক্রিকেট ফেরাতে এই দুই ভেন্যু আছে তাদের ভাবনায়, ‘কোয়াব এবং জাতীয় দল ও প্রথম শ্রেণির অনেক ক্রিকেটারের সঙ্গে (অনলাইনে এক সভায়) গতকাল বসেছিলাম। আমরা ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ মাঠে ফেরানো নিয়ে কথা বলেছি। এই মুহূর্তে আমরা কোনো তারিখ নিশ্চিত করতে পারছি না।’
গত ১৫ ও ১৬ মার্চ এক রাউন্ড খেলা হয়েই এবারের প্রিমিয়ার লিগ স্থগিত হয়ে গেছে করোনাভাইরাসের প্রকোপে। কবে খেলা শুরু হবে এর কোনো ঠিক নেই। তবে সিসিডিএম প্রধান চান, ক্লাব ও খেলোয়াড়রা তৈরি থাকুক। যেন সংক্ষিপ্ত নোটিশে শুরু করা যায় লিগ, ‘খেলোয়াড়দের ফিটনেস ধরে রাখা নিশ্চিত করতে ক্লাবগুলো যেন তাদের সঙ্গে ভার্চুয়ালি যোগাযোগ রক্ষা করে, এটা চাই। যেন ১৫ দিনের নোটিশে খেলা শুরু করতে পারে, এমনভাবে ক্লাবগুলোর তৈরি থাকা উচিত। আমরা আশা করি, যখন দেশে ক্রিকেট ফিরবে আমরা প্রিমিয়ার লিগ মাঠে ফেরাব।’
চলতি বছরে জাতীয় দলের মাঠে নামার সম্ভাবনা ফিকে হয়ে আসছে। বাতিল হয়ে গেছে বেশ কিছু সিরিজ। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিতের শঙ্কা ক্রমেই বাড়ছে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলির এশিয়া কাপ বাতিলের খবর অবশ্য গতকালই উড়িয়ে দিয়েছে আয়োজক পিসিবি। তবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিল হয়ে গেলে চলতি বছর আর কোনো খেলা নেই বাংলাদেশের।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন