ঢাকা সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬ আশ্বিন ১৪২৭, ০৩ সফর ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

৩ গরু বিক্রেতাকে জরিমানা

স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘণ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ জুলাই, ২০২০, ১২:০৩ এএম

রাজধানীর ভাটারা সাইদনগরের কোরবানির পশুর হাটে স্বাস্থ্যবিধি পরিদর্শনে গিয়েছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম। মেয়রের হাট পরিদর্শনে আসার খবর আগেই পৌঁছে গিয়েছিল, এ কারণে মোটামুটি সবাই স্বাস্থ্যবিধি মেনেই চলছিলেন। মাইকেও সার্বক্ষণিক ঘোষণা করা হয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা বিষয়ক নির্দেশনাগুলো।
কিন্তু মেয়র হাট থেকে চলে যাবার পরপরই অনেকেই ভুলে যায় স্বাস্থ্যবিধির কথা। পশু বিক্রেতাদের অনেকেই মুখ থেকে মাস্ক খুলে রেখে দেন। মাস্ক ছাড়াই চলে হাটে ঘোরাঘুরি করেন, ক্রেতাদের সঙ্গে দরদামও করেন।
এ পরিস্থিতিতে হঠাৎ উপস্থিত ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাসির উদ্দিন মাহামুদের নেতৃত্বাধীন একটি টিম। তাৎক্ষণিক বিক্রেতারা বুঝে উঠতেই পারেনি যে হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা শুরু হয়েছে। হাটের গেটের সামনেই শহীদ নামের এক গরু বিক্রেতা মুখে মাস্ক ছাড়াই এদিক-সেদিক ঘুরে বেড়াচ্ছেন এবং অন্যদের সঙ্গে গল্প করছেন। চুয়াডাঙ্গা থেকে গরু নিয়ে আজই সকালে এই হাটে এসেছেন তিনি। মুখে মাস্ক না থাকায় তাকে ৫০০ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পাশেই লিটন নামের আরেক গরু বিক্রেতা মুখে মাস্ক না পরে গামছা দিয়ে ঢেকে রেখেছেন। তিনি গরু নিয়ে কুষ্টিয়া থেকে এসেছেন। তাকেও জরিমানা গুনতে হয় ৫০০ টাকা।
ততক্ষণে অনেকেই জেনে গেছেন হাটে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হচ্ছে। খবর জানা মাত্রই দৌড়ে হাটের গেট দিয়ে বের হয়ে যাচ্ছিলেন মুকুল নামের একজন গরু বিক্রেতা। কিন্তু দৌড়েও রক্ষা পেলেন না। ম্যাজিস্ট্রেটের চোখে পড়ায় অন্যদের দ্রুত নির্দেশ দেন তাকে ধরা আনতে। ধরা খেয়ে নিজের ভুল স্বীকার করেন মুকুল। কিন্তু কোনো ছাড় পেলেন না। তাকেও ৫০০ টাকা জরিমানা করা হয়।
অভিযানের বিষয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাসির উদ্দিন মাহামুদ সাংবাদিকদের বলেন, এই তিনজন গরু বিক্রেতার মুখে মাস্ক না থাকায় প্রত্যেককে ৫০০ টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। হাটে আমাদের অভিযান ঈদ পর্যন্ত চলবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন