ঢাকা শনিবার, ১৬ জানুয়ারি ২০২১, ০২ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউল সানী ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

কেন দুই হাতে ঘড়ি পরতেন ম্যারাডোনা?

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ৯:৪০ এএম | আপডেট : ১২:৪৬ পিএম, ২৬ নভেম্বর, ২০২০

৬০ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ডিয়েগো ম্যারাডোনা মারা গেছেন। তবে এর আগে বেশ কয়েক দিন অসুস্থ ছিলেন ফুটবলের এই জাদুকর। বুধবার (২৫ নভেম্বর) আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের এক প্রতিবেদনে তার মৃত্যুর বিষয়টি জানানো হয়েছে।

ব্যক্তি জীবনে যেমন সাফল্যের শিখরে পৌঁছেছেন তেমনি বিতর্ক তার কখনো পিছু ছাড়েনি। প্রায়ই থাকতেন খবরের শিরোনামে। তবে শেষ কিছুদিন অসুস্থতা নিয়েই বার বার শিরোনামে এসেছিলেন তিনি। তার একটি অদ্ভুত শখও ছিল। ম্যারাডোনার একইসঙ্গে দুই হাতে দুই ঘড়ি পরতেন। কিন্তু কেন?

ব্রিটিশ দৈনিক ডেইলি সান জানিয়েছে, একটি ঘড়িতে থাকতো তার জন্মস্থান আর্জেন্টিনার সময় আর অন্যটিতে তিনি যেখানে অবস্থান করতেন তার স্থানীয় সময়।

গত মাসে ম্যারাডোনার মস্তিস্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। তখন তার আইনজীবী জানিয়েছিলেন, মদে আসক্তির চিকিৎসা করাতে হবে তার। এরপর চিকিৎসা চললেও সবাইকে কাঁদিয়ে না ফেরার দেশে পাড়ি জমালেন তিনি। মৃত্যুর আগে তিনি আর্জেন্টিনার ক্লাব জিমনাসিয়ার কোচ ছিলেন।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে আর্জেন্টিনার হয়ে ম্যারাডোনার ৯১ খেলায় ৩৪ গোল করেন। তিনি চারটি ফিফা বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে ছিল ১৯৮৬ বিশ্বকাপ, যেখানে তিনি আর্জেন্টিনার অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করেছেন এবং দলকে বিশ্বকাপ জয়ে নেতৃত্ব দেন। প্রতিযোগিতার সেরা খেলোয়াড় হিসেবে স্বর্ণপদক জেতেন।

পেশাদার ক্যারিয়ারে ম্যারাডোনা আর্জেন্টিনা জুনিয়র্স, বোকা জুনিয়র্স, বার্সেলোনা, নাপোলি, সেভিয়া এবং নিওয়েলস ওল্ড বয়েজের হয়ে খেলেছেন। ম্যানেজার হিসেবে খুব কম অভিজ্ঞতাসম্পন্ন হওয়া সত্ত্বেও ২০০৮ সালের নভেম্বরে আর্জেন্টিনা জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব দেওয়া হয় ম্যারাডোনাকে। ২০১০ বিশ্বকাপের পর চুক্তি শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি আঠারো মাস এই দায়িত্বে ছিলেন।

১৯৮৬ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে প্রায় একাই শিরোপা জেতানো ছাড়াও ইতালিয়ান ক্লাব নাপোলির হয়ে স্মরণীয় মৌসুম উপহার দিয়েছেন ম্যারাডোনা। নাপোলিকে দুবার সিরি ‘আ’ ও উয়েফা কাপ জিতিয়েছেন ওই গোল্ডেন বয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (5)
Yasin Arafat Chowdhury ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ৩:৪৮ পিএম says : 0
ফুটবল যতদিন থাকবে,ম্যারাডোনা ততদিন সবার অন্তরে বেঁচে থাকবে।
Total Reply(0)
MD Mustyfa Kamal ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ৩:৪৬ পিএম says : 0
বিভিন্ন মানুষের বিভিন্ন শখ থাকে
Total Reply(0)
Prokash Das Turjo ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ৩:৪৯ পিএম says : 0
আপনি মরেও বেঁচে থাকবেন কোটি কোটি মানুষের হৃদয়ে।। ওপারে ভালো থাকবেন ফুটবলের রাজা
Total Reply(0)
হেদায়েতুর রহমান ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ৩:৪৯ পিএম says : 0
বিষয়টা আমার কাছে ভালো লেগেছে
Total Reply(0)
Majedur Rahman ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ৩:৫০ পিএম says : 0
দুঃখজনক!! আরেকজন ম্যারাডেনা আর কখনই পৃথিবীতে আসবেনা। তাঁর চিরপ্রস্থান মানেই ফুটবলের এক গৌরবোজ্জ্বল ইতিহাসের পরিসমাপ্তি!!
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন