ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯ আশ্বিন ১৪২৭, ০৬ সফর ১৪৪২ হিজরী

অভ্যন্তরীণ

উপবৃত্তির টাকা বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ

প্রকাশের সময় : ২৯ আগস্ট, ২০১৬, ১২:০০ এএম

নীলফামারী জেলা সংবাদদাতা

নীলফামারীর ডোমার উপজেলার চিলাহাটি মার্চেন্টস সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে উপবৃত্তির টাকা বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ব্যাপারে উপজেলা শিক্ষা অফিসে লিখিত অভিযোগ করেছেন ম্যানেজিং কমিটির সদস্যরা। অভিযোগ মতে জানা গেছে, ওই বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক শাহ্ এরশাদুল হক ব্যাপক অনিয়মের মাধ্যমে এবার শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তির টাকা বিতরণ করেছেন। একই শিক্ষার্থীর নামে দুবার টাকা উত্তোলন, উপবৃত্তির টাকা উত্তোলন না করলেও উত্তোলন দেখানো, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী পরীক্ষায় ফেল করে একই শ্রেণিতে থাকা শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান না করার নিয়ম থাকলেও ৪০ জনকে উপবৃত্তি প্রদান দেখানো হয়েছে। উপবৃত্তির তালিকায় ভুয়া নাম বসিয়ে টাকা উত্তোলন, গড়ে প্রতিদিন ৫০% থেকে ৬০% শিক্ষার্থী উপস্থিত থাকলেও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি হাজিরা খাতায় বাড়িয়ে দেখানোসহ নানা অনিয়ম করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের চাহিদাপত্র এবং বিতরণ তালিকার মধ্যে যথেষ্ট গরমিল রয়েছে বলে জানা যায়। এ ছাড়া বিভিন্ন খরচের অজুহাতে উপবৃত্তিপ্রাপ্ত শিক্ষার্থীর অভিভাবকের কাছ থেকে ৩০ থেকে ৫০ টাকা করে উৎকোচ নেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন অনেক অভিভাবক। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন অভিভাবক জানান, তাদের সন্তানের নাম দুই জায়গায় দেখানো হয়েছে। এ ছাড়াও বিভিন্ন শ্রেণিতে বিশেষ করে শিশু শ্রেণির অনেক শিক্ষার্থীর অভিভাবক চাকরিগত কিংবা অন্যান্য কারণে সন্তানদের অন্যত্র ভর্তি করায় উপবৃত্তি গ্রহণ করতে না আসলেও তাদের টাকা ফেরত দেয়া হয়নি। ওই বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য মোতালেব হোসেন উপবৃত্তি বিতরণে অনিয়মের অভিযোগ এনে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসে লিখিত অভিযোগ করেছেন। প্রধান শিক্ষক শাহ্ এরশাদুল হক তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, একটি মহল তাকে হেয় করার জন্য অপপ্রচার চালাচ্ছেন। এ ব্যাপারে সহকারী শিক্ষা অফিসার রকিবুল হাসান ম-লের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, উপবৃত্তি প্রদানে অনিয়মের অভিযোগ তদন্তে সত্য প্রমাণিত হলে সংশ্লিষ্ট প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন