মঙ্গলবার, ০৩ আগস্ট ২০২১, ১৯ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৩ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

নারীদের আইডি হ্যাক করে প্রতারণা

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ জুন, ২০২১, ২:৫০ পিএম

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের প্রবাসী নারীদের টার্গেট করে প্রতারণা করে আসছিলেন এক তরুণ। ইউরোপের বিভিন্ন দেশে বসবাসরত প্রবাসী নারীদের সঙ্গে ফেসবুকের বিভিন্ন গ্রুপের মাধ্যমে পরিচিত হতেন তিনি। এরপর ফেসবুকের মতো দেখতে হুবহু নকল আরেকটি ওয়েবসাইট তৈরি করে সেই লিংক ইনবক্সে শেয়ার করে বলতেন, তিনি আমেরিকায় একটি ফটো কনটেস্টে অংশগ্রহণ করেছেন। তার একটি ভোট প্রয়োজন।

তাকে ভোট দেয়ার জন্য ওই লিংকে ক্লিক করে প্রবেশ করতে চাইলে নতুন করে ফেসবুকের আইডি ও পাসওয়ার্ড দিতে হতো। আর এভাবে নারীদের আইডি হ্যাক করে নিতেন ২০ বছর বয়সী ওই তরুণ।

এরপর নারীদের সেই আইডি ব্যবহার করে শুরু করতেন প্রতারণা। একই কায়াদায় নতুন আইডি হ্যাকের পাশাপাশি নারীদের আইডি ব্যবহার করে বাংলাদেশে থাকা তাদের আত্মীয়-স্বজনদের কাছে অন্য আত্মীয়ের সহযোগিতার জন্য চাইতেন টাকা। এভাবেই প্রবাসী নারীদের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন তিনি। বিভিন্ন নামের ফেসবুক গ্রুপে যুক্ত হয়ে ফিশিং লিংক ব্যবহার করে প্রবাসী নারীদের সঙ্গে প্রতারণার অভিযোগে ২০ বছর বয়সী মামুন মিয়াকে সুনামগঞ্জ জেলার হাওর এলাকা থেকে গ্রেফতার করে গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সাইবার অ্যান্ড স্পেশাল ক্রাইম বিভাগ।

বুধবার (২৩ জুন) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।


তিনি বলেন, মামুন মিয়া এসএসসি পাস। এই তরুণ নিজেকে অপ্রতিরোধ্য ঘোষণা করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহার করে বিভিন্ন নারীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। স্থানীয় একটি ট্রেনিং সেন্টার থেকে আইটির ওপর একটি কোর্স করে প্রতারণা শেখেন তিনি।


অভিনব কায়দায় প্রতারণার পাশাপাশি ভুক্তভোগী নারীদের বলতেন, তার প্রতারণার কৌশল কেউ প্রমাণ করতে পারবে না। কেউ তাকে ধরতে পারবে না বলে চ্যালেঞ্জ দিতেন মামুন। তাকে ধরতে পারলে ১ হাজার ডলার পুরস্কার দেয়ার ঘোষণাও দেন তিনি।

এর আগেও ফেসবুক হ্যাকের অভিযোগে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছিল মানুনের বিরুদ্ধে। এবার প্রবাসী নারীদের ফেসবুক আইডি হ্যাকের অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

প্রতারণার মাধ্যমে আয় করা টাকা দিয়ে মামুন বিলাসবহুল জীবনযাপন করতেন জানিয়ে হাফিজ আক্তার বলেন, মামুনের বয়স কম হলেও তিনি প্রতারণায় সিদ্ধহস্ত। এরই মধ্যে সে বহু নারীদের আইডি হ্যাক করে বিপুল পরিমাণ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। দেশের একটি প্রত্যন্ত অঞ্চলে বসবাস করলেও মামুন ব্যবহার করতেন দামি মোটরসাইকেল এবং আইফোন ম্যাক্স মডেলের মোবাইল ফোন। মামুনকে গ্রেফতারের সময়ে এগুলো জব্দ করা হয়েছে।

আইডি হ্যাক করার পরে মানুষ ভুক্তভোগী নারীদের ছবি ব্যবহার করে ব্লাকমেইল করতেন কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আমরা বেশ কিছু অভিযোগ পেয়েছি। সে এখন দুই দিনের রিমান্ডে আছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আর আমরা তার মোবাইলটি ফরেনসিক টেস্ট করতে পাঠিয়েছি। রিপোর্ট এলে বিস্তারিত বলা যাবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
mohammad nayoum ২৩ জুন, ২০২১, ৫:৪০ পিএম says : 0
Every thing ok
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন