মঙ্গলবার, ১৬ আগস্ট ২০২২, ০১ ভাদ্র ১৪২৯, ১৭ মুহাররম ১৪৪৪

সারা বাংলার খবর

গাজীপুরে বকেয়া বেতনের দাবিতে সড়ক অবরোধ শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে আহত-১০

গাজীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ জুলাই, ২০২১, ৭:১৪ পিএম | আপডেট : ৮:১৪ পিএম, ১৮ জুলাই, ২০২১

গাজীপুরে বকেয়া বেতন পরিশোধসহ বিভিন্ন দাবিতে গতকাল রবিবারও কর্মবিরতি ও বিক্ষোভ করেছে স্টাইল ক্র্যাফ্ট পোশাক কারখানার শ্রমিক-কর্মচারীরা। বিক্ষোভকারীরা সকাল ৮টা থেকে বিকেল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত ঢাকা-গাজীপুর সড়ক অবরোধ রাখে। এতে সকল প্রকার যানবাহন চলাচল বন্ধ থাকে। বিকেল পৌণে ৫টার দিকে পুলিশ বিক্ষোভকারীদের সড়ক থেকে সরিয়ে দিতে গেলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এক পর্যায়ে পুলিশের সাথে বিক্ষোভকারীদের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংর্ঘষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় কয়েকজন পুলিশসহ কমপক্ষে ১০জন আহত হয়েছে। আহতদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের ইন্সপেক্টর সমীর চন্দ্র সূত্রধর জানান, মহানগরীর বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের (ব্রি) সামনে লক্ষীপুরা এলাকায় অবস্থিত স্টাইল ক্র্যাফ্ট পোশাক কারখানার শ্রমিক-কর্মচারীরা রবিবার সকাল ৮টার দিকে কারখানার গেইটে এসে জড়ো ৬ষ্ঠ দিনের মতো কর্মবিরতি শুরু করে। এসময় তারা ৩ বছরের বকেয়া বেতন পরিশোধসহ বিভিন্ন দাবিতে বিক্ষোভ করতে থাকে। একপর্যায়ে কারখানার সামনে ঢাকা-গাজীপুর সড়ক অবরোধ সৃষ্টি করে বিক্ষোভ করতে থাকে। খবর পেয়ে শিল্প ও থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে অবরোধকারীদের সড়কের উপর থেকে সরিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলেও তারা অবরোধ তুলে নেয় নি। ফলে অবরোধের কারণে সড়কের উভয় দিকে সকল প্রকার চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিকেল সাড়ে চারটার দিকে পুলিশ ফের বিক্ষোভকারীদের ওই সড়ক থেকে সরিয়ে চেষ্টা করলে তারা পুলিশের উপর ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে। এসময় বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ ১৫/১৬ রাউন্ড রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে ছত্রভঙ্গ করে দেয়। এতে বিক্ষোভকারীরা সড়ক থেকে সরে গেলে বিকেল ৫টার দিকে যানচলাচল স্বাভাবিক হয়।
জিএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনার জাকির হাসান জানান, শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন পরিশোধের ব্যাপারে ঢাকায় বিজিএমইএ’র সঙ্গে কারখানা কর্তৃপক্ষের আলোচনা করা হচ্ছে। অল্প সময়ের মধ্যেই এ সমস্যার সমাধান হবে বলে তিনি আশা করছেন। এ ঘটনায় কারখানার অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন