বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

চতুর্থ দফার ইউপি নির্বাচনে সংঘাত-সংঘর্ষ ও গুলি

ঠাকুরগাঁওয়ে পুলিশের গুলিতে নিহত ১ সিরাজদিখানে গুলিবিদ্ধ ৩ # আহত অর্ধশতাধিক : ১৫ কেন্দ্রের ভোট স্থগিত # নির্বাচন আনন্দমুখর পরিবেশে সুষ্ঠু হয়েছে -ইসি সচিব

ইনকিলাব রিপোর্ট | প্রকাশের সময় : ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ১২:০০ এএম

ঠাকুরগাঁওয়ে কেন্দ্রে দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের সংঘর্ষ থামাতে পুলিশের গুলিতে নিহত হয় ১ জন। মুন্সিগঞ্জের সিরাজদিখানে জৈনসার ইউনিয়নে নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে পুলিশ-আনসারের ছোড়া গুলিতে এক কিশোরসহ তিনজন আহত হয়েছেন।

এছাড়া বিচ্ছিন্ন সহিংসতা, গুলি ও ককটেল বিস্ফোরণ, কেন্দ্র দখল, ব্যালটে সিলমারাসহ নানান অনিয়মের মধ্য দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের চতুর্থধাপের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। এ ধাপে সারা দেশে ৮৩৬টি ইউপিতে ভোট হয়েছে। বিভিন্ন স্থানে সংঘাত-সংঘর্ষ ছাড়া কিছু কেন্দ্রে ভোটগ্রহণের সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থকদের দ্বারা কেন্দ্র দখলের পাশাপাশি প্রকাশ্যে নৌকা প্রতীকে সিলমারার অভিযোগও পাওয়া গেছে। সংঘাত-সংঘর্ষে অর্ধশতাধিক আহত হয়েছেন। এর মধ্যে মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলার ইশিবপুর ইউনিয়নে ভোট চলাকালে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ছাড়া কেন্দ্র দখল ও ব্যালট ছিনতাইয়ের ঘটনায় ১৫টি কেন্দ্রের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে।
এদিকে সারা দেশে ৪র্থ ধাপের নির্বাচন সুষ্ঠু ও আনন্দমুখর পরিবেশে হয়েছে। এমনটাই বলেছেন, ইসি সচিব হুমায়ুন কবীর খোন্দকার। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের মিডিয়া সেন্টারে গতকাল সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।
গতকাল সকাল ৮টায় ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। ১ কোটি ৬২ লাখ ভোটারের ৮৩৬টি ইউপির মধ্যে ৭৯৮টিতে ব্যালট পেপারে এবং ৩৮টিতে ইভিএমে ভোট নেওয়া হয়।
আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠানো রিপোর্টে অনুযায়ী, ঠাকুরগাঁওয়ে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ফলাফলকে কেন্দ্র করে রাস্তা অবরোধ করায় পুলিশের গুলিতে হামিদুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন। গতকাল রোববার রাত ৮টার দিকে সদর উপজেলার রুহিয়া থানার রাজাগাঁও ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। নিহত হামিদুল ইসলাম রাজাগাঁও ইউনিয়নের আসাননগর গ্রামের মৃত তছির উদ্দীনের ছেলে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার রুহিয়া থানার রাজাগাঁও ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের আসাননগর কাদেরিয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসা ভোটকেন্দ্রের ফলাফলকে কেন্দ্র করে রাত ৮টার দিকে রাস্তা অবরোধ করেন স্থানীয়রা। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ গুলি ছুড়লে ঘটনাস্থলেই একজন নিহত হন। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন।
রুহিয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চিত্ত রঞ্জন ঢাকা পোস্টকে বলেন, ঘটনাস্থলেই একজন মারা গেছেন। প্রশাসনের লোকজন সেখানে গেছেন। বিস্তারিত পরে জানানো হবে। আহতরা বর্তমানে ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে জৈনসার ইউনিয়নে নির্বাচনী ফলাফল ঘোষণাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত পরিস্থিতিতে পুলিশ-আনসারের ছোড়া গুলিতে এক কিশোরসহ তিনজন আহত হয়েছেন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে। গতকাল রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে জৈনসার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। গুলি ছোড়ার কারণ হিসেবে পুলিশ ও স্থানীয়দের পাল্টাপাল্টি বক্তব্য পাওয়া গেছে। গুলিবিদ্ধরা হলেন- জৈনসারের কাঁঠালতলী এলাকার জিয়াউল হকের ছেলে জামির, একই এলাকার জয়নাল শেখের ছেলে জাহাঙ্গীর ও পার্শ্ববর্তী খিলগাঁও এলাকার বারেক ব্যাপারীর ছেলে রাসেল।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, কেন্দ্রটিতে ভোট গণনা শেষে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ফল প্রকাশ না করেই সংশ্লিষ্টরা কেন্দ্র থেকে চলে যাচ্ছিল। এ সময় স্থানীয় ভোটাররা তাদের বাধা দিলে পুলিশ রাবার বুলেট ছোড়ে। এতে তিনজন গুলিবিদ্ধ হন। তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ঢামেকে পাঠানো হয়।
এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সিহাব আল মশিউর বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে আহত গুলিবিদ্ধ তিনজনকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাদের শরীরের বিভিন্ন অংশে ছোড়া গুলির আঘাত ছিল। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তিনজনকে ঢাকা মেডিকেলে রেফার করা হয়।
চট্টগ্রামে নৌকার সমর্থকদের কেন্দ্র দখল, ব্যালট ছিনতাই, প্রতিদ্ব›দ্বী প্রার্থীকে জিম্মি, অপহরণের চেষ্টা, ভোট দিতে না দেয়া, ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়াসহ নানা ঘটনার মধ্যদিয়ে চট্টগ্রামের তিনটি উপজেলার ২৭টি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ হয়েছে। ব্যালট ছিনতাই হওয়ায় পটিয়া ও লোহাগাড়ায় চারটি ভোটকেন্দ্রে ভোটগ্রহণ বন্ধ করে দেয়া হয়। পটিয়ায় নিজের ভোট দিতে না পেরে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান স্বতন্ত্র এক চেয়ারম্যান প্রার্থী। কর্ণফুলীতে ভোটের কয়েক ঘণ্টা আগে মারা যান একজন মেম্বার প্রার্থী। নৌকার সমর্থকদের কেন্দ্র দখলের প্রতিবাদে এ উপজেলার চরলক্ষ্যা ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মোহাম্মদ আলী নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন।
পটিয়া উপজেলা সংবাদদাতা জানানÑ পটিয়ায় অনিয়ম, কারচুপি ও সংঘর্ষের মধ্যদিয়ে ভোটগ্রহণ হয়েছে। এ সময় ব্যালট ছিনতাই, কেন্দ্র দখল, স্বতন্ত্র প্রার্থীকে গৃহবন্দি, অপর প্রার্থীকে অপহরণের চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ভোটে অনিয়মের অভিযোগে দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী ভোট বর্জন করেছেন। সকাল ১০টায় উপজেলার ছনহরা ইউনিয়নের ধাউরডেঙ্গা সারদা চরণ উচ্চ বিদ্যালয় ও ফনিন্দ্র-মনিন্দ্র পাঠাগার কেন্দ্রসহ দুইটি ভোট কেন্দ্রে ব্যালট ছিনতাই এর ঘটনা ঘটেছে। নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা ব্যালট ছিনতাই করার সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারস প্রতীকের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী নৌকা প্রতীকের সামশুল আলমের পুত্র মোহাম্মদ রাসেল (৩৫) ও সাকিল (২৫) নামের ২ জন আহত হয়। ২টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ স্থগিত রাখা হয়েছে।
উপজেলার হাবিলাস দ্বীপ ইউনিয়নে ভোট শুরু হওয়ার পর নৌকার সমর্থকরা কেন্দ্র দখল করে নৌকার পক্ষে ভোট নেওয়ার অভিযোগ করেছে স্বতন্ত্র প্রার্থী শফিকুল ইসলাম। ভোটের আগের দিন পুলিশ তার ৩৫ জন সমর্থককে আটক করে। ভোটের দিন প্রতিটি কেন্দ্রে প্রভাব খাটিয়ে নৌকার পক্ষে ভোট নেয়। এমনকি আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন তাকে দীর্ঘক্ষণ গৃহবন্দি রাখে। এর প্রতিবাদে বেলা ১২টায় প্রহসনের ভোট বর্জন করেছে। দুপুর ১১টায় উপজেলার ধলঘাট ইউনিয়নের স্বতন্ত্র প্রার্থী শফিউল ইসলাম বাদশা ধলঘাট স্কুলকেন্দ্রে ভোট দিতে গেলে নৌকা সমর্থকরা তাকে অপহরণের চেষ্টা চালায়। এ সময় বিজিবি তাকে উদ্ধার করে। উপজেলার জিরি ইউনিয়নে সাঁইদাইর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের কেন্দ্র দখলের চেষ্টায় সংঘর্ষ শুরু হলে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। পরে তিনি ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।
ফেনীর সোনাগাজী ও দাগনভ‚ঞা উপজেলার ১৫টি ইউনিয়নে ককটেল বিস্ফোরণ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার মধ্যে দিয়ে সকাল থেকে ভোটগ্রহণ চলে। সোনাগাজীতে স্বরাজপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে তিনজনকে কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। প্রসঙ্গত, এ দুই উপজেলায় ভোট হতে যাওয়া ১৫টি ইউনিয়নের মধ্যে ৬ ইউপিতে বিনাপ্রতিদ্ব›িদ্বতায় নৌকা প্রতীকের আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়েছে।
এদিকে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলা ২নং আখানগর ইউনিয়নের ঝাড়গাঁও রহমানিয়া দাখিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে ব্যালট পেপার ছিনতাইয়ের সময় মেয়ে-বাবাকে আটক করা হয়েছে। এসময় পরিস্থিতি উত্তপ্ত হলে ১৫ রাউন্ড ফাঁকা বুলেট নিক্ষেপ করা হয়। বুলেটের ছড়া লেগে একজন আহত হয়েছেন। এসময় আটক করা হয়, কাবুল (৪৫) ও তার মেয়ে কামরুন নাহার (২৫)। গুলি লেগে আহত হয়েছেন স্থানীয় এলাকাবাসী হোসেন আলী (৩৫)। কাবুল ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে রয়েছেন। এ ঘটনায় ওই কেন্দ্রে প্রায় আধা ঘণ্টা ভোটগ্রহণ বন্ধ ছিল। পরে বিজিবি, র‌্যাব ও প্রশাসন কেন্দ্রে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে।
সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কুমিল্লা আদর্শ সদর উপজেলার ৫ নম্বর ইউনিয়নের শালধর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে কয়েকজন বহিরাগত ব্যক্তি ১০/১৫টি ককটেল ফাটিয়ে কেন্দ্র দখল নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় বিস্ফোরণে সাইফুল ইসলাম নামের এক ভোটার আহত হন। ফলে কিছুক্ষণ ভোটগ্রহণ বন্ধ থাকে।
কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার জালালপুর ইউনিয়ন পরিষদের উত্তর চর পুখিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২ মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের কারণে ঘণ্টা খানেকের জন্য ভোটগ্রহণ বন্ধ হয়ে যায়।
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলায় ইউপি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলাকালে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীর একজন এজেন্টের কাছে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার নাম লেখা টাকার খাম উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় মনিয়ন্দ উত্তর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্রের সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তা অলোক কুমার চক্রবর্তীকে প্রত্যাহার এবং অভিযুক্ত এজেন্টকে ৬ মাসের কারাদÐ দেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।
টাঙ্গাইলের ভ‚য়াপুর উপজেলার নিকরাইল ইউনিয়নে ১০৫নং বঙ্গবন্ধু পূর্ব পুনর্বাসন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে ভোটারদের প্রকাশ্যে সিল দিতে বাধ্য করার অভিযোগ করেন ভোটাররা। কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তা খায়রুল ইসলাম অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করেন।
মুন্সিগঞ্জের সিরজাদিখান উপজেলার বালুরচর ইউনিয়নের খাসকান্দি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে বহিরাগতরা ভোটকেন্দ্রে ঢুকে জোর করে নৌকায় সিল দেয় বলে অভিযোগ করেছেন ওই কেন্দ্রের নৌকার এজেন্ট মো. আকতার হোসেন। নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শাহাদাত হোসেন বহিরাগতদের দিয়ে কেন্দ্র দখল করে নৌকায় সিল দিয়েছেন এমন অভিযোগ আকতার হোসেনের। সকাল সাড়ে ১১টায় এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ৮ রাউন্ড ফাঁকা রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে। এ ঘটনায় পুলিশ সদস্যদের ওপর ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের গাড়িতে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে বহিরাগতরা।
নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সংঘর্ষকে কেন্দ্র করে তিনটি কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ স্থগিত করা হয়েছে। কেন্দ্রগুলো হলো গাজীপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বিশনন্দী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও বিশনন্দী মাদরাসা। সকাল থেকেই বিশনন্দী ইউনিয়নের বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে সদস্য প্রার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। তিনটি কেন্দ্রসহ ইউনিয়নটির চারটি কেন্দ্রে অন্তত ৩৩টি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে।
দিনাজপুরের কাহারোল বীরগঞ্জ এবং খানসামার ২১টি ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। কোথাও অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হওয়ায় খুশি সংশ্লিষ্টরা।
গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে গোবিন্দগঞ্জের শিবপুর ইউনিয়েনের শিবপুর (পাঁচগচি) ফজরিয়া সিনিয়র মাদ্রাসা কেন্দ্রে দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা-ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে শিবপুর ইউনিয়নের আওয়ামী-লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী সেকেন্দার আলীসহ ১০ জন আহত হয়। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়। এ ছাড়া দুপুর দুইটার দিকে শাখাহার ইউনিয়নের দইহারা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ৩ নম্বর ওয়ার্ডের দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ৮ জন আহত হয়।
পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় তিন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে উৎসবমুখর পরিবেশে শেষ হয়েছে ভোট গ্রহণ। বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখা যায়, তীব্র শীত উপেক্ষা করে উৎসবমুখর পরিবেশে সকাল থেকেই প্রতিটা ভোট কেন্দ্রে ভোটারদের ছিল সরব উপস্থিতি।
কুড়িগ্রামে চতুর্থধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ছোট খাট সহিংসতার ঘটনা ঘটলেও সামগ্রিকভাবে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়েছে। বেশ কয়েকটি কেন্দ্রে সংঘর্ষ ও আহতের ঘটনা ঘটে। এতে প্রায় ৪ জন কর্মী-সমর্থক আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।
নওগাঁর তিন উপজেলার ২৬টি ইউনিয়নের ইউনিয়ন পরিষদের ভোট সম্পন্ন হয়েছে। সকাল ৮টা থেকে ভোটারদের স্বতঃস্ফ‚র্ত উপস্থিতিতে ভোটগ্রহণ শেষ হয়। রাজবাড়ী জেলার ১৪ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে ৮৮টি কেন্দ্রে শান্তিপূর্ণ ও উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট শেষ হয়েছে।
চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচনে জাল ভোটের অভিযোগে মাদারীপুরের শিবচরের একটি কেন্দ্র থেকে একজনকে আটক করে ৬ মাসের জেল দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। আরেকটি কেন্দ্র থেকে একজনকে আটক করা হয়েছে।
মহামারি পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ায় ইউপি নির্বাচনের প্রথম ধাপে গত ২১ জুন ও ২০ সেপ্টেম্বর, দ্বিতীয় ধাপে ১১ নভেম্বর এবং তৃতীয় ধাপে ২৮ নভেম্বর ভোট হয়। নির্বাচনী সহিংসতায় এ পর্যন্ত ৯৭ জন নিহত এবং প্রায় সাত হাজার আহত হয়েছেন।
চতুর্থ ধাপের ভোটে বিনা প্রতিদ্ব›িদ্বতায় নির্বাচিত হয়েছেন ২৯৫ জন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান ৪৮ জন, সংরক্ষিত সদস্য ১১২ জন ও সাধারণ সদস্যা ১৩৫ জন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
কাওসার ২৭ ডিসেম্বর, ২০২১, ৩:২৪ এএম says : 0
এমন নির্বাচনের আয়োজন করার কোন দরকার নেই
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন