বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বাবা-ছেলে ও জামাই-শ্বশুর

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ জানুয়ারি, ২০২২, ২:২৪ পিএম

জমে উঠেছে শেষ ধাপের সিলেটের সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। বিএনপির নেতাকর্মীরা দলীয়ভাবে নির্বাচনে অংশগ্রহণ না করলেও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে একাধিক ইউনিয়নের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে অংশগ্রহণ করছেন।

উপজেলার ৭টি ইউনিয়নের নির্বাচন আগামী ৭ ফেব্রুয়ারি। নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন ৪৮ জন প্রার্থী। এর মধ্যে উপজেলার শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নে চেয়্যারম্যান পদে বাবা-ছেলে ও জামাই-শ্বশুরের প্রতিদ্বন্দ্বিতায় ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে।


নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী বাবা-ছেলে হলেন, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের বালিয়াঘাট গ্রামের বাসিন্দা। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন খান ও তার ছেলে ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম খান পারুল।

অন্যদিকে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী শ্বশুর-জামাতা হলেন, উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সাবেক ইউপি সদস্য শামছুজ্জামান আহমেদ ও তার জামাতা ইসলামী ঐক্যজোটের নেতা খাইরুল বাশার। শ্বশুর শামছুজ্জামান আহমেদের বাড়ি ইউনিয়নের কলাগাঁও গ্রামে ও জামাতা খাইরুল বাশারের বাড়ি চারাগাঁও গ্রামে। দুই গ্রামের দূরত্ব মাত্র দুই কিলোমিটার।

বিষয়টি ইউনিয়নের গন্ডি পেরিয়ে পুরো উপজেলা জুড়ে আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দিয়েছে। বাবা-ছেলে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর সম্ভবনা থাকলেও জামাই-শ্বশুরের মধ্যে কেউ কাউকে ছাড় দিতে রাজি নয়। দুইজনই একে অপরের বিরুদ্ধে শেষ পর্যন্ত ভোটে লড়বেন।

শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ইসলামী ঐক্যজোটের নেতা খাইরুল বাশার জানান, ইউনিয়নের সাধারণ ভোটারগণ আমার সঙ্গে আছেন। আমার মাঠের অবস্থা ভালো। আমি মাঠে নিয়মিত গণসংযোগ করে যাচ্ছি।

উপজেলা বিএনপি সহ-সভাপতি সাবেক ইউপি সদস্য শামছুজ্জামান আহমেদ জানান, ভোটারগণ যাকে যোগ্য বা উপযুক্ত মনে করবেন তাকেই বিবেচনা করবেন ও ভোট দেবেন।

জামাই নির্বাচন করছেন বলে আমার ভোটের মাঠে কোনো প্রভাব পড়বে না। আমার জামাই এর আগেও দুইবার নির্বাচন করেছেন। নির্বাচনে তিনি জয় পাননি। তবে আমি জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়ে ১৪ বছর ইউনিয়ন পরিষদে ছিলাম। আশা রাখি এবারও জনগণ আমাকে ভোট দিয়ে তাদের পাশে রাখবেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন খানের ছেলে আবুল কালাম খান পারুল জানান, আমাদের পরিবার রাজনৈতিক পরিবার। আমরা দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী লীগের রাজনীতি করে আসছি। আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার জন্য দাবি জানিয়েছিলাম। কিন্তু এখনও পাইনি, আগামীকাল ২২ জানুয়ারি পর্যন্ত অপেক্ষা করব। এরপর সিদ্ধান্ত নেব।

তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হোসেন খান জানান, মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করে দাখিল করেছি। তবে নির্বাচন করব কি না এই বিষয়ে মনোনয়ন প্রত্যাহারের শেষ দিন আগামীকাল ২২ জানুয়ারি চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেব। আগামীকাল বিস্তারিত জানতে পারবেন।

শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়ন পরিষদের রিটার্নিং অফিসারের দায়িত্বপ্রাপ্ত উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা হাসান উদ দৌলা জানান, শ্রীপুর উত্তর ইউনিয়নের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থীসহ ৭ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন