মঙ্গলবার ০৬ ডিসেম্বর ২০২২, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১১ জামাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

শিল্পায়নের জন্য অগ্নি নিরাপত্তা খুবই জরুরী: পরিকল্পনামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৪ নভেম্বর, ২০২২, ৬:৪৭ পিএম

পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান বলেছেন, শিল্পায়নের জন্য অগ্নি নিরাপত্তা খুবই জরুরী। দেশ উন্নত হচ্ছে। একই সাথে দেশের ভেতরে বাড়ছে শিল্পকারখানা। তাই শিল্পকারখানার নিরাপত্তার জন্য অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা আধুনিকায়ন প্রয়োজন।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) ইলেকট্রনিক্স সেফটি এন্ড সিকিউরিটি এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইসাব) আয়োজিত ৮ম আন্তর্জাতিক ফায়ার, সেফটি এন্ড সিকিউরিটি এক্সপো ২০২২ অনুষ্ঠানে পরিকল্পনামন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস এ্ন্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মইন উদ্দিন বিএসপি ( বার) এনডিসি, পিএসসি, জি, এম ফিল ও বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফেকচার এন্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) সভাপতি ফারুক হাসান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন
ইলেকট্রনিক্স সেফটি এন্ড সিকিউরিটি এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইসাব) সভাপতি জহির উদ্দিন বাবর।

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, দেশের ৩২টি উপজেলায় নতুন করে ফায়ার সার্ভিসের ডিপো স্থাপন করা হয়েছে এটা দেশের বড় অর্জন। আমাদের আমাদের সবকিছুতেই অর্জন আছে এ অর্জন আরো বাড়াতে হবে। ব্যবসা বাণিজ্যের শিল্পের জন্য এসব যন্ত্রপাতি খুবই প্রয়োজন সরকার। সব ধরনের প্রয়োজনে সহযোগিতা সব সময় দিতে প্রস্তুত প্রদর্শনী হওয়া ভালো এ সরকারের বড় পরিবর্তন আনছে।

অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে ফেডারেশন অফ বাংলাদেশ চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন বলেন, আমরা এলডিসি গ্রাজুয়েশনের পথে আছি। ইলেকট্রনিক্স সেফটির পণ্য খাতে বাজারে সহজলভ্যতা তাদেরকে নিশ্চিত করতে হবে। পাশাপাশি জনসচেতনতার দায়িত্ব তাদেরই। লোকাল ইন্ডাস্ট্রিতে অনেক অনেক পণ্য আছে এখনো এখানে বিনিয়োগের সুযোগ অনেক বেশি। শিল্পায়নের জন্য এগুলো সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন।

তিনি বলেন, বাংলাদেশে ফ্রিজ উৎপাদন হবে এটা কেউ কল্পনাও করেনি। এখন বাংলাদেশ থেকে টিভিও রপ্তানি হচ্ছে। আপনাদের শিল্পেও অনেক সম্ভাবনা আছে আপনারা এটাকে কাজে লাগান।

বাংলাদেশ ফায়ার সার্ভিস এ্ন্ড সিভিল ডিফেন্সের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মইন উদ্দিন বলেন, আমরা প্রত্যেক দিনই কোন না কোন দুর্ঘটনাকে মোকাবেলা করছি। বিএমডিপো সর্বশেষ উদাহরণ। যারা সেখানে জীবন দিয়েছেন তাদেরকে আমরা অগ্নিবীর হিসেবে ঘোষণা করেছি। আমি বিল্ডিংয়েরর মালিক ও ফ্যাক্টরি মালিকদের অনুরোধ করেছি অগ্নি নির্বাপক রাখার জন্য।

বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফেকচার এন্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) সভাপতি ফারুক হাসান বলেন, শিল্পায়নের এ সময়ে নিরাপত্তা নিয়ে সচেতনতা আরও বাড়ানো দরকার। আমাদের ১০০ সবুজশিল্পের মধ্যে ৪৮টি বাংলাদেশের এটা নিয়ে আমরা গর্বিত। এখন আমাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করলে আমরা আরো এগিয়ে যাব। এসব লোকাল সেফটি নিশ্চিতের জন্য ইসাব জমি চেয়েছে আমিও সরকারকে অনুরোধ করব তাদেরকে জমি দেয়ার জন্য।

এই এক্সপোতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, যুক্তরাজ্য, ফিনল্যান্ড, মধ্যপ্রাচ্য, ভারত, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া এবং হংকং সহ ৩০টিরও বেশি বিভিন্ন দেশের ১৬০টিরও বেশি বিশ্বব্যাপী স্বনামধন্য এবং নেতৃস্থানীয় ব্র্যান্ড অংশ নিয়েছে। এই ট্রেড এক্সপোজিশনটিতে ২৫টি প্যাভিলিয়ন এবং ৫০টি বুথে সারা বিশ্ব থেকে অগ্নি নিরাপত্তা সম্পর্কিত খোদাই প্রযুক্তি প্রদর্শন করছে।

IFSSE-এর এই ৮তম সংস্করণ চারটি বিশেষভাবে ডিজাইন করা প্রযুক্তিগত সেমিনার আয়োজন করছে, যার মধ্যে দুটি আজ ২৪ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে এবং বাকি দুটি অনুষ্ঠিত হবে দ্বিতীয় দিন ২৫শে নভেম্বর। এছাড়া শেষ দিনে একটি আকর্ষণীয় গোলটেবিল আলোচনাও অনুষ্ঠিত হবে। পাশাপাশি, ইসাব এক্সপোর দ্বিতীয় দিনে 'ইসাব সেফটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২২'-এর আয়োজন করেছে।
মেলাটি ২৪ থেকে ২৬ নভেম্বর সকাল সাড়ে ১০টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত নিবন্ধিত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত রয়েছে। বিনামূল্যে নিবন্ধনের জন্য ইতিমধ্যেই অনুষ্ঠানস্থলে বুথ স্থাপন করা হয়েছে।

অনুষ্ঠানে ইসাব এরররর মহাসচিব মাহমুদুর রশিদ ও যুগ্ম মহাসচিব জাকির উদ্দিন আহমেদসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন