ঢাকা, মঙ্গলবার ২৫ জুন ২০১৯, ১১ আষাঢ় ১৪২৬, ২১ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

বিচার বিভাগের ভাবমর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয় এমন কাজ করা যাবে না

নবীন আইনজীবীদের সনদ বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান বিচারপতি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০১৮, ১২:০০ এএম

প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি ক্ষুণœ হয় এমন কাজ করা যাবে না। তিনি আরো বলেন, আইনের শাসন সুরক্ষিত করায় আইনজীবীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রয়েছে। ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় আপনারা সহযোগিতা করছেন। আইনজীবীদের পেশাগত অসদাচরণ কখনোই কাম্য নয়। গতকাল শনিবার দুপুরে রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে বাংলাদেশ বার কাউন্সিল উদ্যোগে নবীন আইনজীবীদের সনদ বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য প্রধান বিচাপরপতি এসব কথা বলেন।
প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, আইন পেশায় জ্ঞান ও মেধা দিয়ে মক্কেলদের সহযোগিতা করতে হবে। এজন্য বেশি বেশি জ্ঞান চর্চা করতে হবে। সে ক্ষেত্রে আইনজীবীদের কাছ থেকে পেশাগত অসদাচরণমূলক ব্যবহার কখনোই কাম্য নয়। প্রধান বিচারপতি আরো বলেন, বার (আইনজীবী) ও বেঞ্চ (বিচারালয়) একে অপরের সম্পূরক। তবে কার্যক্রমের ভিন্নতা থাকবে। কিন্তু তাদের হাতে হাত দিয়ে একসঙ্গে হাঁটতে হবে। বিচার বিভাগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন হয় এমন কাজ করা যাবে না।
নবীন আইনজীবীদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তিনি বলেন, আইনজীবী হিসেবে সফলতা অর্জন করতে হলে প্রয়োজন অধ্যবসায়। নিরলস শ্রম, সততা ও পেশার প্রতি আন্তরিকতা দিয়ে কাজ করলে তবেই সফলতা পাওয়া যায়। আইনের শাসন ও ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠায় আইনজীবীদের ভূমিকা অপরিসীম। আইনি ও মৌলিক অধিকার সুরক্ষায় জনগণের প্রতি আইনজীবীদের দৃঢ় অঙ্গীকারের কথা স্মরণ করিয়ে আইনজীবীদের উদ্দেশে প্রধান বিচারপতি বলেন, আইনজীবীদের কখনই তাদের শপথ ভুলে যাওয়া উচিৎ নয়।
বার কাউন্সিলের এনরোলমেন্ট কমিটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নুরুজ্জামান বলেন, নবীন আইনজীবীদের সিনিয়রদের সঙ্গে কাজ করে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে হয়। ভালো আইনজীবী হতে হলে সিনিয়রের সঙ্গে থাকার পাশাপাশি বিভিন্ন আইন, রেফারেন্স জানতে হবে। বার কাউন্সিলের ভাইস চেয়ারম্যান সিনিয়র অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তৃতা করেন কাউন্সিলের সদস্য ও এক্সিকিউটিভ কমিটির চেয়ারম্যান সিনিয়র অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু এমপি, বার কাউন্সিলের নির্বাচিত সদস্য ও ফাইন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান সিনিয়র আইনজীবী শ ম রেজাউল করিম, বার কাউন্সিলের সদস্য জেড আই খান পান্না। বার কাউন্সিল সদস্য অ্যাডভোকেট নজিবুল্লা হিরু অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এনরোলমেন্ট কমিটির সদস্য বিচারপতি ভবানী প্রসাদ সিংহ, বার কাউন্সিলের সদস্য ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার এএম মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ কাউন্সিলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেততৃবৃন্দ ও সিনিয়র আইনজীবীরা।
প্রসঙ্গত, অনুষ্ঠানে ২০১৩ সালের ৬ এপ্রিল বার কউন্সিলে যুক্ত হওয়া তিন হাজারের বেশি সদস্যদের মাঝে আইনজীবী অন্তর্ভুক্তির সনদ দেয়া হয়।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন