ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

তালিবানের সাথে শান্তি আলোচনায় ভারত

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ১০ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০৩ এএম

তালিবানদের সঙ্গে এই প্রথম বৈঠকে বসতে চলেছে ভারত। গতকাল শুক্রবার মস্কোর এই বৈঠককে অবশ্য ভারত সরকার ‘অনানুষ্ঠানিক পর্যায়ে’ রাখার কথা বলেছে। আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে আমেরিকা, পাকিস্তান, চিন ও ভারত-সহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিদের সঙ্গে তালিবান গোষ্ঠীর আলোচনাসভার উদ্যোগ নিয়েছে রাশিয়া। জানা গিয়েছে, বৈঠকে দেশের প্রতিনিধিত্ব করবেন আফগানিস্তানে ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রদূত অমর সিনহা এবং পাকিস্তানে দেশের পূর্বতন হাই কমিশনার টি সি এ রাঘবন। এই প্রথম দিল্লি তালিবানদের মুখোমুখি হওয়ায় ভারতে যাতে বিতর্ক সৃষ্টি না হয় সে জন্য তারা তাদের উপস্থিতিকে সরকারী ও আনুষ্ঠানিক নয় বলে নিরাপদ অবস্থানে থাকতে চাইছে। গত অক্টোবর মাসে ভারত সফরে এসে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সাক্ষাতের পরেই বৈঠকে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দিল্লি। বৃহস্পতিবার সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার জানিয়েছেন, ‘আফগানিস্তানে যে কোনও রকম শান্তি প্রতিষ্ঠা ও সমন্বয় সাধনের উদ্যোগকে সমর্থন জানায় ভারত। স্পুটনিক।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (3)
অর্ণব ১০ নভেম্বর, ২০১৮, ৬:৩৭ পিএম says : 0
ভারতের মনে ভয় ঢুকে গেছে। আমেরিকার চামচামি করছে আফগানে। এখন পালাবার পথ খুজছে। পাকিস্তান ও তালেবানদের বিরুদ্ধে আমেরিকার পক্ষে অবস্থান করছে ভারত। আফগান ছেড়ে পালানোর পালা আমেরিকা। তাই ভারতও বিদায় হচ্ছে প্রভুর সাথে সাথে। ভারতের ভয় তালেবানরা চূড়ান্ত বিজয়ী হলে এবং আমেরিকা আফগান ছাড়লে তালেবানরা শত্রুর সহযোগী ভারতের উপর প্রতিশোধ নিতে জম্বু কাশ্মীরে ঢুকে পড়তে পারে এবং স্কাবাধীনতাকামী শ্মীরীদের সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে জম্বু কাশ্মীর স্বাধীন করে ফেলতে পারে।। এই ভয়ে এখন তালেবানদের সাথে লিয়াজু করছে। মনে হয় লাভ হবে না।।
Total Reply(0)
মাহবুব ১১ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:০১ এএম says : 0
এখানে আপনি আপনার মন্তব্য করতে পারেন সিরিয়া ই্যসূ নিয়ন্ত্রণ করতে মস্কো বৈঠক আয়োজনে মিঃ পুতিন যে কৌশল অবলম্বন করছে,তাতে আমেরিকার প্রতিনিধি ছিল।সমোঝতা স্বাভাবিক নয় ।তালেবানের ইস্প্রিট, দ র্শন পূর্বের চেয়ে বেগবান।পরিস্থিতি সামাল ও জঙ্গি প্রশমনে সুপার মেধার সুপার কৌশল--এক ঢিলে দুই পাখি মারা ।ধন্যবাদ-- রাশিয়া ।কিন্তু সিরিয়ার নারকীয় তান্ডবলীলা কিন্তু ইতিহাস থেকে মুছে যাবে না ।কী অহংকার---জ্ঞান-প্রযুক্তি,মানব প্রেমের রাইট দর্শনের সূতিকাগার দেশ বলে হুঙ্কার,মাঝে মাঝে তারতের সাধু ,বৈচিত্রে অনন্য রাশিয়াকে বড় মিয়া নবভাব বর্জন আব্যশক--- নিরাপদ বিশ্ববির্নিমাণে ।সমন্বয়,সংলাপ,বিতর্ক,সন্ধি,চুক্তি,ঐক্য ইত্যাদির অকৃত্রিম পরিমল দিকগুলো সভ্যতার উজ্জ্বল দিক ।বাড়াবাড়ির ঢামাঢোলে পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ার কালো অধ্যায় ,শাক দিয়ে মাছ ঢাকার মত অভিনয় কাম্য নয় ।ইরাক যুদ্ধের পর মিঃ জুনিয়র বুশের ক্ষমা প্রার্থনা ,আমাদের মনে জ্ঞানের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ জাগ্রত করে এবং এ অনুতপ্ত ইতিহাসের উজ্জ্বল দিক ।যেখানে সরলতা নেই,ভুল-ত্রূটির পর অকপট অনুতপ্ত প্রকাশ নেই বরং যৌক্তিকায়ন করে দর্শন তৈরি হয়,তা অশুভ ইঙ্গিত করে।
Total Reply(0)
আইনুদ্দীন ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৮, ১০:৩৯ এএম says : 0
আলহামদুলিল্লাহ।। ইসলামের বিজয় সুনিশ্চিত
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন