ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

খেলাধুলা

ঘুরে দাঁড়াতে চায় বাংলাদেশ

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১১ নভেম্বর, ২০১৮, ১২:৩৪ এএম

টোকিও অলিম্পিক মহিলা ফুটবলের এশিয়া অঞ্চলের বাছাইয়ের প্রথম পর্বে ‘সি’ গ্রপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে আজ মাঠে নামছে বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা দল। এ ম্যাচে লাল-সবুজদের প্রতিপক্ষ ভারত। মায়ানমারের রাজধানী ইয়াঙ্গুনের থুয়ুন্না স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় দুপুর আড়াইটায় শুরু হবে ম্যাচটি।

টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক মায়ানমারের কাছে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত হয় বাংলাদেশ। এ ম্যাচে কোনো প্রতিরোধই গড়ে তুলতে পারেনি লাল-সবুজের মেয়েরা। তবে ভারতের বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়াতে চান সাবিনা খাতুনরা।

ভারত জাতীয় দলের বিপক্ষে বরাবরই ব্যর্থ বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা দল। যদিও সাফের বিভিন্ন বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্টে বাংলাদেশের মেয়েরা ভারতকে একাধিকবার হারিয়েছে। তবে দক্ষিণ এশিয় মহিলা ফুটবলের শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই বড়দের সাফে গত বছর ফাইনালে খেললেও এই ভারতের কাছে হেরেই শিরোপা বঞ্চিত হয় বাংলাদেশ জাতীয় দল। এতেই বুঝা যায় শক্তির বিচারে বাংলাদেশের চেয়ে যোজন যোজন এগিয়ে ভারতের মেয়েরা।

তবুও মহিলা অলিম্পিক ফুটবলের বাছাই পর্বে ভারতের বিপক্ষে ভালো কিছু করার লক্ষ্য লাল-সবুজদের। বাংলাদেশ কোচ গোলাম রব্বানী ছোটনের কথায় এর প্রমাণ মেলে । ম্যাচের আগে গতকাল তিনি বলেন, ‘ মেয়ে-ছেলে উভয় ফুটবলেই ভারত দক্ষিন এশিয়া অঞ্চলের সেরা দল। তদের মহিলা দলে অনেক অভিজ্ঞ ফুটবলার রয়েছে। তারপরও তাদের বিপক্ষে আমরা প্রতিদ্বিদ্বিতাপূর্ণ ম্যাচ উপহার দিতে পারবো বলে আশা করছি। আমাদের মেয়েরা দিন দিন উন্নতি করছে। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে শক্ত প্রতিপক্ষের সঙ্গে কিভাবে খেলতে হয় সেটা এখন জানে তারা। মায়ানমারের বিপক্ষে ম্যাচের ভুলগুলো নিয়ে আমরা কাজ করেছি। নিজেদের পরিকল্পনামাফিক খেলতে পারলে ভাল ফল অবশ্যই পাবো ভারতের বিপক্ষে।’

ভারতকে শক্ত প্রতিপক্ষ মানলেও তাদের বিপক্ষে নিজেদের স্বাভাবিক খেলাটাই খেলতে চান বাংলাদেশ ডিফেন্ডার আঁখি খাতুন। তিনি জানান, শক্ত প্রতিপক্ষ হলেও ভারতকে হারানোর মতো রসদ বাংলাদেশ দলের রয়েছে।

মহিলা ফুটবলের সিনিয়র পর্যায়ে ভারত-বাংলাদেশ সর্বশেষ মুখোমুখী হয়েছে ২০১৭ সালের জানুয়ারীতে। গেল সাফ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে ভারত ৩-১ গোলে বাংলাদেশকে হারিয়ে শিরোপা জয় করে। ওই দলে খেলা কৃষ্ণা রানী, সিরাত জাহান স্বপ্নারা এখন বেশ অভিজ্ঞ ও পরিপক্ক। তাদের সঙ্গে বাংলাদেশ দলে রয়েছেন অধিনায়ক সাবিনা খাতুনের মতো অভিজ্ঞ গোলমেশিন খ্যাত স্ট্রাইকার। এ কারনেই ভারত ম্যাচ নিয়ে আশাবাদী বাংলাদেশ শিবির।

আজ দিনের অন্য ম্যাচে নেপালের মুখোমুখী হবে এই গ্রুপের ফেভারিট স্বাগতিক মায়ানমার। বাছাইয়ের প্রথম পর্বের চার গ্রুপ থেকে শীর্ষ দলগুলোর সঙ্গী হয়ে দ্বিতীয় পর্বে যাবে সেরা রানার্সআপ দু’টি দল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন