ঢাকা, বুধবার, ২১ আগস্ট ২০১৯, ০৬ ভাদ্র ১৪২৬, ১৯ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

জাতীয় সংবাদ

বালিশ ক্রয় দুর্নীতি তদন্তে জড়াতে চায় না দুদক

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

দুর্নীতির বিরুদ্ধে হাকডাক, ‘একে ধরো ওকে ডাকো, অমুকের বিরুদ্ধে মামলা দাও, তমুককে সামাজিক ভাবে হেয় করো’ কর্মকান্ড দেখালেও রূপপুর পারমানবিক কেন্দ্রের আবাসিক প্রকল্প গ্রীনসিটি বালিশ দুর্নীতি তদন্তে জড়াতে চায় না দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ওই প্রকল্পের ব্যাপক দুর্নীতি নিয়ে সারাদেশে তোলপাড় চলছে। রাজপথে মানববন্ধন এবং দায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি উঠেছে। ওই দুর্নীতি তদন্তের দুদকের দিকে তাকিয়ে সাধারণ মানুষ; তখন দুদক জানিয়েছে এখনই তারা বালিশ দুর্নীতির তদন্তে নামছেন না। দুদক চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ বলেছেন, গৃহায়ণ ও গণপূর্ণ মন্ত্রণালয়ের ইতোমধ্যে এ বিষয়ে দুটি তদন্ত কমিটি করছে। মন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটির প্রতিবেদন দেখে তারপরই দুদক এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে। গতকাল মঙ্গলবার ঢাকার সেগুনবাগিচায় দুদকের প্রধান কার্যালয়ের সামনে তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, উই অ্যার ওয়েটিং ফর দ্যা রিপোর্ট। যেহেতু মিনিস্ট্রি কাজ করছে, আমরা রিপোর্ট চাইব, আমরা রিপোর্ট দেখব, তারপরে যদি দেখি ইনগ্রেডিয়েন্টস আছে, সেখানে ডেফিনেটলি আমরা আইনি পদক্ষেপ নেব।
বালিশ ক্রয়ে সাগরচুরি নিয়ে এখনোই দুদক তদন্ত করবে না এমন সিদ্ধান্তে পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে ইকবাল মাহমুদ বলেন, কথা হল দুর্নীতি হয়েছে বা হয়নি। গণমাধ্যমের যে তথ্য সেখানে আমি দেখেছি- বালিশ, কেটলি এসব বিষয়। দুর্নীতি দমন কমিশনের কিছু প্রসিডিউর আছে। একটা রিপোর্ট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমরা তো জাম্প দিতে পারি না। সেটা দেখতে হয়, বুঝতে হয়। তিনি আরো বলেন, আমরা ইতোমধ্যে কথা বলেছি, জেনেছি যে অলরেডি দুটি কমিটি কাজ করছে। পত্রিকায় যে নিউজ সেটিও আমাদের কাছে এসেছে। এসব দেখে আমি একটা অর্ডার করেছি। অর্ডারটি হল- সেই তদন্ত রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করা। সবাই যদি একই জিনিস নিয়ে কাজ করতে থাকি, তাহলে জিনিসটা ভাল দেখায় না। তারা কী রিপোর্ট দেয়, সেই রিপোর্ট দেখে তখন ব্যবস্থা গ্রহণ করব।
অতীতে দুর্নীতির অভিযোগ নিয়ে সরকারের অন্যান্য বিভাগের পাশাপাশি দুদক অনুসন্ধানের উদ্যোগ নিলেও এবার তা কেন হবে না- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, শোনেন, আমাদের কতগুলো প্রজেক্ট আছে যেগুলো জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ। সেখানে হঠাৎ করে আপনি জাম্প করবেন? সেখানে চিন্তা-ভাবনা করতে হয়। তিনি আরো বলেন, এটা জাতীয় বিষয়, রূপপুর পারমাণবিক প্রকল্প বহুদিন ধরে চলছে। কিন্তু এটার বাস্তবায়নের কাজ মাত্র শুরু হয়েছে। এটা আমাদের জন্য অত্যান্ত গর্বের ও গুরুত্বপূর্ণ। সো জাস্ট ওয়েট।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (4)
Kamal Pasha ২২ মে, ২০১৯, ২:১১ এএম says : 0
দূর্নীতি রক্ষা কমিশন।
Total Reply(0)
মাও. নিয়াজ মোরশেদ ২২ মে, ২০১৯, ২:১২ এএম says : 0
দুদকের বিরুদ্ধে তদন্ত কমিটির দরকার
Total Reply(0)
Rakibul Islam ২২ মে, ২০১৯, ২:১১ এএম says : 0
তাহলে খামাখা দুদক রেখে লাভ কি?
Total Reply(0)
Mahmood Hasan Ramiz ২২ মে, ২০১৯, ২:১১ এএম says : 0
দুদক দেখে শুধু বিরুধী দল
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন