ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯, ০২ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ সফর ১৪৪১ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট নেই

নির্বিঘ্নে বাড়ি ফিরছেন ঘরমুখো মানুষ

টাঙ্গাইল জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১ জুন, ২০১৯, ৭:০৩ পিএম

ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধুসেতু মহাসড়ক যানজটমুক্ত থাকায় স্বস্তিতে বাড়ি ফিরছে ঘরমুখো মানুষ। বিগত বছরের চেয়ে এবার অনেকটা ফাঁকা রয়েছে সদা ব্যস্ত এই মহাসড়কটি। গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি স্থানে যানবাহনের কিছুটা চাপ থাকলেও পুরো মহাসড়কটি নির্বিঘ্নে পাড়ি দিচ্ছে সকল ধরণের যানবাহনগুলো। ফলে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছে যাত্রী, প্রশাসন ও পরিবহন সংশ্লিষ্ট সবাই। তবে গার্মেন্টস ও শিল্পপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ ঘোষণা করলে মহাসড়কের উপর বাড়তি চাপ পড়বে পারে। ওই সময় যানজটের আশঙ্কা প্রকাশ করলেন অনেকেই। এদিকে মহাসড়কটি যানজটমুক্ত রাখতে তৎপর রয়েছে হাইওয়ে পুলিশসহ জেলা পুলিশ।
রাজধানী ঢাকার সাথে সড়ক পথে উত্তরবঙ্গের ২৩ জেলার একমাত্র যোগাযোগ মাধ্যম এই মহাসড়কটি। বঙ্গবন্ধুসেতু থেকে ঢাকার সাথে এই সড়কের দৈর্ঘ্য প্রায় ১২৫ কিলোমিটার। শুধু ঢাকা-টাঙ্গাইল-বঙ্গবন্ধু সেতু মহাসড়কের টাঙ্গাইলের অংশ ৬৫ কিলোমিটার। ঈদের সময় ঘরমুখো মানুষের যানবাহনের ভিড়ে এই মহাসড়কে সৃষ্টি হতো যানজটের। ফলে ভোগান্তিতে পড়তে হতো গাড়ির চালক ও ঘরমুখো মানুষের। হিমশিম খেতে হতো পুলিশ প্রশাসনসহ সবাইকে। প্রতি বছর ঈদে এ মহাসড়ক দিয়ে উত্তরবঙ্গের লাখ লাখ মানুষ যাতায়াত করে, যা স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে কয়েকগুন বেশি।
এদিকে ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে গত ২৫ মে শনিবার গণভবণ থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে জয়দেবপুর-চন্দ্রা-টাঙ্গাইল-এলেঙ্গা মহাসড়কের কোনাবাড়ি ও চন্দ্রা ফ্লাইওভার দু’টি ও ঘারিন্দা, দেওহাটা, মির্জাপুর এবং কালিয়াকৈর আন্ডার পাসের উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফলে গতকাল শুক্রবার আজ শনিবার ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক অনেকটা ফাঁকা ঈদ যাত্রায় যানবাহনের তেমন কোনও চাপ নেই। স্বাভাবিক গতিতেই চলাচল করছে যানবাহন। ফলে ঈদযাত্রায় ঘরমুখো মানুষ স্বস্তিতে বাড়ি পৌঁছাচ্ছেন।

বঙ্গবন্ধু সেতু পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোশারফ হোসেন বলেন, ‘মহাসড়কের কোথাও যানজট নেই। যানবাহন স্বাভাবিক গতিতেই চলাচল করছে। এ সড়কে যাতায়াতরত ঘরমুখো মানুষ স্বস্তিতেই বাড়ি ফিরছেন।’
টাঙ্গাইলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদুর রহমান জানান, ‘গতকাল শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে আজ শনিবার সকাল ৬টা পর্যন্ত এ সড়কে ২৫ হাজার ১৮৬টি যানবাহন চলাচল করেছে। টোল আদায় হয়েছে তিন কোটি ১৬ লাখ ১৬হাজার ৮শ’ টাকা।’

 

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন