ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

নতুন বাজেট চবিকে গবেষণাহীন ও অনুর্বর বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করবে: ছাত্র ইউনিয়ন

চবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৮ জুলাই, ২০১৯, ৪:০৬ পিএম

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশকৃত ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেট বিশ্ববিদ্যালয়কে গবেষণাহীন ও অনুর্বর বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত করার প্রক্রিয়া বলে মনে করে ছাত্র ইউনিয়ন চবি শাখা। আজ (রবিবার) দুপুরে সংগঠনটির সভাপতি ধীষণ প্রদীপ চাকমা ও সাধারণ সম্পাদক গৌরচাঁদ ঠাকুর অপুর যৌথ গণমাধ্যম বিবৃতিতে এটি জানানো হয়। গতকাল শনিবার ৩৩৯ কোটি ১৮ লাখ টাকার বাজেট অনুমোদন দেয় বিশ^বিদ্যালয় কতৃপক্ষ। যাতে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতায় সর্বোচ্চ বরাদ্দ দেওয়া হয়। গবেষণা খাতে বরাদ্দ দেওয়া হয় মোট বাজেটের ১.২৩ শতাংশের মত।
বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ছাত্র প্রতিনিধিবিহীন সিনেট অধিবেশনের মাধ্যমে পাশকৃত এ বাজেটে শিক্ষার্থীদের মতামত প্রতিফলিত হয়নি। এ বাজেটে শিক্ষার্থীদের মতামতকে গুরুত্ব না দিয়ে গবেষণাখাতে মোট বাজেটের মাত্র ১.২৩ শতাংশ বরাদ্দ দেওয়া হয় যা বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার খাতকে নিরুৎসাহিত করার সামিল। তারা মনে করেন, ৩৩৯ কোটি ১৮ লাখ টাকার বাজেটের মধ্যে শুধুমাত্র শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতা বাবদ ২১২ কোটি ৭০ লাখ টাকা (মোট বাজেটের ৬২.৭১ শতাংশ) বরাদ্দ দেওয়া বাজেট আর শিক্ষার্থীবান্ধব বাজেট থাকে না। বরং এ বাজেটের মাধ্যমে সুকৌশলে বিশ্বব্যাংক প্রস্তাবিত ২০ বছর মেয়াদী উচ্চশিক্ষার কৌশলপত্র বাস্তবায়ণ করে শিক্ষাকে সংকুচিত করা ও গবেষণাখাতকে ধ্বংস করার পায়তারা করা হচ্ছে। এ বাজেটে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ আয় বাড়ানোর প্রবণতা লক্ষণীয়। বিশ্ববিদ্যালয়ে অভ্যন্তরীণ আয় বাড়ানোর জন্য শিক্ষার্থীদের পকেট কেটে নামে-বেনামে বিভিন্ন ধরণের অনৈতিক ফি আদায় করার প্রচেষ্টা বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন নয়।
তারা আরও বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে শুধু সার্টিফিকেট বিতরণের জায়গা হিসেবে সীমাবদ্ধ না রেখে উন্নততর গবেষণার মাধ্যমে নতুন নতুন জ্ঞান সৃজন, জ্ঞানচর্চা ও জ্ঞান বিতরণ বিশ্ববিদ্যালয়ের মৌলিক উদ্যেশ্য হওয়া উচিত। তাই গবেষণা খাতে পর্যাপ্ত বরাদ্দ ছাড়া এ উদ্যেশ্য বাস্তবায়ণ করা সম্ভব নয়।
তারা আরও দাবি করেন, সিনেটে ছাত্র প্রতিনিধি না থাকার কারণে ছাত্রস্বার্থপরিপন্থী এ ধরণের বাজেট পাশ করা সহজ হয়। তাই ছাত্র ইউনিয়ন নেতৃবৃন্দ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনকে অবিলম্বে চাকসু নির্বাচন আয়োজন করে সিনেটে ছাত্র প্রতিনিধি নিশ্চিত করার এবং ২০১৯-২০ অর্থবছরের এ বাজেটকে বাতিল করে শিক্ষার্থী ও গবেষনাবান্ধব বাজেট প্রণয়ণ করার আহ্বান জানান।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন