ঢাকা, বৃহস্পতিবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

শেখ হাসিনার বেহেস্তে যাওয়ার অধিকার আছে: পরিকল্পনামন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৮:২৯ পিএম

‘এখন আমরা ভালো খাই, ভালো পরি। আমরা তিনবেলা ভাত খাই। তিনবেলা পেট ভরে ভাত খাচ্ছে, এই বুভুক্ষু জাতির ইতিহাসে তেমন কোনো উদাহরণ ছিল না। সেই জাতির প্রায় প্রতিটি ঘরে বিদ্যুতের আলো জ্বলছে। এ দেশের ৯৫-৯৬ ভাগ ঘরে বিদ্যুৎ নিয়ে গেছি। এর চেয়ে বড় উন্নয়ন মেলা আর কি হতে পারে। এই একটি কাজের জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এমন পরিমাণ পুণ্য অর্জন করেছেন যে, তার বেহেস্তে যাওয়ার অধিকার আছে। হক আছে।’- পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান এসব কথা বলেছেন।

সোমবার (১৮ নভেম্বর) বিকেলে রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ‘উন্নয়ন মেলা-২০১৯’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন পরিকল্পনামন্ত্রী। পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) এ উন্নয়ন মেলার আয়োজন করে।

এই জাতিকে হীনমন্যতা থেকে বেরিয়ে আসার আহ্বানও জানান পরিকল্পনামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘অনেক অনুষ্ঠানে যাই, যেখানে ঘরভর্তি বাঙালি। একটি লোকও নেই যে, অন্য কোনো ভাষা জানেন। কিন্তু সেখানে সব কিছু ইংরেজিতে উপস্থাপন করা হয়। আবার মুখে বলা হয় বাংলা, কিন্তু কাগজ করা হয় ইংরেজিতে। পুরো সেশনটাই ইংরেজিতে হয়, এতে যিনি বলছেন তারও কষ্ট হয়, আবার যিনি শুনছেন, তারও কষ্ট হয়। তারপরও এ কাজটা আমরা করে যাচ্ছি। এর কারণ আমরা নিজেরা নিজেদের সম্মান দিচ্ছি না।’

এদিকে সরকার প্রধানের প্রশংসা করে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী গত ১০ বছরে একনেক সভায় (জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি) এক মিনিট দেরি করে আসেননি বলেও জানান পরিকল্পনামন্ত্রী।

মন্ত্রী বলেন, ‘যেদিন রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ কাজের জন্য প্রধানমন্ত্রী একনেকে আসতে পারবেন না, তার আগের দিন জানিয়ে দিয়েছেন, কিন্তু দেরি করেননি। এটা বলার দরকার আছে এ দেশে। কারণ প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি, উচ্চ অতিথি সভায় দেরি করে আসেন। এ থেকে আমাদের শেখার আছে।’

কোনো প্রতিষ্ঠানের কর্মকাণ্ডে হস্তক্ষেপ করা প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশ্য নয় বলেও জানান মন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমরা হস্তক্ষেপে বিশ্বাস করি না। প্রধানমন্ত্রী চান, সব সংস্থা যেন তাদের নিজস্ব আইন-কানুন দ্বারা পরিচালিত হয়। যদিও ব্যাংকগুলো নিয়ে আমরা শঙ্কিত। নানা ধরনের বকাঝকার মধ্যে বাস করি। তারপরও চাই ব্যাংকগুলো যেন তাদের নিজস্ব বোর্ড, নিজস্ব চেয়ার, নিজস্ব বিধি-বিধান অনুযায়ী চালুক। সকাল, বিকাল হস্তক্ষেপ করা আমাদের উদ্দেশ্য নয়। প্রধানমন্ত্রীর মোটেও উদ্দেশ্য নয়।’

এ সময় অন্যদের মধ্যে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার, পিকেএসএফের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বক্তব্য রাখেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (9)
মজলুম জনতা ১৮ নভেম্বর, ২০১৯, ৮:৫২ পিএম says : 3
বেহেস্তের সর্বাচ্চ মাকাম পাবেন,দেশে ন্যায় শাষন ও ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠাকারী।আমরা সবাই যেনো বেহেস্ত পাবার কাজ করি।
Total Reply(0)
সোহরাব ১৮ নভেম্বর, ২০১৯, ১০:০৩ পিএম says : 1
বেহেস্ত........ কেনাতো! তাহলে নেতানিয়াহু, জজ ডব্লিউ বুশ ও মুদির সবার আগে বেহেশতে যাওয়ার অধিকার রয়েছে।
Total Reply(0)
JUNAEID HOSEN ১৯ নভেম্বর, ২০১৯, ২:২০ এএম says : 1
জান্নাত তখন ওই পাবে যখন কোরআন এর আইনে দেশ চলবে আল্লাহ্ তার জন্য ওই জান্নাত বানাইছে ন্যায়বিচারে দেশ চলবে ।।।
Total Reply(0)
jack ali ১৯ নভেম্বর, ২০১৯, ৫:০১ পিএম says : 1
When Allah [SWT] power to a Muslim [not women] he must do the following: 1. Establish Namaj {Leader has to lead the Namaj and also give Jummah Khutaba} 2. Zakat 3. They command what is right 4. and forbid what is wrong
Total Reply(0)
খন্দকার শওকত আলী ২০ নভেম্বর, ২০১৯, ৭:২৩ এএম says : 1
....................... মহান আল্লাহর নিকট দোয়া করি আপনাদের যেন সুমতি ও বেহেশত দান করেন।
Total Reply(0)
Noor Mohammad ২০ নভেম্বর, ২০১৯, ২:৫১ পিএম says : 1
আল্লাহু প্রধানমন্ত্রী কে কবুল করুন। আপনাদেরকে কবুল করুন। আমাদের কেও কবুল করুন। আমাদের দেশবাসীকে কবুল করুন। সারা জাহানের মুসলমান দের কে কবুল করুন। সারা জাহানের মানব কুল কে হেদায়েত দান করুন। আল্লাহু, আমরা যে আমল করলে রাজি হন, সে আমল সকলকে করার তৌফিক দান করুন। আমীন ছুমমা আমিন। "সেই দিন আমল দেখে রায় দিবেন টাকা পয়সার নাই কারবার।"
Total Reply(0)
oti_shadharon ২৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১০:০৯ এএম says : 0
বেহেস্তে কেবল তারাই যেতে পারবেন, যাদেরকে মহান আল্লাহতালা তাঁর অসীম অনুগ্রহে সেখানে যাবার অনুমতি দেবেন। বেহেস্ত কোনো মানুষের সম্পত্তি নয়; ওখানে কেউ অধিকার বলে যেতে পারবেনা, এটা সুনিশ্চিত। ইসলাম সম্মন্ধে অজ্ঞতার কারণে কেউ কেউ অবান্তর মন্তব্য করেন; তাতে মহান আল্লাহ তালার কিছু আসে-যায় না।
Total Reply(0)
ওবাইদুল ইসলাম ২৪ নভেম্বর, ২০১৯, ৫:২২ পিএম says : 0
শুধু আল্লাহতায়ালা যাকে মেহেরবানি করে বেহেস্তে দিবেন শুধু সেই বেহেস্তে যাবে । ঈমান, আমল বা দাবি করে কেউই বেহেস্তে যেতে পারবে না । সাহাবির (রাঃ) প্রশ্নে রাসুল (সাঃ) বলেছেন "এমনকি আমিও না"। মুমিনদের উচিত আল্লাহতায়ালার নারাজিকে ভয় করা। দ্বিনের জ্ঞান অর্জন করা। এখন প্রায় সকল ভাষায় তর্জমা করা হাদিস, কোরআন ও অন্যান্য ইসলামি কিতাব বাজারে পাওয়া যায়। ইসলামি জ্ঞান চর্চা না করে ও জীবনে বাস্তবায়ন না করে উত্তম মুসলমান হওয়া যাবে না।
Total Reply(0)
এইচ.এম.বিল্লাল হোসেন রাজু ২৩ নভেম্বর, ২০১৯, ১০:২৭ পিএম says : 0
মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়ের এমন বক্তব্য আশা করিনি।আমরা সুনিশ্চিত হয়ে বলতে পারিনা জান্নাত কে প্রাপ্য।তবে হ্যাঁ আমরা মহান রাব্বুল আলামিনের কাছে যে কোন ব্যক্তির জন্য দোয়া করতে পারি আল্লাহ যেন তাকে জান্নাত দান করে এমন ভাবে।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন